🕓 সংবাদ শিরোনাম

কুড়িগ্রামের সেই ডিসির ‘লঘুদণ্ড’ মওকুফবুয়েটের ছাত্র আবরার হত্যা মামলার রায় রোববারইসলাম ধর্ম গ্রহণ করলেন একই পরিবারের ৫ জনটাঙ্গাইলের নাগরপুরে ইউপি নির্বাচনকে কেন্দ্র করে গুলিবর্ষণ: নিহত ১, আহত ২সোনারগাঁয়ে নৌকা প্রতীকের চেয়ারম্যান প্রার্থীদের বিজয়ী করতে দিনরাত গণসংযোগআকাশে উড়ন্ত চাকি কি ভিনগ্রহীদের ? নাকি শত্রু যান তদন্তে পেন্টাগনকদবেল খাওয়ার প্রলােভন দেখিয়ে বাথরুমে নিয়ে শিশু ধর্ষণ, ধর্ষক গ্রেপ্তারআত্মস্বীকৃত ইয়াবা সম্রাট এনামের কোটি টাকার চালান যায় নরসিংদীতেস্কাউটের সর্ব্বেচ্চ পদক শাপলা কাব অ্যাওয়ার্ড পেলেন মির্জাপুরের ১৬ শিক্ষার্থীমতলবের নির্বাচনে অতিরিক্ত ১০ প্লাটুন র‍্যাব ও বিজিবি, থাকবে কোস্টগার্ডও

  • আজ শনিবার, ১২ অগ্রহায়ণ, ১৪২৮ ৷ ২৭ নভেম্বর, ২০২১ ৷

ধর্ষণ চেষ্টায় ব্যর্থ হয়ে শ্বাসরোধ করে গৃহবধূকে হত্যা, এলাকায় শোকের ছায়া


❏ সোমবার, আগস্ট ১৫, ২০১৬ অপরাধ, আলোচিত, স্পট লাইট

কামরুল হাসান, ঠাকুরগাঁও জেলা প্রতিনিধিঃ ঠাকুরগাঁওয়ে ধর্ষণের চেষ্টায় ব্যর্থ হয়ে  গৃহবধূকে হত্যার অভিযোগ উঠেছে ।

ঠাকুরগাঁওয়ের রাণীশংকৈল উপজেলায় ধর্ষণ চেষ্টায় ব্যর্থ হয়ে শ্বাসরোধ করে হত্যা চেষ্টার পর গুরুতর আহত হয়ে হাসপাতালে চিকিতসাধিন অবস্থায় ঘটনার একদিন পর  এক শাপলা নামের  গৃহবধূর মৃত্যু হয়েছে। মর্মান্তিক এই ঘটনায় পুরো এলাকাজুড়ে নেমে এসেছে শোকের ছায়া ।

নিহত  শাপলা উপজেলার গোগর ঝাড়বাড়ি গ্রামের হাসান আলীর স্ত্রী ও এক কন্যা সন্তানের জননী ছিলেন। এখন পর্যন্ত এলাকাবাসি ও পুলিশের সাথে কথা বলে ঘটনার সাথে জড়িত কাউকে সনাক্ত করা যায়নি ।

ঘটনা সূত্রে জানা যায়,গত  শনিবার দুপুর সাড়ে বার নাগাদ  বাড়ির সবাই কাজে গেলে শাপলা আক্তার ঘরে একা ছিলেন। বেলা ১২টার দিকে শাপলার ঘরে গিয়ে তার শাশুড়ি তাকে কাপড়চোপড় ছেঁড়া মুমূর্ষু অবস্থায় পড়ে থাকতে দেখেন। পরে এলাকাবাসীকে  জানালে তাকে গুরুতর আহত অবস্থায় উদ্ধার করে রাণীশংকৈল উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যাওয়া হয়।
রাণীশংকৈল উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের চিকিৎসক উজ্জ্বল কুমার ঘোষ সময়ের কণ্ঠস্বরকে বলেন, ওই গৃহবধূকে ধর্ষণের চেষ্টা করা হয়েছে। ধর্ষণে ব্যর্থ হয়ে তাকে শ্বাসরোধ করে হত্যার চেষ্টা করা হয় বলে প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে। গৃহবধূর শরীরের বিভিন্ন স্থানে ক্ষতের চিহ্ন পাওয়া গেছে।

rape

রাণীশংকৈল থানা অফিসার ইন-চার্জ (তদন্ত) মোঃ সিরাজুল ইসলাম মৃতের সত্যতা নিশ্চিত করে সময়ের কণ্ঠস্বরকে জানান , প্রাথমিক তদন্তমতে গৃহবধূকে ধর্ষণের চেষ্টা করে ব্যর্থ হলে তাকে শাস রোধ করে মেরে ফেলা হয়েছে বলে ধারণা করা হচ্ছে। তার শরীরে ক্ষতের চিহ্ন পাওয়া গেছে। এ রিপোর্ট লিখা পর্যন্ত মামলার প্রস্তুতি চলছিলো বলেও জানান ওসি ।