বিক্ষোভ-সহিংসতায় আবারও উত্তপ্ত ভূস্বর্গ কাশ্মির..!


❏ সোমবার, আগস্ট ১৫, ২০১৬ আন্তর্জাতিক

4bk782b5150d35b5x7_800C450


আন্তর্জাতিক ডেস্কঃ

সাম্প্রতিক দিনগুলোতে ভারত-নিয়ন্ত্রিত কাশ্মিরে গণ-বিক্ষোভ আবারও জোরদার হয়ে উঠেছে। জম্মু-কাশ্মিরে চলমান পরিস্থিতিতে বনধের মেয়াদ ৫ আগস্ট পর্যন্ত বাড়ানো হয়েছে।

কাশ্মিরে আন্দোলনকারী নেতারা বনধের মেয়াদ বৃদ্ধি করায় এবং সেখানে কারফিউসহ অন্যান্য নিষেধাজ্ঞা বলবৎ থাকায় অচলাবস্থা অব্যাহত রয়েছে।  আজ (সোমবার) অনন্তনাগ জেলায় কাজিগান্দ এলাকায় শ্রীনগর-জম্মু মহাসড়কে সিআরপিএফ জওয়ান এবং বিক্ষোভকারীদের মধ্যে সংঘর্ষে এক ব্যক্তি গুলিবিদ্ধ হয়েছেন। চিকিৎসকরা বলছেন, মুস্তাক আহমেদ শাহ নামে ওই ব্যক্তি গুলিবিদ্ধ হওয়ার পাশাপাশি পেলেটগানের ছররা গুলিতে মারাত্মকভাবে আহত হয়েছেন। সংঘর্ষের ঘটনায় ৩ সিআরপিএফ জওয়ানও আহত হয়েছেন। আহতদের সকলকে হাসপাতালে চিকিৎসার জন্য ভর্তি করা হয়েছে।  রাজ্যটিতে কারফিউ এবং বনধ এবং অন্যান্য নিষেধাজ্ঞা আজ (সোমবার) ২৪তম দিনে পৌঁছেছে।

ভারতের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী রাজনাথ সিং কাশ্মিরের সাম্প্রতিক অশান্তির জন্য মূলত পাকিস্তানই দায়ী বলে মন্তব্য করেছেন। কাশ্মিরের ব্যাপারে পাকিস্তান দায়িত্বশীল ভূমিকা পালন করছে না বলেও তিনি অভিযোগ করেছেন। নয়াদিল্লি ভারত-নিয়ন্ত্রিত কাশ্মিরে আগের চেয়েও বেশি সংযত আচরণ করতে এবং গণ-বিক্ষোভ ঠেকাতে প্রাণঘাতী নয়-এমন অস্ত্র ব্যবহার করতে ভারতীয় নিরাপত্তা বাহিনীকে নির্দেশ দিয়েছে বলে তিনি জানান।

ওদিকে পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রীর পররাষ্ট্র বিষয়ক উপদেষ্টা সারতাজ আজিজ ভারতের অভিযোগগুলো নাকচ করে দিয়ে জাতিসংঘের মহাসচিব, নিরাপত্তা পরিষদ-প্রধান, ইসলামী সহযোগিতা সংস্থা ও জাতিসংঘ মানবাধিকার কমিশনের কাছে চিঠি পাঠিয়েছেন। তিনি তার ভাষায় কাশ্মিরিদের ওপর ভারতীয় সেনাদের গণহত্যা ঠেকানোর দাবি জানিয়েছেন ওই চিঠিতে। সারতাজ আজিজ লিখেছেন, ভারতীয় সেনারা কাশ্মিরে মানবাধিকার লঙ্ঘন করছে এবং এ বিষয়ে বিশ্ব-সমাজের নীরব থাকা উচিত হবে না।   কাশ্মিরি নানা দল ও গোষ্ঠীও প্রতিবাদীদের সঙ্গে সীমান্তের বাইরের সম্পর্ক থাকার ভারতীয় অভিযোগের নিন্দা জানিয়ে বলেছে, ভারত-নিয়ন্ত্রিত কাশ্মিরের মজলুম জনগণের অধিকার আদায় না হওয়া পর্যন্ত সেখানে ধর্মঘট ও প্রতিবাদ অব্যাহত থাকবে।