এমন এক সময় যখন প্রতি কদমে ১ বছর নফল নামাজ ও রোজার নেকী হয় !


❏ সোমবার, আগস্ট ১৫, ২০১৬ ইসলাম

ইসলাম ডেস্কঃ আল্লাহ তাআলা আমাদেরকে অনেক যত্ন করে সৃষ্টি করেছেন। আল্লাহ তাআলার মত করে আমাদেরকে আর কেউ ভালোবাসেন না। আর ভালোবাসতে পারেনও না। আর আল্লাহ তাআলা আমাদের জন্য প্রস্তুত করে রেখেছেন জান্নাত। যাহার তলদেশে দিয়ে নহর প্রবাহিত করে দিয়েছেন। আর আল্লাহ তাআলার পরেই আমাদেরকে অত্যধিক ভালোবাসেন আমাদের প্রাণপ্রিয় রাসূল (সাঃ)। রাসূল (সাঃ)সব সময় চিন্তা করতেন কিভাবে আমরা নাযাত পেতে পারি, কিভাবে আমরা দুনিয়া ও আখিরাতে শান্তি পেতে পারি। তিনি আজীবন আমাদেরকে শিখিয়ে গেছেন কিভাবে আমরা অল্প পরিশ্রমে অধিক লাভবান হতে পারি। এরই ধারাবাহিকতায় তিনি আমাদেরকে শিখিয়ে গিয়েছেন ছোট্ট একটি আমল । যে আমলটি করার ফজিলত অপরিসীম। আসুন আজ থেকে আমরা চেষ্টা করি ছোট্ট এই আমলটি সব সময় করার। আর অর্জন করি দুনিয়া ও আখিরাতের সফলতা।

nekiনবী করীম (সাঃ) ফরমান, যে ব্যক্তি জুমার দিনঃ

১। ভালোভাবে জামা কাপড় ধুইবে।

২। উত্তম রূপে গোসল করবে।

৩। সবার আগে মসজিদে যাবে।

৪। পায়ে হেঁটে যাবে।

৫। ইমামের কাছাকাছি বসবে।

৬। মনযোগ সহকারে খুৎবাহ শুন।

৭। কোন অপ্রাসঙ্গিক কথাবার্তা বলবে না।

“জুমার দিন এই ৭টি বিষয়ের উপর আমলকারীদের আল্লাহ তা’আলা তার প্রতি কদমের বিনিময়ে ১ হাজার নফল নামাজ ও ১ বছরের নফল রোজার ছাওয়াব দান করবেন”।

(সূত্রঃ তিরমজী, আবূ দাউদ, ইবনে মাজা, মিশকাত)