🕓 সংবাদ শিরোনাম
  • আজ মঙ্গলবার, ১৫ অগ্রহায়ণ, ১৪২৮ ৷ ৩০ নভেম্বর, ২০২১ ৷

লেডি গোডিভার উপকথা (এক ধর্মপরায়ন নারী যে কারনে নগ্ন হয়েছিলেন!)


❏ সোমবার, আগস্ট ১৫, ২০১৬ চিত্র বিচিত্র

লেডি গোডিভা
[উইকিপিডিয়া থেকে সংক্ষেপে অনুবাদ] ইসতিয়াক আহমেদ, লাইফস্টাইল কন্ট্রিবিউটার, সময়ের কণ্ঠস্বর। লেডি গোডিভার (১০১০-১০৬৭) উপকথা প্রথম শোনা যায় ১৩ শতাব্দীতে। একাদশ শতকে ইংল্যান্ডের কভেন্ট্রি নগরীতে তার বাস ছিল। শিল্প সংস্কৃতির প্রতি বিশেষ অনুরক্ত ছিলেন তিনি। লেডি গোডিভার স্বামীর নাম ছিল লিওফ্রিক। তিনি ছিলেন কভেন্ট্রি শহরের লর্ড। লর্ড লিওফ্রিক তার শহরের বাসিন্দাদের উপর অত্যধিক কর আরোপ করেছিলেন। ফলে শহরের অধিকাংশ বাসিন্দাদের আর্থিক অবস্থা বেশ খারাপ ছিল। এই ব্যাপারটা লেডি গোডিফার খুব খারাপ লাগত।

তিনি চাইতেন শহরের বাসিন্দারা সবাই স্বচ্ছল হবে, তারা গান গাইবে, ছবি আকবে। সব মিলিয়ে তার কল্পনায় ছিল অভিজাত স্বচ্ছল শৈল্পিক এক নগরী। তাই গোডিভা তার স্বামীকে অনুরোধ করেন এই অত্যধিক কর থেকে বাসিন্দাদের মুক্তি দিতে। লর্ড লিওফ্রিক এই অনুরোধ প্রত্যাখ্যান করেন। কিন্ত গোডিভা বারবার একই অনুরোধ করতেই থাকেন।

এক সময় লর্ড লিওফ্রিক কর মওকুফ করতে রাজি হন। কিন্ত তার জন্য একটা শর্ত দেন। লেডি গোডিভাকে নগ্ন হয়ে ঘোড়ার পিঠে চড়ে কভেন্ট্রি শহরের রাস্তায় ঘুরতে হবে। লেডি গোডিফা ছিলেন ধর্মপরায়ণা মহিলা। তিনি এরকম কাজ কিভাবে করবেন!!! বিস্মিতা গোডিভা তার স্বামীকে শর্ত তুলে নিতে অনুরোধ করেন। কিন্ত লিওফ্রিক অটল। শেষ পর্যন্ত স্থির হয়, লেডি গোডিভা যখন শহরের রাস্তায় নগ্ন হয়ে অশ্বারোহণ করবেন তখন শহরের প্রতিটি বাড়ির দরজা জানালা বন্ধ থাকবে এবং তার চুল দিয়ে দেহের নগ্নতাকে আড়াল করবেন। উল্লেখ্য লেডি গোডিফার অনেক লম্বা চুল ছিল। এঘটনা থেকেই জন্ম নেয় পিটার এন্ড গর্ডনের বিখ্যাত গানের লাইন,
“Her long blonde hair
Falling down across her arms
Hiding all the lady’s charms”
অবশেষে শহরের বাসিন্দাদের কাঁধ থেকে করের বোঝা নামানোর জন্য ঘোড়ায় চড়ে কভেন্ট্রি শহরের রাস্তায়-রাস্তায় নগ্ন হয়ে ঘুরলেন লেডি গোডিভা। শহরের প্রতিটি বাড়ির দরজা জানালা বন্ধ ছিল। কেউ দেখেনি তাকে। শুধু একজন ছাড়া। সেই একজন হল টম। পেশায় দর্জি। দরজার ছিদ্র দিয়ে আড়ালে দাড়িয়ে নগ্ন গোডিভাকে দেখেছিল টম। আর এই ঘটনা থেকেই ” Peeping Tom” কথাটার উৎপত্তি।
এরপর লর্ড লিওফ্রিক তার কথা রাখেন। শহরের বাসিন্দারা করের বোঝা থেকে মুক্তি পায়।

লেডি গোডিভাকে নিয়ে অনেক চিত্রকর্ম এবং ভাস্কর্যও তৈরি হয়েছে।