🕓 সংবাদ শিরোনাম
  • আজ মঙ্গলবার, ১৫ অগ্রহায়ণ, ১৪২৮ ৷ ৩০ নভেম্বর, ২০২১ ৷

যে আউটটি নিয়ে আলোচনা ও সমালোচনা চলছে ক্রিকেট বিশ্বে ! (ভিডিও)


❏ মঙ্গলবার, আগস্ট ১৬, ২০১৬ খেলা, স্পট লাইট

স্পোর্টস আপডেট ডেস্ক – অনেকেই বলছে আউটটি ক্রিকেটের স্পিরিট পরিপন্থি। কেউ আবার বলছে তাদের দেখা সবচেয়ে ধূর্ত আউট। পিটার নেভিল চালাকি করে আউট করেছেন। কারো মতে পিটার নেভিল সেটাই করেছেন যেটা একজন উইকেটরক্ষকের করা উচিত।

তিনি খুবই সুকৌশলে আউট করেছেন শ্রীলঙ্কার ব্যাটসম্যান দিমুথ করুনারত্নকে। যেটা নিয়ে রীতিমতো আলোচনা ও সমালোচনা চলছে ক্রিকেট বিশ্বে।

শ্রীলঙ্কা-অস্ট্রেলিয়ার মধ্যকার তৃতীয় টেস্টের চতুর্থ দিনের ঘটনা। শ্রীলঙ্কার দ্বিতীয় ইনিংসে ১৩তম ওভার করতে আসেন ক্রিস লায়ন। তার ওভারের তৃতীয় বলটি শর্ট লেন্থের দেন। অফব্রেক করে বলটি চলে যায় অস্ট্রেলিয়ার উইকেটরক্ষক পিটার নেভিলের কাছে।

নেভিল বলটি ধরে সুযোগের অপেক্ষায় থাকেন। করুনারত্নে যখন নিজের স্বাভাবিক অবস্থায় ফিরতে পেছনের পা উঠালেন। সঙ্গে সঙ্গে নেভিল স্ট্যাম্প ভেঙে দেন। চোখের পলকের মধ্যে মাত্র এক সেকেন্ডে ঘটে যায় ঘটনাটি।

peter-nevill-stumping

বোলার নাথান লায়ন অবশ্য কিছু বুঝে উঠতে পারেননি। কিন্তু নেভিল যখন আউটের আবেদন করেন তখন লায়ন হাসতে হাসতে বলটি আম্পায়ারের কাছে জমা দেন। ভিডিও রিপ্লে দেখে আম্পায়ার নিশ্চিত হন দিমুথ করুনারত্নে আউট।

নেভিল বলটি ধরে অপেক্ষায় ছিলেন কখন করুনারত্নে পেছনের পা তোলেন (সামনের পা-টি ছিল বাইরে)। পা তোলার সঙ্গে সঙ্গে বেল ফেলে দেন নেভিল। ক্রিকেটের নিয়মানুযায়ী দিমুথ করুনারত্নে আউট।

এভাবে আউট হওয়ার পর করুনারতেœ অবশ্য কোনো প্রতিক্রীয়া দেখাননি। এমন কী তিনি সফরকারী দলের কোনো খেলোয়াড়ের সঙ্গে বাদানুবাদেও জড়াননি। আম্পায়ারের সিদ্ধান্ত মেনে নিয়ে মাঠ ছাড়েন তিনি।

এদিকে পিটার নেভিলের সমালোচনা করা হলেও তিনি সঠিক কাজটিই করেছেন। যেহেতু আম্পায়ার তখনও বলটিকে ডেড ঘোষণা করেননি তাই নেভিল সুযোগটি লুফে নিয়েছে।

অবশ্য ক্রিকেটে এমন আউট এটাই প্রথম নয়। ১৯৯৭ সালে সাবেক ইংলিশ উইকেটরক্ষক আলেক স্টেওয়ার্ড শারজাতে ওয়েস্ট ইন্ডিজের কিংবদন্তি ব্যাটসম্যান ব্রায়ান লারাকে আউট করেছিলেন ঠিক একই কায়দায়।

ভিডিওটি দেখতে এখানে ক্লিক করুণ