🕓 সংবাদ শিরোনাম

শিশুকে ডায়াবিটিস থেকে দূরে রাখতে কী কী সতর্কতা অবলম্বন করবেনদক্ষিণ-পূর্ব এশিয়াকে তৈরি থাকার বার্তা দিল ”হু”বুড়িগঙ্গায় ’সাকার ফিশ’র দখলে, হুমকিতে দেশীয় মাছরোহিঙ্গা শরণার্থী শিবির থেকে ধারালো অস্ত্রসহ আটক-৫করতোয়ার তীরে নিথর পড়ে ছিলো মস্তকহীন নবজাতক!গাজীপুরে দুই শিশুকে ‘হত্যার’ পর ফ্যানে ঝুলে আত্মহত্যার চেষ্টা মা’য়ের!ঘূর্ণিঝড় জাওয়াদ: জাহাজ চলাচল বন্ধ; সহস্রাধিক পর্যটক আটকা সেন্টমার্টিনেআখেরী মোনাজাতের মধ্য দিয়ে শেষ হলো নীলফামারীর তিনদিন ব্যাপী ইজতেমাবঙ্গবন্ধুর শাসনব্যবস্থা নিয়ে গবেষণা করতে মুক্তিযুদ্ধ মন্ত্রীর আহ্বানভোটে হেরে ক্ষোভ মেটাতে রাস্তায় বেড়া দিলেন প্রার্থী, ভোগান্তিতে পুরো গ্রাম!

  • আজ রবিবার, ২০ অগ্রহায়ণ, ১৪২৮ ৷ ৫ ডিসেম্বর, ২০২১ ৷

নীলফামারীতে একই সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ে দুই জন প্রধান শিক্ষক !


❏ বুধবার, আগস্ট ১৭, ২০১৬ দেশের খবর, রংপুর
28643ae

ছবি- প্রতিকী


মোঃ মহিবুল্লাহ্ আকাশ, স্টাফ করেসপন্ডেন্ট নীলফামারীর ডোমার উপজেলার শালকী সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ে দুই প্রধান শিক্ষকের দ্বন্দ্বে লেখাপড়ার পরিবেশ চরমভাবে ব্যাহত হচ্ছে। দু’শিক্ষকেরই চলছে পাল্টাপাল্টি অভিযোগ।

সরেজমিনে গিয়ে জানা গেছে, ঐ বিদ্যালয়ে দায়িত্বে থাকা প্রধান শিক্ষক ফারুক হোসেন ২০১৫ সালের ডিসেম্বরে অবসর গ্রহন করেন। এরই প্রেক্ষিতে ম্যানেজিং কমিটি বিদ্যালয়ের অপর শিক্ষিকা তৃপ্তি রানী অধিকারীকে ভারপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষকের দায়িত্ব দেন। এদিকে অপর শিক্ষিকা কল্যানী অধিকারী উপজেলা শিক্ষা অফিসারের নিকট ভারপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষক নিয়োগের আবেদন করলে শিক্ষা অফিসার শাহজাহান মন্ডল জেষ্ঠ্যতার ভিত্তিতে কল্যানী অধিকারীকে ভারপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষক হিসেবে দায়িত্ব দিয়ে পত্র প্রেরন করে। এতে বাঁধ সাধে তৃপ্তি রানী অধিকারী। তিনি তার দায়িত্ব হস্তান্তর না করে নিজেই প্রধান শিক্ষকের দায়িত্ব পালন করে আসছেন। এমতাবস্থায় গত ১৫ আগস্ট জাতীয় শোক দিবসে জাতীয় পতাকা উত্তোলনকে কেন্দ্র করে উভয় পক্ষে সৃষ্টি হয় উত্তেজনা। উত্তোলিত পতাকার ছবি তোলাকে কেন্দ্র করে তৃপ্তি রানী অধিকারী ও অপর শিক্ষক আরিফ আহসানের মধ্যে বাক-বিতন্ডার সৃষ্টি হয়। এক পর্যায়ে আরিফ আহসানের মোবাইল ফোন কেড়ে নেয় তৃপ্তি রানী অধিকারী বলে অভিযোগ করেন শিক্ষক আরিফ আহসান। এ ঘটনায় শিক্ষক আরিফ আহসান ডোমার থানাসহ উপজেলা শিক্ষা অফিসারের নিকট লিখিত অভিযোগ দায়ের করে। অভিযোগের প্রেক্ষিতে ঐ দিনই ডোমার থানার এস আই খাদেমুল ইসলাম ঘটনা তদন্তে স্কুলে যায়।

পরদিন তৃপ্তি রানী অধিকারী অপর শিক্ষক আরিফ আহসানের বিরুদ্ধে লিখিত অভিযোগ করেন। এ ব্যাপারে তৃপ্তি রানী অধিকারীর কাছে জানতে চাইলে তিনি জানান, অফিসের দেয়া আদেশ আমি হাতে পাইনি।  বর্তমানে শিক্ষকদের এই দ্বন্দে স্কুলের লেখাপড়ার পরিবেশ নষ্ট হচ্ছে।

এ ব্যাপারে উপজেলা শিক্ষা অফিসার শাহজাহান মন্ডল জানান, দুটি অভিযোগ পত্রই জেলা শিক্ষা কর্মকর্তার কার্যালয়ে পাঠানো হবে। সেখান থেকে যে সিদ্ধান্ত দেয়া হবে তারই আলোকে প্রয়োজনীও ব্যবস্থা নেয়া হবে।

প্রসঙ্গত, গত ১৫ আগস্ট একই উপজেলার চিলাহাটি মার্চেন্টস্ সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ে জাতীয় পতাকার অবমাননার দুই দিন অতিবাহিত হলেও ওই প্রতিষ্ঠান প্রধানের বিরুদ্ধে কোন ব্যবস্থা গ্রহণ করেননি উপজেলা শিক্ষা কর্মকর্তা শাহজাহান মন্ডল।

সেই সংবাদটি পড়ুন-

অবমাননাঃ নীলফামারীতে একই বাশেঁ জাতীয় পতাকার উপরে কালো পতাকা !