🕓 সংবাদ শিরোনাম

শিশুকে ডায়াবিটিস থেকে দূরে রাখতে কী কী সতর্কতা অবলম্বন করবেনদক্ষিণ-পূর্ব এশিয়াকে তৈরি থাকার বার্তা দিল ”হু”বুড়িগঙ্গায় ’সাকার ফিশ’র দখলে, হুমকিতে দেশীয় মাছরোহিঙ্গা শরণার্থী শিবির থেকে ধারালো অস্ত্রসহ আটক-৫করতোয়ার তীরে নিথর পড়ে ছিলো মস্তকহীন নবজাতক!গাজীপুরে দুই শিশুকে ‘হত্যার’ পর ফ্যানে ঝুলে আত্মহত্যার চেষ্টা মা’য়ের!ঘূর্ণিঝড় জাওয়াদ: জাহাজ চলাচল বন্ধ; সহস্রাধিক পর্যটক আটকা সেন্টমার্টিনেআখেরী মোনাজাতের মধ্য দিয়ে শেষ হলো নীলফামারীর তিনদিন ব্যাপী ইজতেমাবঙ্গবন্ধুর শাসনব্যবস্থা নিয়ে গবেষণা করতে মুক্তিযুদ্ধ মন্ত্রীর আহ্বানভোটে হেরে ক্ষোভ মেটাতে রাস্তায় বেড়া দিলেন প্রার্থী, ভোগান্তিতে পুরো গ্রাম!

  • আজ রবিবার, ২০ অগ্রহায়ণ, ১৪২৮ ৷ ৫ ডিসেম্বর, ২০২১ ৷

‘বঙ্গবন্ধুই ১৯৭২ সালে এ দেশে পর্যটন করপোরেশন গড়ে তোলেন’-পর্যটনমন্ত্রী


❏ বুধবার, আগস্ট ১৭, ২০১৬ জাতীয়

অন্তু দাস হৃদয়, টাঙ্গাইল প্রতিনিধি :বেসামরিক বিমান পরিবহন ও পর্যটনমন্ত্রী রাশেদ খান মেনন বলেছেন, বাংলাদেশের সৌন্দর্য, সংস্কৃতি ও ঐতিহ্যকে দেশ-বিদেশের মানুষের কাছে তুলে ধরতে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানই ১৯৭২ সালে এ দেশে পর্যটন করপোরেশন গড়ে তোলেন।

তিনি কক্সবাজারে ঝাউবন তৈরি করে সেখানে আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্র গড়ে তুলতে চেয়েছিলেন।

আজ বুধবার (১৭ আগষ্ট) বিকেলে সাংস্কৃতিক সংগঠন সাধনা ও যাত্রিকের আয়োজনে টাঙ্গাইলের কালিহাতী উপজেলার আকুয়া গ্রামে আবহমান বাংলার জনপ্রিয় পালা শাওনের ডালা (শ্রাবণ সংক্রান্তি) অনুষ্ঠানে তিনি এসব কথা বলেন।

মন্ত্রী বলেন, আমাদের দেশের লোকজ সংস্কৃতি যদি বিদেশের মানুষের কাছে তুলে ধরা যায় তাহলে এদেশে অনেক বিদেশি পর্যটক আসবে, দেশের অর্থনৈতিক উন্নয়ন সাধিত হবে।

তিনি আরো বলেন, আমাদের অনেক পুরানো ঐতিহ্য, সংস্কৃতি, মুর্শিদি, ভাটিয়ালি, জারি-সারি গান যা আমরা দুর্ভাগ্যক্রমে হারাতে বসেছি। পৃথিবীর অন্য কোনো দেশে তাদের নিজস্ব সংস্কৃতিকে হারাতে দেয় না। আমাদের এ সংস্কৃতি যাতে ধরে রাখা যায় এজন্য আমরা সংস্কৃতি মন্ত্রণালয়ের সহযোগিতায় কাজ করে যাচ্ছি।

mujibএর আগে মন্ত্রী নৌকাযোগে কালিহাতী আকুয়া গ্রামে যান। সেখানে তিনি বেহুলা-লখিন্দরের পালা উপভোগ করেন।

এ সময় অন্যান্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন, দৈনিক ইত্তেফাকের ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক তাসমিমা হোসেন, সংস্কৃতি মন্ত্রণালয়ের সচিব বেগম আকতারি মমতাজ, বাংলাদেশ পর্যটন বিভাগের প্রধান নির্বাহী সম্পাদক আক্তারুজ্জামান কবীর, টাঙ্গাইলের অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) আনোয়ার হোসেন প্রমুখ।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন, টাঙ্গাইলের সিনিয়র তথ্য অফিসার কাজী গোলাম আহাদ, কালিহাতী উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) শঙ্কর কুমার বিশ্বাস, এলেঙ্গা পৌরসভার প্যানেল মেয়র আব্দুল বারেক প্রমুখ।