🕓 সংবাদ শিরোনাম

বাড়িতে লুকিয়ে রাখা ৪৭ ভরি স্বর্ণসহ তিন রোহিঙ্গা নারী-পুরুষ আটকফিরে দেখা; ইতিহাসে আজকে এই দিনের উল্লেখযোগ্য ঘটনা প্রবাহশীতে অপরূপ লাল শাপলার ডিবির হাওরময়মনসিংহ শহরের ভেতরেই রেলক্রসিং: প্রতিদিন ৮ ঘন্টা যানজটবিজয়ের ৫০ বছরে ওয়ালটন ল্যাপটপ ও এক্সেসরিজে ৫০% পর্যন্ত ছাড়মাইকিং করে ২গরু জবাই করল পরাজিত প্রার্থী, দাওয়াতে এলো না কেউ!সুনামগঞ্জে আফ্রিকা ফেরত প্রবাসীর বাড়িতে লাল পতাকাতদন্ত কর্মকর্তাসহ ৬৫ জনের সাক্ষ্য-জেরায় সাক্ষ্যপর্ব সমাপ্তবিকৃতমনা মাদ্রাসা শিক্ষকের লালসার শিকার অসহায় এক কিশোরের জবানবন্দী!বিদ্যুৎস্পৃষ্ট যুবককে বাঁচাতে গিয়ে মারা গেলেন গৃহবধূও

  • আজ বৃহস্পতিবার, ১৭ অগ্রহায়ণ, ১৪২৮ ৷ ২ ডিসেম্বর, ২০২১ ৷

রামপালে ১৩২০ মেগাওয়াট বিদ্যুৎ প্রকল্প : সমীক্ষা প্রতিবেদন প্রকাশ


❏ বৃহস্পতিবার, আগস্ট ১৮, ২০১৬ Breaking News, আলোচিত বাংলাদেশ, ফিচার

বাগেরহাট প্রতিনিধি – রামপালে ১৩২০ মেগাওয়াট মৈত্রী সুপার তাপ বিদ্যুৎ প্রকল্পের কয়লা পরিবহণে বনের জীববৈচিত্র্যের ক্ষতি হবে কি-না, দীর্ঘ সমীক্ষা শেষে সেই প্রতিবেদন প্রকাশ করা হয়েছে।

বাংলাদেশ-ভারত মৈত্রী পাওয়ার কোম্পানি লি. (বিআইএফপিসিএল)-এর ব্যবস্থাপনায় বৃহস্পতিবার দুপুরে মংলা বন্দর কর্তৃপক্ষের সম্মেলন কক্ষে সেন্টার ফর এনভায়রনমেন্টাল অ্যান্ড জিওগ্রাফিক ইনফরমেশন সার্ভিসেস (সিইজিআইএস) এ গবেষণা প্রতিবেদন প্রকাশ করে।

সমীক্ষা প্রতিবেদনে সুন্দরবনের মধ্যদিয়ে কয়লা পরিবহণের জন্য তিনটি নৌপথ ব্যবহার ও ১৩টি নির্দেশনা মেনে চলার সুপারিশ করা হয়েছে।

নৌপথ তিনটি হলো- পশুর নৌপথ : ফেয়ারওয়ে থেকে হিরণপয়েন্ট-আকরাম পয়েন্ট-হাড়বাড়িয়া-মোংলা হয়ে রামপাল। শেবসা নৌপথ : ফেয়ারওয়ে থেকে হিরণপয়েন্ট-আকরাম পয়েন্ট-চুনকুরি-চালনা হয়ে বিদ্যুৎকেন্দ্র। মোংলা-ঘাষিয়াখালী নৌপথ : ফেয়ারওয়েবয়া থেকে বলেশ্বর, ঘাষিয়াখালী-মোংলা-পশুর-মোংলা বন্দর হয়ে রামপাল তাপ বিদ্যুৎকেন্দ্র।

Bagerhat

তিনটি ধাপে এই সমীক্ষালব্ধ সুপারিশ বাস্তবায়ন করা হবে। পশুর নৌপথে কয়লা পরিবহণে ডলফিনের ক্ষতি হওয়ার পাশাপাশি জীববৈচিত্র্যেরও ক্ষতির আশংকা করা হয়েছে সমীক্ষা প্রতিবেদনে।

অনুষ্ঠানে সমীক্ষা রিপোর্ট উত্থাপন করেন বাংলাদেশ-ভারত মৈত্রী পাওয়ার কোম্পানি লি.-এর ম্যানেজিং ডিরেক্টর উজ্জল ভট্টাচার্য ও সেন্টার ফর এনভায়রনমেন্টাল অ্যান্ড জিওগ্রাফিক ইনফরমেশন সার্ভিসেসের ডিইডি মালেক খান।

এছাড়া অনুষ্ঠানে স্থানীয় সংসদ সদস্য তালুকদার আব্দুল খালেক ও বন্দর কর্তৃপক্ষের ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান মোস্তফা কামালসহ স্থানীয় প্রশাসনের কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।