🕓 সংবাদ শিরোনাম

দু’সপ্তাহের মধ্যেই শিশুদের কোভিড টিকাকরণ, সিদ্ধান্ত ইউরোপীয় ইউনিয়নেবাড়িতে লুকিয়ে রাখা ৪৭ ভরি স্বর্ণসহ তিন রোহিঙ্গা নারী-পুরুষ আটকফিরে দেখা; ইতিহাসে আজকে এই দিনের উল্লেখযোগ্য ঘটনা প্রবাহশীতে অপরূপ লাল শাপলার ডিবির হাওরময়মনসিংহ শহরের ভেতরেই রেলক্রসিং: প্রতিদিন ৮ ঘন্টা যানজটবিজয়ের ৫০ বছরে ওয়ালটন ল্যাপটপ ও এক্সেসরিজে ৫০% পর্যন্ত ছাড়মাইকিং করে ২গরু জবাই করল পরাজিত প্রার্থী, দাওয়াতে এলো না কেউ!সুনামগঞ্জে আফ্রিকা ফেরত প্রবাসীর বাড়িতে লাল পতাকাতদন্ত কর্মকর্তাসহ ৬৫ জনের সাক্ষ্য-জেরায় সাক্ষ্যপর্ব সমাপ্তবিকৃতমনা মাদ্রাসা শিক্ষকের লালসার শিকার অসহায় এক কিশোরের জবানবন্দী!

  • আজ বৃহস্পতিবার, ১৭ অগ্রহায়ণ, ১৪২৮ ৷ ২ ডিসেম্বর, ২০২১ ৷

সকালে খালি পেটে কি বেশি উপকারী? চা/কফি নাকি পানি!


❏ বৃহস্পতিবার, আগস্ট ১৮, ২০১৬ লাইফস্টাইল

চা/কফি বা পানি

নিশীতা মিতু, লাইফস্টাইল ফিচার এডিটর, সময়ের কণ্ঠস্বর। যদি জানতে চাই সকাল বেলা কি খেয়ে আপনার দিন শুরু হয়, তবে অনেকেই বলবেন এক কাপ চা বা কফি পান করে। চা বা কফি পান না করলে যেন আড়মোড়া ভাঙতেই চায়না। জানেন কি গবেষণা বলে, সকালে প্রথমেই চা/কফিতে চুমুক দেয়া আপনার দেহের ক্ষতির কারন হয়ে দাঁড়াতে পারে। বরং এক গ্লাস সাধারণ পানি আপনার জন্য বেশ উপকারী।

চলুন তবে জেনে নেওয়া যাক ঠিক কি কারনে সকালে ঘুম থেকে উঠার পর অন্তত এক গ্লাস পানি পান করা আপনার জন্য খুব দরকার আর ঠিক কেনই বা খালি পেটে চা/কফি পানের অভ্যাস ত্যাগ করা উচিত।

পানি দেহকে পানিশূন্যতা থেকে রক্ষা করেঃ সকালে আমরা যখন ঘুম থেকে উঠি তখন আমাদের দেহ থাকে প্রায় পানিশূন্য। কেননা, প্রায় ৬/৭ ঘন্টা আমরা পানি পান করা ব্যাতীত থাকি। সকালে ঘুম থেকে উঠে চা/কফি পান করলে তা দেহের মুত্রের বেগ বৃদ্ধি করে। কেননা এতে ক্যাফেইন নামক পদার্থ থাকে। এটি সারাদিন আপনার দেহের প্রয়োজনে পানির ব্যবহারে ব্যাঘাত ঘটিয়ে মুত্রের বেগ বৃদ্ধি করে। আপনি জেনে অবাক হবেন যে সকালে খালি পেটে চা/কফি পান করলে তা আপনার পানিশূন্য দেহের পানিশূন্যতা আরো বাড়িয়ে তোলে। তাই সকাল বেলা খালি পেটে এক গ্লাস পানি পান করা বেশ গুরুত্বপূর্ণ।

এসিডিটি সমস্যার সমাধানঃ পি এইচ লেভেল দিয়ে জানা যায় কোন পদার্থ বা দ্রব্য ক্ষার নাকি এসিড। সাধারণত পিএইচ এর মান ৭ এর নীচে হলে তাকে প্রকৃতিতে এসিড হিসেবে ধরা হয়। চায়ের পিএইচের মান ৬ যেখানে কফির মান ৫। অর্থাৎ, এগুলো এসিড। এই এসিড জাতীয় জিনিসগুলোই যখন আপনার খালি পেটে প্রবেশ করে তখন আপনার পাকস্থলী বেশ অনেকখানি হাইড্রোক্লোরিক এসিড ছড়িয়ে দেয়। যার ফলে দেহ অভ্যন্তরের বাড়তি গ্যাস্ট্রিক এসিড পেটের নিন্ম অংশে চলে যায়। আর ফলে, আপনার এসিডিটি সমস্যা আরো বাড়তে থাকে। অথচ, এক গ্লাস পানি ঠিক তার বিপরীত কাজ করে। অর্থাৎ নিয়মিত খালি পেটে পানি পান করার ফলে আপনি এসিডিটির সমস্যা থেকে ধীরে ধীরে মুক্তি পেতে পারেন।

পরিপাকক্রিয়া রাখে সচলঃ আমাদের দেহের প্রতিটা কাজ হয় খুব নিখুঁতভাবে। একটু এদিক সেদিক হলেই তা আমাদের দেহের ক্ষতির কারন হয়ে থাকে। আমাদের পরিপাকতন্ত্র সচল থাকে হাইড্রোক্লোরিক এসিডের পরিমাপের উপর। সকালে খালি পেটে আপনি চা/কফি পান করলে এই এসিডের পরিমাণ বৃদ্ধি পাবে এবং দেহের স্বাভাবিক ক্রিয়ায় ব্যাঘাত ঘটবে। ডাক্তাররা বলে থাকেন, দীর্ঘদিন সকালে খালি পেটে চা/কফি পান করার ফলে পেট গোলানো, পেটের অভ্যন্তরীন ঘা থেকে শুরু করে কোলন ক্যান্সারের মত ভয়াবহ রোগও হতে পারে। এর চেয়ে বরং এক গ্লাস পানি পান করুন যা আপনার পরিপাকতন্ত্রকে সঠিকভাবে কাজ করতে সহায়তা করবে।

আগামী সকাল থেকে তবে চা/কফি নয় বরং ঘুম থেকে উঠেই এক গ্লাস পানি পান করবেন।