🕓 সংবাদ শিরোনাম
  • আজ বৃহস্পতিবার, ২৪ অগ্রহায়ণ, ১৪২৮ ৷ ৯ ডিসেম্বর, ২০২১ ৷

নড়াইলের লোহাগড়ায় সিজার করতে গিয়ে গর্ভবতী মা ও শিশুর মৃত্যু


❏ বৃহস্পতিবার, আগস্ট ১৮, ২০১৬ খুলনা, দেশের খবর

সৈয়দ খায়রুল আলম, নড়াইল প্রতিনিধি: নড়াইলের লোহাগড়ায় ডাক্তারের ভুল চিকিৎসায় গর্ভবতী মায়ের মৃত্যু হয়েছে। ঘটনাটি ঘটেছে উপজেলার প্রাণ কেন্দ্র লক্ষীপাশা মা সার্জিক্যাল ক্লিনিকে। আবস্থার বেগতিক দেখে রোগি ফেলে চিকিৎসক পালিয়ে যান। স্বজনদের আহাজারিতে উত্তেজিত জনতা ক্লিনিক ঘেরাও করেন।norail-477dh

পরিবার সূত্রে জানা গেছে, বৃহস্পতিবার ১৮ আগস্ট সকালে উপজেলার কাশিপুর ইউপি’র শাহবাজপুর গ্রামের দিনমুজুর রাম গোপাল পালের স্ত্রী তিন সন্তানের জননী অঞ্জনা পাল (৪২) গর্ভবতী অবস্থায় সিজার হওয়ার জন্য লক্ষীপাশা মা সার্জিক্যাল ক্লিনিকে ভর্তি হন। লোহাগড়া মর্ডান ডায়াগনিষ্টিক সেন্টারের ডাক্তার ডেভিড তন্ময় বিশ্বাস দুপুরে ওই রোগির সিজার করা জন্য অপারেশন থিয়েটারে নিয়ে এনেসথেশিয়া ইনজেকশন পুশ করে শরীরে অস্ত্রপচার করলে তার দেহ থেকে কালো রক্ত বের হয়ে মৃত্যু বরণ করে।

এ সময় মায়ের গর্ভে থাকা শিশুরও মারা যায়। অবস্থা বেগতিক দেখে ডাক্তার ও ক্লিনিক মালিক জাহাঙ্গীর শেখ দ্রুত অপারেশ থিয়েটারে রোগি ফেলে পালিয়ে যায়। এ খবর ছড়িয়ে পড়লে নিহতের আত্নীয় স্বজন ও উত্তেজিত জনতা ক্লিনিক ঘেরাও করে।

নিহত অঞ্জনা পালের বোন নমিতা সাংবাদিকদের বলেন, মেয়াদ উত্তীর্ণ এনেসথেশিয়া ইনজেকশন পুশ করার কারণেই আমার বোনের মৃত্যু হয়েছে। ডাক্তার ও ক্লিনিক মালিক দীর্ঘ ১ ঘন্টা অপারেশ থিয়েটারে রোগি রেখে আমাদের মিথ্যা আশ্বাস দিয়ে অহেতুক সময় ক্ষেপন করেন বলে তিনি অভিযোগ করেন।