🕓 সংবাদ শিরোনাম
  • আজ বৃহস্পতিবার, ২৪ অগ্রহায়ণ, ১৪২৮ ৷ ৯ ডিসেম্বর, ২০২১ ৷

‘প্রথম রাষ্ট্রপতি কথার প্রমাণ দিতে পারলে আমি রাজনীতি ছেড়ে দেব’


❏ বৃহস্পতিবার, আগস্ট ১৮, ২০১৬ Breaking News, আলোচিত বাংলাদেশ

সময়ের কণ্ঠস্বর ডেস্ক- আওয়ামী লীগের সংসদ সদস্য মেজর জেনারেল (অব.) সুবিদ আলী ভূঁইয়া চ্যালেঞ্জ ছুড়ে দিয়ে বলেছেন, জিয়াউর রহমানকে প্রথম রাষ্ট্রপতি বলেছি এ কথার প্রমাণ দিতে পারলে আমি রাজনীতি ছেড়ে দেব।10a92199aaf09448b3b2d65fd7a10d68-57b5b154658c4বৃহস্পতিবার বিকেলে জাতীয় সংসদের মিডিয়া সেন্টারে জরুরি সংবাদ সম্মেলনে কুমিল্লার দাউদকান্দি (কুমিল্লা-১) আসনের এই সংসদ সদস্য এ কথা বলেন।

সুবিদ আলী বলেন, আমি জিয়াউর রহমানকে প্রথম রাষ্ট্রপতি দাবি করিনি। আমি জিয়াউর রহমানকে প্রথম রাষ্ট্রপতি দাবি করেছি, এমন কথা কেউ প্রমাণ করতে পারলে রাজনীতি ছেড়ে দেব।

তিনি আরও বলেন, বুধবার জাতীয় সংসদ ভবনে অনুষ্ঠিত সরকারি প্রতিষ্ঠান সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির বৈঠক নিয়ে আমাকে জড়িয়ে যে সংবাদ প্রকাশিত হয়েছে, তা মিথ্যা, বানোয়াট ও উদ্দেশ্যপ্রণোদিত।

ওই বক্তেব্যর নিন্দা জানিয়ে সুবিদ আলী বলেন, বুধবার বৈঠকে আলোচনার একপর্যায়ে আমি বলি, মেজর জিয়া বেতার ভাষণে প্রথমে ভুল করে নিজেকে হেড অব দ্য স্টেট ঘোষণা দিলেও পরে তিনি (জিয়া) ঘোষণায় বলেছেন, অন বিহাফ অব আওয়ার গ্রেট লিডার বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান।

গণমাধ‌্যমে তাকে নিয়ে ‘উদ্দেশ‌্যপ্রণোদিত’, ‘মিথ্যা’ ও ‘বানোয়াট’ খবর প্রকাশিত হয়েছে বলে দাবি করেন সুবিদ আলী। তিনি বলেন আমি দ্ব্যর্থহীন কণ্ঠে বলতে চাই, আমি জিয়াউর রহমানকে ‘প্রথম রাষ্ট্রপতি’ কখনও বলিনি। আমার বক্তব্যের কোনও পর্যায়েই এই ধরনের উদ্ধৃতি ছিল না।

সুবিদ আলী বলেন, এই বিতর্কের মাধ্যমে আমাকে এবং আমার দল বাংলাদেশ আওয়ামী লীগকে হেয় প্রতিপন্ন ও বিতর্কিত করা হয়েছে যার মাধ্যমে বিএনপি ও জামায়াতকে মিথ্যা ইসু তৈরি করে দেওয়া হয়েছে।

উল্লেখ, বুধবার সরকারি প্রতিষ্ঠান কমিটির বৈঠকে বিএনপির প্রতিষ্ঠাতা জিয়াউর রহমানকে বাংলাদেশের ‘প্রথম রাষ্ট্রপতি’ দাবি করেন সুবিদ আলী। ওই বৈঠকে উপস্থিত একাধিক সদস্যের বরাত দিয়ে গণমাধ্যমে সংবাদ প্রকাশিত হয়।