• আজ বুধবার, ১৬ অগ্রহায়ণ, ১৪২৮ ৷ ১ ডিসেম্বর, ২০২১ ৷

চুলের যত্নে দইয়ের যত ব্যবহার


❏ শুক্রবার, আগস্ট ১৯, ২০১৬ লাইফস্টাইল

দইয়ের ব্যবহার

আফসানা নিশি, লাইফস্টাইল কন্ট্রিবিউটার, সময়ের কণ্ঠস্বর। চুলের যত্নে দই অনেক উপকারি। এটি প্রাকৃতিক ভাবে ত্বকে পুষ্টি দেয় ও চুল সুন্দর করে। দইয়ে আছে প্রচুর প্রটিন যা চুলের জন্য অনেক উপকারি। দইয়ে আছে জিংক ও ল্যাকটিক এসিড যা চুলের যত্নে কাজ করে। দই চুল কোমল করে ও পরিষ্কার করে।দইয়ের ব্যবহারে চুলে খুসকি হয় না। এটি চুলের শুষ্ক ও রুক্ষ ভাব দূর করে চুল করে নরম ও ঝরঝরে। দেখে নিন দইয়ের কিছু হেয়ার প্যাক।

১।দই ও ডিম: ১।ডিমের সাদা অংশ ১ টি ২।৬ টেবিল চামচ দই ব্যবহার বিধি:ডিম ভেঙ্গে সাদা অংশ আলাদা করে নিন। ভাল করে বিট করুন যেনো সাদা ফেনা হয়ে যায়। বিট করা হলে এতে যোগ করুন টক দই। চুলে লাগিয়ে ১৫ মিনিট অপেক্ষা করুন। শ্যাম্পু করে ধুয়ে ফেলুন। এটি চুল সিল্কি করে,চুল ঝরঝরে ও উজ্জল করে।

২।দই: গোসলের আগে শুধু টক দই ভাল করে ফেটিয়ে চুলে লাগান।১০ মিনিট রেখে ধুয়ে ফেলুন।এটি চুলে মস্চারাইজ এর কাজ করবে। ৩।দই ও লেবু: ১।লেবুর রস ২ টেবিল চামচ ২।টক দই ১ কাপ ব্যবহার বিধি:২ টেবিল চামচ লেবুর রস ও ১ কাপ টকদই ভাল করে মিশিয়ে নিন।চুলে লাগিয়ে ৩০ মিনিট রেখে দিন।শ্যাম্পু করে গোসল করে ফেলুন।এটি চুল উজ্জল করবে।

৪।দই ও মেথি: ১।১ কাপ টক দই ২।৩ টেবিল চামচ মেথি গুড়ো ব্যবহার বিধি:দই ভাল করে ফেটিয়ে নিন।এতে মেথিগুড়ো যোগ করুন।ভাল করে মিশিয়ে চুলে লাগান।৩০-৪৫ মিনিট রেখে শ্যাম্পু করে ফেলুন।এটি চুল ঝরঝরে করবে ও চুল উজ্জল দেখাবে। চুল থেকে মেথিগুড়ো ভাল করে ধুয়ে ফেলুন।কারণ মেথিগুড়ো চুলে থেকে গেলে চুলে খুসকি হবে।কিছু মেথিগুড়ো চুলে থেকে যায়।চুল শুকিয়ে গেলে চিকন দাঁতের চিরুনি দিয়ে সেগুলো বের করে ফেলুন।

৫।দই ও অ্যালোভেরা: ১।টক দই ২।নারিকেল তেল ৩।অ্যালোভেরা জেল ৩ টি উপাদান ভাল করে মিশিয়ে প্যাক তৈরি করে নিন। এই প্যাকটি চুলে ব্যবহার করুন। ১৫ মিনিট পর শ্যাম্পু করে ফেলুন। প্রাণহীন, নির্জীব, রুক্ষ চুলকে নরম, কোমল, এবং ময়োশ্চারাইজ করে তুলবে এই প্যাকটি। নিয়মিত ব্যবহারে এই প্যাকটি চুলের রুক্ষতা দ্রুত দূর করে দেবে।

৬।দই ও বাদাম তেল: ১।টকদই ২। বাদাম তেল ৩। একটি ডিম ৩ টি উপকরণ ভাল করে মিশিয়ে প্যাক তৈরি করে নিন। এই প্যাকটি চুলের গোড়া থেকে সম্পূর্ণ চুলে ভাল করে লাগিয়ে রাখুন। ৩০ মিনিট পর চুল শ্যাম্পু করে ফেলুন। ডিমের পুষ্টি এবং তেলে চুলের রুক্ষতা দূর করে দিয়ে চুল স্লিকি করে তোলে।

পার্লারে গিয়ে সময় ও টাকা নষ্ট না করে ঘরে চুলের যত্ন করুন। এতে খরচ অনেক কম হবে ও পার্লার ট্রিটমেন্ট এর থেকে ভাল ফল পাবেন। পার্লারে সব সময় ক্যামিকেল জাতীয় পণ্য ব্যবহার করে যা চুলের জন্য একেবারে ভাল না। প্রাথমিক ভাবে সেটা ভাল মনে হলেও পরবর্তীতে তা অনেক ক্ষতি করে। কিন্তু ঘরে তৈরি প্রাকৃতিক হেয়ার প্যাক আপনার চুলে তাৎক্ষনাত কোন পরিবর্তন না দিলেও কিছুদিন ব্যবহারে অনেক ভাল ফল পাবেন যা কোন প্রকার ক্ষতি করবে না।