• আজ বুধবার, ১৬ অগ্রহায়ণ, ১৪২৮ ৷ ১ ডিসেম্বর, ২০২১ ৷

সুন্দরবন রক্ষায় সরকারকে জাতীয় কমিটির আল্টিমেটাম


❏ রবিবার, আগস্ট ২১, ২০১৬ আলোচিত বাংলাদেশ

সময়ের কণ্ঠস্বর ডেস্ক –   সরকারকে আল্টিমেটাম দিয়ে সুন্দরবন রক্ষায় সাত দিনের কর্মসূচি ঘোষণা করেছে তেল গ্যাস খনিজসম্পদ ও বিদুৎ বন্দর রক্ষা জাতীয় কমিটি।

ঘোষিত কর্মসূচিতে ২৩ নভেম্বরের মধ্যে দাবি না মানলে ২৪ নভেম্বর ‘চলো চলো ঢাকা চলো’ কর্মসূচি এবং ২৬ নভেম্বর ঢাকায় মহাসমাবেশ অনুষ্ঠিত হবে বলে জানানো হয়।

altimetam
শনিবার সকাল থেকে সন্ধ্যা পর্যন্ত সুন্দরবন বিনাশী রামপাল বিদ্যুৎকেন্দ্র চুক্তি বাতিলের দাবিতে কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে অবস্থান কর্মসূচি থেকে এ ঘোষণা দেয়া হয়।

‘চুক্তি ছুঁড়ে ফেলো, সুন্দরবন রক্ষা করো’ স্লোগানে কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে বিভিন্ন সংগঠনের নেতা-কর্মীরা এ অবস্থান কর্মসূচি পালন করে।

অবস্থান কর্মসূচিতে সংহতি জানিয়ে বাংলাদেশের কমিউনিস্ট পার্টির (সিপিবি) সভাপতি মুজাহিদুল ইসলাম সেলিম বলেন, এ প্রকল্প বাস্তবায়ন হলে সুন্দরবন ধ্বংস হয়ে যাবে তা তথ্য-প্রমাণ দিয়ে প্রমাণ করা হয়েছে।

তিনি বলেন, ‘আমাদের এই সংগ্রাম বিদ্যুৎ উৎপাদন কিংবা বিদ্যুৎকেন্দ্র নির্মাণের বিরুদ্ধে নয়, এই সংগ্রাম সুন্দরবন রক্ষার জন্য।’

মুজাহিদুল ইসলাম সেলিম বলেন, ‘আমার বিদ্যুৎকেন্দ্র ও সুন্দরবন দুটোই চাই। তাই রাজনীতির পরিবর্তন করে হলেও রামপাল প্রকল্প বন্ধ করা হবে।’

জাতীয় কমিটির সদস্য সচিব অধ্যাপক আনু মুহাম্মদ জানান, ২৩ নভেম্বরের মধ্যে সুন্দরবন বিনাশী প্রকল্প বাতিল না করলে ২৪ নভেম্বর থেকে ‘চলো চলো ঢাকা চলো’ কর্মসূচি এবং ২৬ নভেম্বর ঢাকায় মহাসমাবেশ করা হবে।

সকাল থেকে শহীদ মিনারের সামনে আয়োজিত অবস্থান কর্মসূচিতে বিভিন্ন শ্রেণী-পেশা ও বাম রাজনৈতিক দলগুলোর নেতাকর্মীরা জড়ো হতে থাকেন।

জাতীয় কমিটি পূর্ব ঘোষিত কর্মসূচি অনুযায়ী তিন মাসব্যাপী জেলা ও বিভাগ পর্যায়ে সমাবেশ, কনভেনশন করার পাশপাশি ঢাকার বিভিন্ন রুটে পদযাত্রা কর্মসূচি ঘোষণা করা হয়েছে।

এছাড়া প্রধানমন্ত্রীর উদ্দেশে খোলাচিঠি, ঢাকায় ভারতীয় দূতাবাসের সামনে গিয়ে ভারতের প্রধানমন্ত্রীকে খোলা চিঠি দেয়ার কর্মসূচিও পালন করার ঘোষণা দিয়েছেন নেতৃবৃন্দ।

অবস্থান কর্মসূচিতে বিভিন্ন পর্যায়ে বক্তব্য রাখেন এমিরেটাস অধ্যাপক সিরাজুল ইসলাম চৌধুরী, বাসদের সাধারণ সম্পাদক খালেকুজ্জামান, কলামিস্ট সৈয়দ আবুল মকসুদ, অধ্যাপক আসিফ নজরুল প্রমুখ।