• আজ সোমবার, ১০ মাঘ, ১৪২৮ ৷ ২৪ জানুয়ারি, ২০২২ ৷

৪ বছরের বিস্ময় বালিকা ৯ম শেণীর ছাত্রী


❏ মঙ্গলবার, আগস্ট ২৩, ২০১৬ আন্তর্জাতিক

মেআন্তর্জাতিক ডেস্কঃ- পৃথিবী জুড়ে অনেক ঘটনায় ঘটছে। কিছু ঘটনা অবিশ্বাস্য মনে হয় আবার বিশ্বাস না করেও উপায় থাকেনা। কত অজানাকে জানতে মরিয়া আমরা, অনেকে আবার বিস্ময় কোন কিছু দেখা বা জানার  জন্য কত অপেক্ষায় থাকি। পৃথিবী এবার এমনি এক মেধাবি বিস্ময় বালিকার সন্ধান দিয়েছে মানব জাতিকে।

পাঁচ বছরও বয়স হয়নি বিস্ময় বালিকা অনন্যা বর্মার। এরই মধ্যে লিমকা বুক অফ রেকর্ডসে নাম উঠে গেছে তার। অনন্যার এখন সঠিক বয়স ৪ বছর ৮ মাস ২১ দিন। আর এই বয়সেই সে ভারতের লখনৌয়ের স্কুলে নবম শ্রেণীতে ভর্তি হল।

শুধু অনন্যাই নয়, তার পুরো পরিবারই বিষ্ময়ের উদাহরণ। তার বোন সুষমা বর্মা ৭ বছর বয়সে মাধ্যমিক পরীক্ষা দেয়। ১৫ বছর বয়সে সে PhD-তে ভর্তি হয়। অনন্যার ভাই ১৪ বছর বয়সে BCA পাস করে। কিন্তু এদের সবাইকে ছাপিয়ে গিয়েছে অনন্যা।

নবম শ্রেণীতে ভর্তি নেওয়ার কারণ হিসেবে বিদ্যালয়ের ডিস্ট্রিক্ট ইনস্পেক্টর উমেশ ত্রিপাঠী জানিয়েছেন যে, অনন্যা খুবই ট্যালেন্টেড। কেউ তাকে নবম শ্রেণীতে ভর্তি থেকে বাধা দিতে পারবে না। এই বয়সেই সে অনর্গল হিন্দি এবং ইংরেজীতে কথা বলতে পারে এবং নবম শ্রেণীর বইও অনায়াসে পড়ে ফেলতে পারে। অনন্যা নবম শ্রেণীতে ভর্তি হওয়ার যোগ্য।

২০১১ সালে ১ ডিসেম্বর জন্ম হয় অনন্যার। তার বাবা তেজ বাহাদুর বাবাসাহেব ভীমরাও আম্বেদকর বিশ্ববিদ্যালয়ের অ্যাসিসট্যান্ট সুপারভাইজার। তার মা ছায়া দেবী পড়ালেখা জানেন না। এমন পরিবারের প্রতিটা সন্তানই প্রচন্ড মেধাবী। অনন্যার বাবা তেজ বাহাদুর জানিয়েছেন, তার বয়স যখন ১ বছর ৯ মাস ছিল, তখনই সে রামায়ণ পড়তে পারত। তাকে কোন দিনই পড়াশোনায় চাপ দেওয়া হয়নি।