🕓 সংবাদ শিরোনাম

আমাদের যা আছে, তা দিয়েই সামনে এগিয়ে যাব: প্রধানমন্ত্রীএসএসসিতে জিপিএ-৫ পেয়েও অর্থের অভাবে উচ্চ শিক্ষা অনিশ্চিত শুভ’রমহামারি এখনই শেষ হচ্ছে না, সৃষ্টি হতে পারে নতুন ভ্যারিয়েন্ট: টেড্রোসখাগড়াছড়িতে সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত ২নৌকা থেকে লাফিয়ে পালালো পাচারকারী, বিপুল আইস-ইয়াবা উদ্ধারশাবি উপাচার্যের বিরুদ্ধে যত অভিযোগ শিক্ষার্থীদেরমালয়েশিয়ায় প্রতারণার অভিযোগে নাবিস্কো ভাইয়া গ্রুপের বিরুদ্ধে সংবাদ সম্মেলনবিএনপি বহিষ্কার করলেও অন্য দলে যোগ দেব না: তৈমূরগ্লাস সুমনের মাদক কারবারের প্রধান সহযোগী গ্রেফতারমনোহরদীর দরগাহ মেলা শুরু, নজর কাড়ছে বড় মাছের বাজার

  • আজ বুধবার, ৫ মাঘ, ১৪২৮ ৷ ১৯ জানুয়ারি, ২০২২ ৷

মিউচুয়াল ট্রাস্ট ব্যাংক শাখায় অর্ধকোটি টাকা জালিয়াতির অভিযোগ


❏ মঙ্গলবার, আগস্ট ২৩, ২০১৬ দেশের খবর, রাজশাহী

রাজশাহী প্রতিনিধি: রাজশাহী জেলা মিউচুয়াল ট্রাস্ট ব্যাংক শাখা অর্ধকোটি টাকা জালিয়াতির অভিযোগ পাওয়া গেছে। পরিবারের সদস্যদের সাথে কথা বলে জানা যায়, প্যারেন্টস প্লাজার মালিক লালমন বেওয়া তার ভবনে কিছু প্রতিষ্ঠানকে ভাড়া দেন। যার চুক্তি অনুযায়ী সকল ভাড়া লালমন বেওয়া নিজে পাবেন। ওই ভবনে মিচুয়াল ট্রাস্ট ব্যাংক ছাড়াও একটি কাপড়ের শোরুম, কোচিং সেন্টার এবং একটি টেলিভিশনের অফিস ভাড়ায় থাকে।সেই সূত্রে ব্যাঙ্ক সংক্রান্ত লেনদেন তিনি ওই ব্যাংকে করে থাকেন।rajshahi

বিষয়টি আজ মঙ্গলবার সকালে জানাজানি হলে এ নিয়ে ব্যাংকের ভিতরে তুমুল হট্টগোলের সৃষ্টি হয়। লালমন বেওয়া নামের ওই নারী তাঁর দুই ছেলে ও ব্যাংকের শাখা ব্যবস্থাপকসহ দুই কর্মকর্তার বিরুদ্ধে এ অভিযোগ তুলেছেন। গত ১৫-২০ দিন পূর্বে লালমন বেওয়ার বড় ছেলে রাজ্জাক এবং ছোট ছেলে সাজ্জাদ হোসেন চেক জালিয়াতি করে ব্যাংক থেকে ৫২ লাখ টাকা উত্তোলন করে। কিন্ত চেক মালিক লালমন বেওয়া এই বিষয়ে সম্পূর্ণ অজ্ঞ ছিলেন। টাকা উত্তোলন করতে গিয়ে লালমন বেওয়া জানতে পারেন তার একাউন্টে ৫২ লাখ টাকা কম রয়েছে। এর কারণ জানতে চাইলে ব্যাংকের ম্যানেজার হারুন অর রশীদ জানান টাকাটা উত্তোলন মালিক নিজেই উত্তোলন করেছে তার ছেলেদের দ্বারা।

কিন্ত লালমন বেওয়ার বড় ছেলে রাজ্জাক হোসেন এবং ছোট ছেলে সাজ্জাদ হোসেন ব্যাংকের ভাড়ার চুক্তি লুকিয়ে ব্যাংক কর্মকর্তার সাথে হাত করে অবৈধভাবে টাকা উত্তোলন করে।আর ব্যাংকের ম্যানেজার ভবন মালিকের সাথে যোগাযোগ না করে সব টাকা মালিকের ছেলেদের হাতে তুলে দেয়। পরিবারের সদস্যদের সাথে এ নিয়ে হাতাহাতির ঘটনাও ঘটে।