• আজ শুক্রবার, ২৪ অগ্রহায়ণ, ১৪২৯ ৷ ৯ ডিসেম্বর, ২০২২ ৷

বাংলাদেশ থেকে কয়েক হাজার দক্ষ লোক নেবে সৌদি আরবের বৃহত্তম নির্মাণ প্রতিষ্ঠান


❏ বুধবার, আগস্ট ২৪, ২০১৬ জাতীয়

সময়ের কণ্ঠস্বর ডেস্ক – বাংলাদেশ থেকে প্রতি বছর কয়েক হাজার দক্ষ লোক নেবে সৌদি আরবের অন্যতম বৃহত্তম নির্মাণ ব্যবস্থাপনা প্রতিষ্ঠান আল-বাওয়ানি গ্রুপ।

বাংলাদেশ সেনা কল্যাণ সংস্থার মাধ্যমে সে দেশের বিল্ডিং কন্সট্রাকশন কাজে নিয়োগের জন্য বিনা খরচে এবং উচ্চ বেতনে দীর্ঘমেয়াদি সময়ের জন্য চাকরির সুযোগ পাবে এসব দক্ষ বাংলাদেশি।

s

আজ মঙ্গলবার গাজীপুরের শিমুলতলীতে বাংলাদেশ সেনাবাহিনী পরিচালিত ট্রাস্ট টেকনিক্যাল ট্রেনিং ইনস্টিটিউট (টিটিটিআই) পরিদর্শন শেষে লোকবল নিয়োগের এ ঘোষণা দেয় আল-বাওয়ানি গ্রুপের দুই সদস্যবিশিষ্ট একটি প্রতিনিধিদল।

তিনদিনের সফরে গতকাল সোমবার বাংলাদেশে এসেছেন প্রতিষ্ঠানটির জেনারেল ম্যানেজার ফাখার আব্দুল মায়িন আল শাওয়াফ এবং উপদেষ্টা মার্কিন নাগরিক জে কেলভিন। সফর কর্মসূচির অংশ হিসেবেই আজ টিটিটিআই পরিদর্শন করেন তাঁরা।

সকালে টিটিটিআইয়ের বিভিন্ন ট্রেডের প্রশিক্ষণার্থীদের সঙ্গে কথা বলেন এবং ওয়ার্কিং ল্যাব ঘুরে দেখেন আল-বাওয়ানি গ্রুপের দুই কর্মকর্তা। তাঁরা প্রশিক্ষণ কার্যক্রম দেখে সন্তুষ্টি প্রকাশ করেন এবং টিটিটিআইয়ের প্রশংসা করেন। এ সময় প্রশিক্ষণার্থীদের সংশ্লিষ্ট ট্রেডের পাশাপাশি ইংরেজি ও আরবি ভাষায় দক্ষতা বাড়াতে অনুরোধ জানান তাঁরা।

ফাখার আব্দুল মায়িন আল শাওয়াফ বলেন, সৌদি আরবে বাংলাদেশি কর্মীদের কাজের ব্যাপক সুযোগ রয়েছে। অতীতেও বাংলাদেশিরা অত্যন্ত সুনাম ও দক্ষতার সাথে সেখানকার উন্নয়নমূলক কাজে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রেখেছে। তিনি জানান, যেসব কর্মীকে নিয়োগ দেওয়া হবে, তারা বিনা খরচে সেখানে উচ্চ বেতনে দীর্ঘদিন কাজ করার সুযোগ পাবে।

এ সময় সেনাকল্যাণ সংস্থার ঊর্ধ্বতন কর্মকতা ব্রিগেডিয়ার জেনারেল ফরিদ আহমেদ, কর্নেল জিল্লুর রহমান, টিটিটিআইয়ের প্রিন্সিপাল লেফটেন্যান্ট কর্নেল (অব.) আছয়াদুর রহমান, ভাইস প্রিন্সিপাল মেজর (অব.) শ্যামলেন্দু কবিরাজসহ অন্যরা উপস্থিত ছিলেন।

দেশের বেকার লোকদের দক্ষ কর্মী হিসেবে গড়ে তুলতে এবং দেশ-বিদেশে তাদের কর্মসংস্থানের ব্যবস্থা করতে বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর তত্ত্বাবধানে ট্রাস্ট টেকনিক্যাল ট্রেনিং ইনস্টিটিউট পরিচালিত হচ্ছে। বাংলাদেশ কারিগরি শিক্ষাবোর্ড অনুমোদিত প্রতিষ্ঠানটি  প্রতিবছর দুই সেশনে ড্রাইভিং কাম অটোমেকানিক্স, অটোমোবাইল, ওয়েল্ডিং অ্যান্ড ফেব্রিকেশন, রেফ্রিজারেশন অ্যান্ড এয়ারকন্ডিশন, প্লাম্বিং অ্যান্ড পাইপ ফিটিংস, মেশন অ্যান্ড রড বাইন্ডিং, ইলেকট্রিক্যাল হাউজ ওয়্যারিং, জেনারেল ইলেক্ট্রনিক্স এবং কম্পিউটার অফিস অ্যাপ্লিকেশনসহ মোট আটটি ট্রেডে প্রশিক্ষণ দিচ্ছে। এখানে বিশ্ব ব্যাংকের অনুদানে প্রতি কোর্সে ৩০০ জন দরিদ্র ও মেধাবী প্রশিক্ষণার্থীকে বিনা বেতনে প্রশিক্ষণ দেওয়া হয় এবং তাদের প্রতিমাসে ৭০০ টাকা করে বৃত্তি দেওয়া হয়।