🕓 সংবাদ শিরোনাম

প্রায় ৩ কোটি টাকা ব্যয়ে এফডিসিতে নির্মিত হলো নান্দনিক মসজিদএকদিনে সাড়ে ৯ হাজার করোনা রোগী শনাক্ত, মৃত্যু ১২ফরিদপুরে অবৈধ অস্ত্র ও মাদকসহ গ্রেপ্তার ২আমাদের যা আছে, তা দিয়েই সামনে এগিয়ে যাব: প্রধানমন্ত্রীএসএসসিতে জিপিএ-৫ পেয়েও অর্থের অভাবে উচ্চ শিক্ষা অনিশ্চিত শুভ’রমহামারি এখনই শেষ হচ্ছে না, সৃষ্টি হতে পারে নতুন ভ্যারিয়েন্ট: টেড্রোসখাগড়াছড়িতে সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত ২নৌকা থেকে লাফিয়ে পালালো পাচারকারী, বিপুল আইস-ইয়াবা উদ্ধারশাবি উপাচার্যের বিরুদ্ধে যত অভিযোগ শিক্ষার্থীদেরমালয়েশিয়ায় প্রতারণার অভিযোগে নাবিস্কো ভাইয়া গ্রুপের বিরুদ্ধে সংবাদ সম্মেলন

  • আজ বুধবার, ৫ মাঘ, ১৪২৮ ৷ ১৯ জানুয়ারি, ২০২২ ৷

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের জরিপঃ দেশের ৬০ শতাংশ নারীই স্টার জলসা দেখেন !


❏ শুক্রবার, আগস্ট ২৬, ২০১৬ প্রজন্মের ভাবনা

প্রজন্মের ভাবনা ডেস্ক

বাংলাদেশে নারীদের ওপর পরিচালিত এক জরিপে দেখা গেছে, ৯০ শতাংশ টেলিভিশন দেখেন, কিন্তু এদের ৬০ শতাংশই ভারতীয় টেলিভিশন চ্যানেল স্টার জলসার দর্শক।

বাংলাদেশে যেখানে কয়েক ডজন টেলিভিশন চ্যানেলে বহুরকম বিনোদনমূলক অনুষ্ঠান চলে সারাদিন, সেখানে একটি ভারতীয় চ্যানেল কেন মহিলাদের কাছে এত বেশি জনপ্রিয়?

kiranmala2


কয়েকজন নারী বলেছেন, ভারতীয় চ্যানেলের অনুষ্ঠানগুলো অনেক বেশি বৈচিত্র্যময় আর সব বয়সের মেয়েদের সঙ্গে বসে একসঙ্গে দেখার মতো। তবে বাংলাদেশের একটি বেসরকারি টেলিভিশনের অনুষ্ঠান বিভাগের প্রধান বলেছেন, ভালো মানের অনুষ্ঠানের সঙ্কট আর অতিরিক্ত বিজ্ঞাপনের কারণেই বাংলাদেশি চ্যানেলগুলো থেকে মুখ ফিরিয়ে নিয়েছেন দর্শকরা।

জরিপটি পরিচালনা করেছে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের পপুলেশন সায়েন্সেস বিভাগ। মূলত পরিবার পরিকল্পনা, জনসংখ্যা ও স্বাস্থ্য বিষয়ে সচেতনতামূলক কর্মসূচিগুলোর প্রভাব কেমন- সেটি দেখতেই সাতটি বিভাগের ১১টি জেলার সাড়ে পাঁচ হাজারের বেশি নারীর ওপর এই জরিপ চালানো হয়।

পপুলেশন সায়েন্সেস বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক মো. বেলাল হোসেন বলেন, তারা দেখেছেন নারীদের মধ্যে ৯০ ভাগ টেলিভিশন দেখেন কিন্তু তার ষাট ভাগই ভারতীয় চ্যানেল দেখেন, ফলে বাংলাদেশের স্বাস্থ্যবিষয়ক প্রচারগুলোর তাদের ওপর কোনো প্রভাব রাখছে না।

কিন্তু বাংলাদেশের নারীরা ভারতীয় বাংলা চ্যানেলের অনুষ্ঠান কেন বেশি দেখেন বা পছন্দ করেন? এমন প্রশ্নের উত্তরে বেসরকারি প্রতিষ্ঠানের চাকরিজীবী ইফফাত জাহিদ বলেন, ‘অনেক বেশি সিরিয়াল দেখায়। একেক সিরিয়াল একেক ধরনের। একটা থিম থাকে। গল্প থাকে। মডেলগুলো আকর্ষণীয়। মুভিগুলো তো সম্পূর্ণ ভিন্ন। দেখা যায় আমরা মা-খালা সবাই একসঙ্গে দেখতে পারি’।

বাংলাদেশের টেলিভিশনগুলোর কোনো অনুষ্ঠানই কি বাংলাদেশের নারীদের আকৃষ্ট করতে পারছে না? ভারতীয় চ্যানেলের কোন অনুষ্ঠানগুলো তারা বেশি দেখেন?

এমন প্রশ্নের উত্তরে দুলি মল্লিক বলেন, ‘বাংলাদেশি নিউজ চ্যানেলগুলো আছে। এর বাইরে ভারতীয় চ্যানেলই বেশি দেখি। মা, শ্বশুর, শাশুড়ি ভারতীয় সিরিয়াল দেখতে পছন্দ করেন, স্টার জলসা বা স্টার প্লাস এমন চ্যানেলগুলোতে’।
দর্শকদের এমন মতামতকে অনেকটা সত্যি বলেই মেনে নিলেন বেসরকারি টেলিভিশন এনটিভির অনুষ্ঠানপ্রধান মোস্তফা কামাল সৈয়দ।

তিনি বলেন, ভালো গল্পের অভাবের পাশাপাশি অতিমাত্রায় বিজ্ঞাপন প্রচারের কারণে বাংলাদেশের টেলিভিশনগুলোর নাটক-টেলিফিল্মসহ অনুষ্ঠানগুলো দর্শকদের আগ্রহ ধরে রাখতে পারছে না।

তিনি বলেন, ‘পার্থক্য হলো ওদের ধারাবাহিকের একটা গল্প থাকে। সে গল্প থেমে থাকে না, চলমান। একটা আগ্রহ তৈরি হয় যাতে কাল দেখতে পারি। আমাদের ধারাবাহিকের ক্ষেত্রে সেগুলোর অভাব আছে। আমার মতে মূল সমস্যা বিজ্ঞাপন। দর্শকরা ইমোশনালি ইনভলভড হওয়ার সুযোগ পায় না’।

তাঁর মতে বিজ্ঞাপন কমানো গেলে আর নাটক বা সিরিয়ালে ভালো গল্প বেশি নিয়ে আসতে পারলে বাংলাদেশের নারী দর্শকদের মধ্যে বাংলাদেশি টেলিভিশন চ্যানেলের অনুষ্ঠানগুলোর জনপ্রিয়তা আবার ফিরে আসবে।

-বিবিসি