• আজ শনিবার, ১ জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৮ ৷ ১৫ মে, ২০২১ ৷

রংপুর শহরে প্রেমিকার জন্মদিনে উপহার দিতে স্মার্ট প্রেমিক যুবকের অভিনব চুরি ও ধরা পড়া নিয়ে তোলপাড় !


❏ বৃহস্পতিবার, সেপ্টেম্বর ৮, ২০১৬ আলোচিত, চিত্র বিচিত্র, স্পট লাইট

শাহরিয়ার মিম, রংপুর জেলা প্রতিনিধি, সময়ের কণ্ঠস্বর-

প্রেমিকাকে জন্মদিনের উপহার দিতে অভিজাত শোরুম থেকে অভিনব কায়দায় প্রেমিক যুবকের শো’পিচ চুরি। সিসিটিভি ফুটেজে চোর সনাক্ত হবার পর দোকান মালিকের অভিযোগে মধ্যরাতে আটক প্রেমিক যুবক। অতঃপর দোকান মালিকের অনুরোধেই ছেড়ে দেয়া হয় যুবককে ! প্রেমিকাকে খুশি করতে প্রেমিক যুবকের এমন ব্যাতিক্রমি ‘আত্মদান’ এখন রংপুরে ই-টিন এজারদের টক অব দ্যা-টাউন ।

নেপথ্যের কাহিনী

ফেসবুকে নিজের নামে আইডিও আছে যুবকের । মাঝারি গোছের সেলিব্রেটি বললেও অত্যুক্তি হবেনা তাকে । স্থানীয় গন্যমান্য ব্যাক্তিবর্গের সাথে তোলা আর  নানান নামী দামী স্থানের আপলোড করা ছবিই ও  ফেবু স্ট্যাটাসেই জানান দেয় যুবকের ব্যাক্তিগত স্ট্যাটাস বেশ ভালো ।

গতকাল বুধবার যুবকের স্বপ্নকন্যার জন্মদিন ছিলো, কিন্তু গড়ের মাঠ ছিলো স্বপ্নপুরুষ যুবকের পকেট।  বিশেষ এমন একটি দিনে অন্তত কিছু না দিতে পারলে ‘সম্মান থাকবেনা’ হয়তো । এমন সাত পাঁচ ভেবেই এদিন সন্ধ্যায়  রংপুর মহানগরীর ডিসিরমোড়ে একটি শো’পিচের দোকানে ঢুকে পড়ে ঐ  যুবক।

সাধ আর সাধ্যের দারুন অমিলের মধ্যেই হতাশ যুবক এই সেলফ সেই সেলফে অনেকক্ষন খোঁজে তার  কাঙ্ক্ষিত উপহার ।  এরপর অনেক কৌশলে সেলসম্যানের চোখ ফাঁকি দিয়ে পছন্দমতো ও যুতসই একটি উপহার বগলদাবা করে চুপটি করে সেখান থেকে কেটে পড়ে যুবক।

কিন্তু বিধিতো  বাম! আর কেও না দেখলেও দোকানে লাগানো যন্ত্রদানব সিসি ক্যামেরার চোখ আর এড়াতে পারেনি প্রেমিক যুবক। মুল্যবান শো’পিচ টি না দেখে সিসি ক্যামেরার আর্কাইভ ঘাটতেই দোকান মালিকের সামনে বেরিয়ে আসে খোয়া যাওয়া শো’পিচের চুরি দৃশ্য! স্পষ্ট ভেসে উঠে সৌম্যদর্শন এক যুবকের চুরি করার ঘটনা ।

এই ঘটনা ব্যাপক আলোচনার জন্ম দিয়েছে রংপুরের ফেসবুক কমিউনিটি ও ব্যবহারকারীদের মধ্যে। প্রেমিকাকে উপহার দিতে একজন প্রেমিক যুবকের এহেন কর্মকান্ডকে অনেকেই ‘ সমবেদনা ‘ জানিয়ে ”প্রেমের জন্য আত্মত্যাগ’ উল্লেখ  করে টিপ্পনি কাটতেও ভুল করেননি।

রংপুর মহানগরীর ডিসিমোড় এলাকার ডিসির বাড়ির সামনেই অবস্থিত আরছিস শোপিচ সেন্টার থেকে চুরির সময় সিসি ক্যামেরার ফুটেজে এদিন সনাক্ত হয়  ভদ্র চোর। আর যায় কোথায়!  তখনি দোকান মালিক তলব করে পুলিশকে। মহানগর পুলিশের তাতক্ষনিক প্রচেস্টায় আর ততপরতায়  ঘটনার খলনায়ক প্রেমিক যুবকের বাসা থেকে মধ্যরাতে তুলেআনা হয় পুলিশ ফাড়িতে ।

rangpur-lover-thief

এরপর জিজ্ঞাসাবাদে যুবক জানায় চুরির মুল উদ্দেশ্য। যুবকের স্বীকারোক্তি কোন গালগল্প কিনা সে খবরও অবশ্য নিয়েছে পুলিশ ও অভিযোগকারী। সত্যি জানার পর পুলিশ ও উপস্থিত সবাই কিছুটা অবাক হয়েছে কৌতুহল রেখেই। এরপর প্রাথমিকভাবে মুচলেকার পর অভিভাবকদের হাতে তুলে দেয়া হয় যুবককে।

অভিনব চুরির এই ঘটনা সম্পকে জানতে চাইলে রংপুর ধাপ পুলিশ ফাড়ির এস,আই গোলাম কিবরিয়া সময়ের কণ্ঠস্বরকে জানান, বুধবার রাতে আলাউদ্দিন (২২) নামে এক যুবক রংপুর শহরের প্রানকেন্দ্র ডিসির বাড়ির সামনে আরছিস শোপিছ সেন্টার থেকে তার একটি ডল(পুতুল) দোকান কর্মচারীরের চোখ ফাঁকি দিয়ে চুরি করে শার্টের ভেতর লুকিয়ে ফেলে।

পরক্ষনে আলাউদ্দিন থাকা অবস্থায় দোকান কর্মচারী দোকানের রেক-এ ১টি ডল (পুতুল) দেখতে না পারায় আলাউদ্দিন কে আটক করে দোকানের সিসি ক্যামেরার ফুটেজ চেক করে দেখতে পায় যে, রংপুর মহানগরীর মেডিকেল পুর্বগেট এলাকার করিমের সন্তান আলাউদ্দিন অভিনব কায়দায় সেটি শার্টের ভেতর লুকিয়ে চুরি করে।

পরে অভিযোগ পেয়ে আমরা তাকে বাসা থেকে আটক করে নিয়ে আসার পর চুরির ব্যপারে জানতে চাইলে তিনি জানান,” আজ তার প্রেমিকার জন্মদিন ছিল, এ উপলক্ষে তাকে উপহার দেয়ার জন্য আমি এটা চুরি করেছিলাম।”

পুনশ্চ- প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদের পর দোকান মালিকের অনুরোধে সে রাতেই যুবককে ছেড়ে দেয় পুলিশ। তার দেয়া স্বীকারোক্তি অনুযায়ি, সে রাতে  বগলদাবা করা সেই উপহারটি প্রেমিকার হাতে সগর্বে দিয়েছিলো গল্পের খলনায়ক। প্রেমের জন্য এমন উতসর্গের কথা জানার পর দোকান মালিকের সহানুভুতি জেগে উঠলে তিনি অনুরোধ করেন যুবককে ছেড়ে দিতে। তবে পুলিশ যুবককে ছেড়ে দিলেও ঘটনা ফাঁস হয়ে যায় উতসাহী ফেসবুকারদের মধ্যে । এরপর থেকেই যুবকের এহেন ঘটনাকে ‘প্রেমের আত্মদান’ উল্লেখ করে ফেসবুকের হোমপেজে ঘুরতে থাকে নানান চটকদার স্ট্যাটাস ।

দিনকতক আগেই নিজের ফেসবুক দেয়ালে আক্ষেপ করে ঘটনার খলনায়ক প্রেমিক যুবক লিখেছিলো,

”আসলে যার পকেটে টাকা থাকে না বা গরীব তাদের কেনো দাম নাই যেমন বড় ভাইদের কছে ,friend দের কাছে,ছোট ভাই দের কাছে ,আমার এক মামার কাছে। মানুষের কাছে বুঝি না আমাদের কি দোষ করছি আমরা গবির বলে না আমাদের টাকা নাই বলে। আমরা কি বড়লোক মানুষের  কাছে এত বিশ ঝারপোকা হয়ছি আপনারই বলেন আমাদের কি দোষ আমরা গরিব বলে আমাদের বেচে থাকা অধিকার না **ঠিক আছে আমি গবির আমার কাছে টাকা নাই তার মানে আমাকে সে মনে করবেনা।”

বিঃ দ্রঃ- প্রেমিক যুবকের ছবি ও পুর্ন পরিচয় ফেসবুকের বিভিন্ন জনের স্ট্যাটাসে ভেসে বেড়ালেও ‘সময়ের কণ্ঠস্বর’ এর নীতিমালা ও  ব্যাক্তি কাউকে আক্রমন না করার প্রয়াসেই যুবকের ছবি ও পুর্ন পরিচয় প্রকাশ করা হলোনা ।

আমাদের বিশ্বাস জীবনের ছোট এই ‘ভুলটি’ ঐ যুবকের আগামী দিনে প্রতিবন্ধকতা না হয়ে বরং শুধরে নিয়ে নতুন পথ চলার পাথেয় হবে ।

প্রকাশক -সময়ের কণ্ঠস্বর-