• আজ রবিবার,২৬ বৈশাখ, ১৪২৮ ৷ ৯ মে, ২০২১, রাত ৮:৩০

শরীয়তপুরে মালয়েশিয়া যাওয়ার জন্য ২৭ লক্ষ টাকা দিয়ে প্রতারণার শিকার ১০ ব্যাক্তি

❏ বৃহস্পতিবার, সেপ্টেম্বর ৮, ২০১৬ ঢাকা, দেশের খবর

সময়ের কন্ঠস্বর ডেস্ক: শরীয়তপুর জেলার নড়িয়া উপজেলার ঘড়িষার ইউনিয়নের ১০ ব্যাক্তি মালয়েশিয়া যাওয়ার জন্য ২৭ লক্ষ টাকা দিয়ে প্রকারণার শিকার হয়েছে বলে অভিযোগ উঠেছে। এমিটি ট্যুরসের স্বত্বাধিকারী জালাল উদ্দিন ভুইয়ার প্রলোভন দেখিয়ে সাগর ট্রেড ইন্টান্যাশনালের স্বত্বাধিকারী মতিউর রহমান সাগরকে মালয়েশিয়া যাওয়ার জন্য ১০ জন লেক ঠিক করে দিতে বলে।pic-2-co3y

সাগর ট্রেড ইন্টান্যাশনালের স্বত্বাধিকারী মতিউর রহমান সাগর তার আত্মীয়-স্বজনের পাসর্পোটসহ ও ২৭ লক্ষ টাকা দেয় এমিটি ট্যুরসের স্বত্বাধিকারী জালাল উদ্দিন ভুইয়াকে। কিন্তু এমিটি ট্যুরসের স্বত্বাধিকারী জালাল উদ্দিন ভুইয়া ২৭ লক্ষ টাকা ও পাসর্পোট নিয়ে গড়িমসি করছে এমন অভিযোগ সাগরের।

এদিকে, নড়িয়ার বিভিন্ন এলাকার ১০ ব্যক্তি সাগরের মাধ্যমে এমিটি ট্যুরসকে টাকা দিয়ে মালয়েশিয়া যেতে না পেরে দিশেহারা হয়ে পড়েছে। এ ঘটনায় সাগর ট্রেড ইন্টান্যাশনালের স্বত্বাধিকারী মতিউর রহমান সাগর ন্যায় বিচারের জন্য প্রবাসী কল্যাণ ও বৈদেশী কর্মসংস্থান মন্ত্রণালয়ের মন্ত্রী এবং পুলিশের মহাপরিদর্কসহ বিভিন্ন দপ্তরে অভিযোগ করেছেন।

সাগর ট্রেড ইন্টান্যাশনাল ও অভিযোগ সূত্রে জানা যায়, জেলার নড়িয়া উপজেলার ঘড়িষার ইউনিয়নের বাসিন্দা ও ঢাকার নয়া পল্টন, ১/২, ইর্স্টান ভিউ বিল্ডিং এর সাগর ট্রেড ইন্টান্যাশনালের স্বত্বাধিকারী মতিউর রহমান সাগর সম্প্রতি মোজাম্মেল নামে এক বন্ধুর মাধ্যমে ঢাকার নয়াপটন এলাকার সিটিহার্ট মার্কেটের ১৫ তলার এমিটি ট্যুরস রিক্রুটিং লাইসেন্স নং-৪২৫ এর স্বত্বাধিকারী জালাল উদ্দিন ভূইয়ার সঙ্গে পরিচয় হয়। পরে জালালের প্রলোভনে সরল ভাবে মালয়েশিয়া যওয়ার জন্য (আব্দুল হাই, মামুন সরকার, সুমন গাজী, জাকির, এম.ডি ইকবাল, মো. মাহাবুব মিজি, আইয়ুব সরদার, খোরশেদ আলম, আব্দুল লতিফ, হাসান) নামে ১০ ব্যাক্তির কাছ থেকে জনপ্রতি ২ লক্ষ ৭০ হাজার টাকা করে মোট ২৭ লক্ষ টাকা নেয়। এরপর সাগরের থেকে ওই টাকা নিয়ে মালয়েশিয়া গমনে তার আত্মীয়দের হোটেলে ৪/৫ দিন রেখে কিছু না বলেই লাপাত্তা হয়ে যায় জালাল এমন অভিযোগ সাগরের।

অন্যদিকে, বিদেশ গমনে ইচ্ছুকরা মালয়েশিয়া যেতে না পেরে সাগরকে একাধিকবার লাঞ্চিত ও তার গ্রামের বাড়ি-ঘরে হামলা করেছে। ইতিমধ্যে সাগর তার কিছু জমি বিক্রি করে তাদেরকে কিছু টাকা পরিশোধ করলেও বাকি টাকার জন্য তিনি তার কর্মস্থল ও গ্রামের বাড়ি যেতে না পেরে পালিয়ে বেড়াচ্ছে।

এ ব্যাপারে মতিউর রহমান সাগর বলেন, নড়িয়ার বিভিন্ন এলাকার ১০ ব্যাক্তি (নিকট আত্মীয়-স্বজন) আমার মাধ্যমে এমিটি ট্যুরসকে টাকা দিয়ে মালয়েশিয়া যেতে না পেরে দিশেহারা হয়ে পড়েছে। আমি এ সমস্যার জন্য অনেক চাপে আছি। তাই ন্যায় বিচারের জন্য জন্য যথাযথ কর্তৃপক্ষে সুদৃষ্টি কামনা বিচার কামনা করছি। অন্যদিকে অভিযুক্ত জালাল উদ্দিন ভূইয়ার বক্তব্যের জন্য তার মোবাইল নম্বরে(০১৯১১-৩৪৭৭২৩) বারবার চেষ্টা করা হলেও তাকে পাওয়া যায়নি।