কুয়েতে বাংলাদেশি শ্রমিক নেয়া বন্ধের সংবাদ ভিত্তিহীন – রাষ্ট্রদূত

⏱ | শুক্রবার, সেপ্টেম্বর ৯, ২০১৬ 📁 Breaking News, জাতীয়

সময়ের কণ্ঠস্বর ডেস্ক –     কুয়েতে বাংলাদেশি শ্রমিক নিয়োগ বন্ধের সংবাদ গণমাধ্যমের  ভিত্তিহীন প্রচার  বলে মন্তব্য করেছেন  কুয়েতে নিযুক্ত বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত এস এম আবুল কালাম । বৃহস্পতিবার সাংবাদিকদের এ সব কথা বলেছেন তিনি ।

kuyet

গত  বুধবার  কুয়েতের দৈনিক আল-আনবা পত্রিকায়  প্রকাশিত এক সংবাদে বলা হয়েছে, কুয়েতের শ্রমবাজার ফের বাংলাদেশিদের জন্য বন্ধ হয়েছে। সোমবার এ সিদ্ধান্ত নেয় কুয়েতের নাগরিকত্ব ও পাসপোর্ট বিভাগের সহকারী আন্ডার সেক্রেটারি শেখ মাজেন আল জারাহ। এতে বলা হয়, গত সপ্তাহের শেষ দিকে দেশটিতে বাংলাদেশিদের সংখ্যা দাঁড়ায় দুই লাখে। ফলে বাংলাদেশিদের আর নেয়া হবে না। তবে ভবিষ্যতে বিষয়টি পুনর্বিবেচনা অথবা কঠিন কিছু শর্তে বাংলাদেশিদের জন্য ফের শ্রমবাজার খুলে দেয়া হবে কি না, সে সম্পর্কে কিছুই বলেননি ওই সহকারী আন্ডার সেক্রেটারি।

এদিকে   বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত জানান, কুয়েতে বাংলাদেশি কর্মী নিয়োগে কোনো নিষেধাজ্ঞা নেই। শুধুমাত্র পুরুষ গৃহকর্মী নিয়োগে বিশেষ অনুমতি লাগবে। তিনি জানান, কুয়েতের গৃহকর্মী বিভাগের প্রধান মোহাম্মদ আল আজমী এবং স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মহাপরিচালক বিগ্রেডিয়ার জেনারেল ওয়েল আল রুমির সঙ্গে বৈঠক করে তিনি বিষয়টি নিশ্চিত হয়েছেন।

রাষ্ট্রদূত এস এম আবুল কালাম আরও  বলেন, একটি ভিত্তিহীন সংবাদ প্রচার করে দুই দেশের ভাবমূর্তি ক্ষুণ্ন করার পাঁয়তারা চলছে। তিনি প্রবাসীদের কুয়েতের আইন সম্মানের সঙ্গে মেনে চলার পরামর্শ দেন এবং সতর্ক করে বলেন, অপপ্রচারকারীদের বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

বাংলাদেশ দূতাবাসের শ্রম কাউন্সিলর আবদুল লতিফ খান জানান, তারা বিষয়টি যাচাই করার জন্য বৃহস্পতিবার সকালে কুয়েতের গৃহকর্মী বিভাগ ও স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের উচ্চপদস্থ কর্মকর্তাদের সঙ্গে বৈঠক করেছেন। তিনি জানান, পুরুষ গৃহকর্মী নিয়োগে আগে উন্মুক্ত ছিল, এখন বিশেষ অনুমতি লাগবে।

এ ছাড়া দূতাবাসের প্রধান কাউন্সিলর এস এম মাহবুবুল আলম বলেন, সম্প্রতি কুয়েতের আমির শেখ সাবাহ আল আহমেদ আল সাবাহ কুয়েতে বিদেশি শ্রমিক নিয়োগে বাংলাদেশকে অগ্রাধিকার দেওয়া হবে বলে আশ্বাস দিয়েছেন।