পথের দুর্ভোগ ম্লান করে দিচ্ছে ঈদ আনন্দ, যানজট কমেনি ঢাকা-টাঙ্গাইল মহাসড়কে

১১:৩৯ পূর্বাহ্ন | শনিবার, সেপ্টেম্বর ১০, ২০১৬ আলোচিত বাংলাদেশ

সময়ের কণ্ঠস্বর- এবারের ঈদেও ঘরমুখো মানুষদের প্রচুর দুর্ভোগ পোহাতে হচ্ছে। যানজটেই পথিমধ্যে আটকে পড়ছে। যাত্রীবাহী বাস, প্রাইভেট কার, কোরবানীর পশুবাহী ট্রাক। ঘণ্টার পর ঘন্টা বাসে বসে, পথেই কাটাতে হচ্ছে। এই অসহনীয় দুর্ভোগ ঈদের আনন্দ ম্লান করে দিচ্ছে। তবুও নাড়ির টানে পরিবার পরিজন নিয়ে মানুষ গ্রামে যাচ্ছে। পশুবাহি গাড়ি ও ঘরমুখো যাত্রীবাহী গাড়ি বেড়ে যাওয়ায় শুক্রবার ভোর থেকেই গাজীপুরের বিভিন্ন সড়ক-মহাসড়কে থেমে থেমে যানজট শুরু হয়েছে। যা আজ শনিবার প্রকট আকার ধারণ করেছে।

002_222829গাজীপুরের ঢাকা-ময়মনসিংহ মহাসড়কের টঙ্গী থেকে ভোগড়া বাইপাস মোড় পর্যন্ত, ঢাকা-টাঙ্গাইল মহাসড়কের টাঙ্গাইলের যমুনা ব্রিজ এলাকা পর্যন্ত এবং চন্দ্রা ত্রিমোড় থেকে কোনাবাড়ি ও এর আশপাশ এলাকা, ঢাকা বাইপাস সড়কের ভোগড়া থেকে মীরেরবাজার এলাকায় যানজট সৃষ্টি হয়েছে। থেমে থেমে গাড়ি চলছে।

এদিকে ঢাকা টাঙ্গাইল বঙ্গবন্ধু মহাসড়কের চন্দ্রা থেকে বঙ্গবন্ধু সেতু এলাকার প্রায় ৭০ কিলোমিটার এলাকায় যানজট অপরিবর্তিত রয়েছে। শনিবার ভোর থেকে মহাসড়কের দুই পাশের রাস্তায় ধীরগতিতে গাড়ি চলাচল করলেও বেলা বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে এ যানজটের সৃষ্টি হয়। এতে বিপাকে পড়েছে শিশু, নারী ও বৃদ্ধসহ ঘরমুখো হাজার হাজার মানুষ।

হাইওয়ে পুলিশ সূত্রে জানা যায়, ঘরমুখো যাত্রী ও কোরবানির পশুবাহী ট্রাকের কারণে মহাসড়কের ওপর চাপ পড়েছে। আর মহাসড়ক চার লেনে উন্নীতকরণের কাজ চলমান থাকায় বিভিন্ন পয়েন্টে সড়কও সংকুচিত হয়ে পড়েছে। এসব কারণেই তীব্র যানজট দেখা দিয়েছে। এ ছাড়া বেশ কয়েকটি স্থানে মহাসড়কের ওপর গাড়ি বিকল হওয়ায় তা সরাতে গিয়ে যানজট আরো দীর্ঘ হচ্ছে। অতিরিক্ত গাড়ির চাপ সামলাতে কাজ করছে পুলিশ, রোভার স্কাউট ও কমিউনিটি পুলিশ।

এ ব্যাপারে গোড়াই হাইওয়ে থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. খলিলুর রহমান জানান, উত্তরাঞ্চলের ২২টি জেলার যানবাহন ছাড়াও টাঙ্গাইল, জামালপুর, শেরপুর জেলার পশুবাহী ট্রাক ও যানবাহন এখন ঢাকা-টাঙ্গাইলের দুই লেন বিশিষ্ট মহাসড়ক এবং বঙ্গবন্ধু সেতু জাতীয় মহাসড়ক দিয়ে যাতায়াত করছে।

এছাড়াও ঢাকা-টাঙ্গাইল মহাসড়কে চার লেনের সম্প্রসারণ, কয়েকটি ফ্লাইওভারের কাজ, দুর্ঘটনা এবং গাড়ি বিকল হয়ে পড়ায় মহাসড়কের মাঝে মাঝে এই যানজটের সৃষ্টি হচ্ছে। এর পাশাপাশি যানবাহনের ওভার ট্র্যাকিং যানজটের একটি প্রধান সমস্যা হয়ে দাঁড়িয়েছে।

হাইওয়ে পুলিশ সুপার (এসপি) মো. শফিকুল ইসলাম বলেন, আজ শনিবার ভোর থেকেই মহাসড়কে পণ্যবাহী ট্রাক, লরি ও কাভার্ডভ্যান নিষিদ্ধ করা হয়েছে। মহাসড়কে এসব গাড়ি পাওয়া গেলে সেগুলোর বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

এসপি আরো জানান, আজ বিকেলে গাজীপুর ও সাভারের পোশাক কারখানাগুলোতে ছুটি শুরু হলে মহাসড়কের যাত্রীর চাপ আরো বাড়বে বলে আশঙ্কা করা হচ্ছে। এমন চাপ সামলাতে আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী প্রস্তুত আছে।