🕓 সংবাদ শিরোনাম

ইসরাইলকে সমর্থন দিয়েছে বিশ্বের ২৫টির মতো দেশ!বাংলাদেশিদের ভালোবাসা দেখে বিস্মিত ফিলিস্তিন রাষ্ট্রদূতঢাকা-টাঙ্গাইল মহাসড়কে যাত্রী পরিবহনের প্রতিযোগিতায় ট্রাক ও পিকআপখেলার আগে মাঠে ফিলিস্তিনের পতাকা ওড়ালেন কুড়িগ্রামের ক্রিকেটারেরাপাঁচ ঘণ্টা আটকে রেখে থানায় নেওয়া হলো প্রথম আলোর রোজিনা ইসলামকেকর্মস্থলে ফিরতে গাদাগাদি করে রাজধানীমুখী লাখো মানুষশেরপুরে পৃথক ঘটনায় একদিনে ৭ জনের মৃত্যুএক বিয়ে করে দ্বিতীয় বিয়ের জন্যে বড়যাত্রীসহ খুলনা গেল যুবক!আমার মৃত্যুর জন্য রনি দায়ী! চিরকুট লিখে স্কুল ছাত্রীর আত্মহত্যাইসরাইলীয় আগ্রাসনের  বিরুদ্ধে ইসলামী বিশ্বের নিন্দার নেতৃত্বে সৌদি আরব

  • আজ মঙ্গলবার, ৪ জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৮ ৷ ১৮ মে, ২০২১ ৷

ফ্রান্সের উপযোগী ইসলাম চাই : ওলান্দ


❏ শনিবার, সেপ্টেম্বর ১০, ২০১৬ আন্তর্জাতিক

news_picture_36734_olad1


আন্তর্জাতিক ডেস্কঃ

বিদেশ থেকে প্রশিক্ষণপ্রাপ্ত ইমামদের সরিয়ে দিয়ে ফ্রান্সের উপযোগী করে ইসলাম চর্চার আহ্বান জানিয়েছেন দেশটির প্রেসিডেন্ট ফ্রাঁসোয়া ওলান্দ।

‘গণতন্ত্রের পথে কট্টর ইসলামের প্রতিবন্ধকতা শীর্ষক এক বক্তব্যে বৃহস্পতিবার প্যারিসে এ ঘোষণা দেন তিনি।

ইমামদের প্রশিক্ষণ এবং মসজিদ নির্মাণে অর্থায়নের তদারকির জন্য ফ্রান্সে একটি জাতীয় কমিটি গঠন করা উচিত বলেও মত দেন তিনি।

সিএনএন জানায়, ইসলামকে কেন্দ্র করে দেশটিতে সন্ত্রাসী হামলা এবং বুরকিনি নিষিদ্ধের বিতর্ক প্রসঙ্গে প্রতিক্রিয়া জানাতে এ প্রস্তাব দেন ওলান্দ।

তিনি বলেন, ‘সেক্যুলারিজমের কোনো ধারণাই এতদিন ফ্রান্সের মুসলিমদের ইসলাম চর্চায় বাধা হয়ে দাঁড়ায়নি। এটাই গুরুত্বপূর্ণ বিষয় যে, সেক্যুলারিজম কখনোই কোনো ধর্মের বিরুদ্ধে দাঁড়ায় না।’

এ ব্যাপারে ওলান্দ আরও বলেন, ‘এখন আমাদের সবচেয়ে বেশি যা প্রয়োজন তা হল ফ্রান্সের আদলে ইসলামকে রূপদান করা এবং সেটাই এখানে চর্চার ব্যবস্থা করা।’ দেশটির ৭ থেকে ৯ শতাংশ মুসলিম জনগোষ্ঠীর সঙ্গে সম্পর্কন্নোয়নের মাধ্যমে তা সম্ভব বলেও মনে করেন তিনি।

ওলান্দ বলেন, ‘বিদেশী ইমাম এবং বিদেশ থেকে প্রশিক্ষণপ্রাপ্ত ইমামরা অনেকে আমাদের ভাষাতে কথাও বলেন না। তাদের এ দায়িত্ব থেকে সরিয়ে দিতে হবে। আমাদের নাগরিক এবং প্রশিক্ষিতদের হাতে এ দায়িত্ব তুলে দেয়া প্রয়োজন।’

এসময় তিনি আরও বলেন, উগ্র ইসলামপন্থীদের হাতে আমরা ইতিমধ্যে ২৩৮টি প্রাণ হারিয়েছি। এবং এ উগ্রদের কারণেই এখানকার সাধারণ মুসলিমরাও হয়রানির শিকার হচ্ছেন। এটা দুঃখজনক।