🕓 সংবাদ শিরোনাম

সাংবাদিক রোজিনা ইসলামকে হেনস্তা ও গ্রেফতারের প্রতিবাদে আমিরাতে সাংবাদিকদের প্রতিবাদ সভারোজিনার সঙ্গে যারা অন্যায় করেছে, তাঁদের জেলে পাঠান: ডা. জাফরুল্লাহকেরানীগঞ্জে ফ্ল্যাট থেকে যুবতীর অর্ধগলিত মরদেহ উদ্ধারপাটগ্রাম সীমান্তে অবৈধভাবে অনুপ্রবেশের দায়ে নারী ও শিশুসহ ২৪জন আটকসাংবাদিকদের ভয় দেখিয়ে সরকার গণমাধ্যমের কণ্ঠরোধ করতে চায়: ভিপি নুরসাংবাদিকদের বিরুদ্ধে মামলা নয়, দুর্নীতিবাজদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিন: হানিফআর এমন ভুল হবে না: নোবেলস্বেচ্ছায় কারাবরণের আবেদন নিয়ে থানায় অনুসন্ধানী সাংবাদিকেরাইসরায়েলি আগ্রাসনের প্রতিবাদে রাস্তায় ঢাবি শিক্ষক সমিতিযমুনা নদীতে ডুবে তিন কলেজ ছাত্রীর মর্মান্তিক মৃত্যু

  • আজ বুধবার, ৫ জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৮ ৷ ১৯ মে, ২০২১ ৷

নিহত জঙ্গি করিম ছুরি দিয়ে গলা কেটে আত্মহত্যা করেছে


❏ রবিবার, সেপ্টেম্বর ১১, ২০১৬ Breaking News, আলোচিত

সময়ের কণ্ঠস্বর ডেস্ক -  নিহত জঙ্গি করিম ছুরি দিয়ে গলা কেটে আত্মহত্যা করেছে । এমনকি রাজধানীর আজিমপুরে  আটক তিন নারীর মধ্যে গুলিবিদ্ধ একজন ছাড়া বাকি দু’জনও আত্মহত্যার চেষ্টা করেছেন বলে জানিয়েছেন ঢাকা মহানগর পুলিশের (ডিএমপি) অতিরিক্ত উপ-কমিশনার (এডিসি) এবং কাউন্টার টেরোরিজম অ্যান্ড ট্রান্সন্যাশনাল ক্রাইম ইউনিটের বোম্ব ডিসপোজাল ইউনিটের প্রধান ছানোয়ার হোসেন।

jonggi-korim

শনিবার (১০ সেপ্টেম্বর) রাতে আজিমপুরের বিজিবি গেট সংলগ্ন জঙ্গি আস্তানায় অভিযান শেষে সাংবাদিকদের তিনি এ কথা জানান। এর আগে, সন্ধ্যা থেকে রাত সোয়া ৯টা পর্যন্ত অভিযান চলে। অভিযানের পর আস্তানায় পাওয়া যায় জঙ্গি করিমের মরদেহ। আহতাবস্থায় উদ্ধার করা হয় তিনজন নারীকে। তাদের ভর্তি করা হয়েছে ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালে।

ছানোয়ার হোসেন বলেন, গুলশান হামলার মাস্টারমাইন্ড তামিম চৌধুরী নারায়ণগঞ্জে নিহত হওয়ার ঘটনার পর আমাদের কাছে তথ্য ছিল, বেশ কয়েকজন জঙ্গি পুরান ঢাকাসহ বিভিন্ন এলাকায় আত্মগোপনে আছে। এ তথ্যের ভিত্তিতে আমরা কাজ শুরু করি। তারই ধারাবাহিকতায় মিরপুরের রূপনগরে অভিযানে মেজর (অব.) জাহিদ নিহত হয়।

“ওই অভিযানের কয়েকদিন আগেই জাহিদের স্ত্রীসহ কয়েকজন রূপনগরের বাসা ছেড়ে চলে আসে। গত ১ সেপ্টেম্বর তারা ওঠে আজিমপুরের এই বাসায়। সূত্রের খবরে সন্ধ্যার দিকে পুলিশ এই বাসায় অভিযানে আসে। এসময় ‍বাসার নিচে একজনকে বাড়ির মালিক কোথায় থাকেন জিজ্ঞেস করা হলে তিনি দোতলার কথা বলেন। তার কথা মতো পুলিশ দোতলায় গিয়ে দরজায় কড়া নাড়লে একজন নারী দরজা খোলেন।”

ছানোয়ার হোসেন বলেন, পুলিশ তারা বাসার মালিক কিনা জানতে চাইলে বুঝে ফেলে। এরপর গ্রেনেড ও মরিচের গুঁড়া নিয়ে হামলা চালায় পুলিশের ওপর। এতে আমাদের পাঁচ সদস্য আহত হন। তখন কাউন্টার টেরোরিজম ইউনিটের আরেকটি ইউনিট ওই বাসার নিচে চলে আসে। তারা এসে বাড়ির কলাপসিবল গেট আটকে দেয় যেন জঙ্গিরা পালিয়ে যেতে না পারে। এরমধ্যে কাউন্টার টেরোরিজম ইউনিটের অ্যান্ডভান্সড টিম স্পটের ‍কাছাকাছি এলে গুলিবিদ্ধ নারী কলাপসিবল গেট খুলে পুলিশের ওপর সশস্ত্র হামলা চালায়। তখন পুলিশও পাল্টা গুলি ছুঁড়লে সে নারী গুলিবিদ্ধ হয়।

ডিএমপির এ কর্মকর্তা জানান, নিহত আবদুল করিম হলেন গুলশান হামলার মাস্টারমাইন্ড তামিম চৌধুরীর ডান হাত। তিনি হলি আর্টিজান বেকারিতে হামলাকারীদের বাসা ভাড়া করে দিয়েছিলেন।

অভিযানের পর ওই বাসার ভেতরের একরুম থেকে ৩টি পিস্তল এবং আরেক রুম থেকে ১টি পিস্তল ও কাগজে মোড়ানো ৫০ রাউন্ড গুলি জব্দ করা হয়েছে বলেও জানান ছানোয়ার হোসেন।