🕓 সংবাদ শিরোনাম

একটা কার্ড করে দেনা বাজান, খেয়ে বাঁচি ! ফুলবাডীতে সামদ্রিক শৈবাল চাষের প্রোজেক্ট পরিদর্শন করলেন অতিরিক্ত বিভাগীয় কমিশনারপটুয়াখালীতে চাল আত্মসাতের মামলায় ইউপি চেয়ারম্যান গ্রেপ্তারসরকার আইন-আদালতকে নিজের সুবিধায় ইচ্ছেমত ব্যবহার করছে -মির্জা ফখরুলআগুন নিয়ে খেলবেন না: নেতানিয়াহুকে হামাসপ্রধানইসরাইলের চেলসিকে হারিয়ে মাঠে ফিলিস্তিনের পতাকা ওড়ালেন ‘বাংলাদেশের’হামজাপ্রবল বেগে ধেয়ে আসছে শক্তিশালী ঘূর্ণিঝড় ‘টিকটিকি’রোহিঙ্গা শিবিরে ডাকাতের গুলিতে রোহিঙ্গা নেতা নিহতশিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে ছুটি বাড়ললকডাউন বাড়ানোর অনুমোদন দিলেন প্রধানমন্ত্রী

  • আজ রবিবার, ২ জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৮ ৷ ১৬ মে, ২০২১ ৷

আবারো সংলাপের আহ্বান জানালো বিএনপি


❏ রবিবার, সেপ্টেম্বর ১১, ২০১৬ Breaking News, জাতীয়

ঠাকুরগাঁও প্রতিনিধি – রাজনৈতিক সংকট নিরসনে আবারো সংলাপের আহ্বান জানিয়ে বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেছেন, ‘সরকারের উচিত হবে দ্রুত আলোচনার মধ্য দিয়ে একটা সুষ্ঠু সমাধানের মাধ্যমে রাজনৈতিক দলগুলোর সংকট নিরসন করা। বিরোধী দলকে নিশ্চিহ্ন করে দেওয়ার প্রক্রিয়া শুরু করেছে যা দেশের জন্য, জাতির জন্য ও আওয়ামী লীগের জন্যও মঙ্গলকর হবে না।’

আজ রোববার দুপুরে ঠাকুরগাঁওয়ে নিজ বাসভবনে সাংবাদিকদের সঙ্গে মতবিনিময়ের সময় এসব কথা বলেন তিনি।

মির্জা ফখরুল বলেন, বাংলাদেশকে অকার্যকর জঙ্গিরাষ্ট্রে পরিণত করবার জন্য আওয়ামী লীগই কাজ করছে। তারা জঙ্গিবাদের প্রশ্রয় দিচ্ছে। এ সরকার জনগণের প্রতিনিধিত্ব করে না। জঙ্গিবাদের নাম করে গ্রামের সাধারণ মানুষদের হয়রানী করা হচ্ছে বলে অভিযোগ করেন বিএনপির মহাসচিব।

তিনি আরো বলেন, বাংলাদেশকে একটি অকার্যকর জঙ্গি রাষ্ট্রে পরিণত করতে এ সরকার সবচেয়ে বড় কাজ করেছে। আজকে এই জঙ্গিবাদকে যারা প্রশ্রয় দিচ্ছে তাদের বিরুদ্ধে সুষ্ঠু তদন্ত হওয়া উচিত। যদি সঠিক তদন্ত না হয় তাহলে আমরা জঙ্গিবাদের শেকড়ে গিয়ে পৌঁছাতে পারব না। এজন্য বাংলাদেশের সব দলমতের মানুষকে একত্রিত করে এর বিরুদ্ধে প্রতিরোধ গড়ে তুলতে হবে।

fokhrul

ফখরুল বলেন, সরকার গণতান্ত্রিক প্রতিষ্ঠানগুলোকে একে একে ভেঙে ফেলে একদলীয় শাসন ব্যবস্থা গড়ে তোলার জন্য আট ঘাট বেঁধে নেমেছে। তারা সবার আগে আঘাত করে সংবাদমাধ্যমকে নিয়ন্ত্রণের চেষ্টা করছে। আইনশৃঙ্খলা বাহিনী ও প্রশাসনকে দলীয় স্বার্থে ব্যবহার করছে। গণতন্ত্রকে ধ্বংস করার জন্য বড় অস্ত্র হিসেবে ব্যবহার করছে। তারা বিচার ব্যবস্থাকে নিয়ন্ত্রণ করায় মানুষের আস্থা বিচার বিভাগ থেকে নষ্ট হয়ে গেছে।

এ সময় আরো উপস্থিত ছিলেন জেলা বিএনপির সহসভাপতি সুলতানুর ফেরদৌস নম্র, সাধারণ সম্পাদক তৈমুর রহমান, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল্লাহ মাসুদ প্রমুখ।

এই বিভাগ থেকে আরও পড়ুন :