ঈদে কাজের ফাঁকেই হোক একটুখানি নিজের যত্ন


❏ রবিবার, সেপ্টেম্বর ১১, ২০১৬ লাইফস্টাইল

ঈদের সাজ

আফসানা নিশি, লাইফস্টাইল কন্ট্রিবিউটার, সময়ের কণ্ঠস্বর। মেয়েরা এমনিতে শপিং প্রিয় হয়ে থাকে। তাই ঈদে যে কেনাকাটা একটু বেশি হবে তার কোন সন্দেহ নেই। কিন্তু এই কেনাকাটার তালে পড়ে বেতাল হয়ে যাচ্ছে না তো সব কিছু? রোদে ঘোরাঘুরি করে যখন কেনাকাটা করছেন তখন কি নিজের ত্বকের কথা চিন্তা করছেন?  নাকি কেনাকাটার আনন্দে সেটা মাথা থেকে বেরিয়েই গেছে! রোদে ঘেমে যদি আপনার চুল আর ত্বকের বারটা বেজে যায় তবে সুন্দর পোশাকগুলো কি আর আপনার শরীরে মানাবে। তাই তো ঈদের হাজারো কাজের মাঝে নিজের সাজকে ঠিক রাখতে ত্বক ও চুলের যত্ন নিতে হবে এখন থেকে। ঈদের আগের ঘরে বসে কিভাবে নিজের যত্ন নেবেন দেখে নিন।

ত্বকের যত্ন:সৌন্দর্যের কথা বললে সবার প্রথমে যে কথাটা মনে আসে তা হলো মুখ। কথায় আছে সুন্দর মুখের জয় সর্বত্র। ঈদের দিনে নিজের সাজ টাকে সুন্দর রাখতে ত্বককে সুন্দর করতেই হবে। সেটা আপনি করতে পারেন ঘরে বসে বা পার্লারে গিয়ে।ঘরে বসে ত্বকের যত্নের কিছু টিপস:

শুষ্ক ত্বকের যত্বে:৪ টা আমন্ড বাদাম পানিতে ভিজিয়ে রাখুন। ঘুমাতে যাওয়ার আগে বাদামগুলোর পেস্ট তৈরি করে এর সাথে দুধ মিশিয়ে মুখে ও গলায় লাগান। সকাল উঠে ঠান্ডা পানি দিয়ে ধুয়ে ফেলুন। এই প্যাকটি আপনার ত্বক ফর্সা ও কোমল করবে।

তৈলাক্ত ত্বকের যত্নে:১ টা পাকা কলা,১ চা চামচ মধু,১/২ চা চামচ লেবু/কমলার রস ভাল করে ব্লেন্ড করে নিন। মুখে লাগিয়ে ১৫ মিনিট পর ধুয়ে ফেলুন। কলা ত্বকের কালো দাগ দূর করবে ও ত্বক নরম করবে।

স্বাভাবিক ত্বকের যত্নে:১ টি পাকা টমেটোর রসের সাথে ৩ ফোঁটা লেবুর সব দিয়ে মুখে লাগান। ১৫ মিনিট পর ধুয়ে ফেলুন।ত্বক নরম ও উজ্জ্বল হবে।

চুলের যত্ন:আপনি যদি নিজের চুলে নতুন কাটিং করতে চান তবে সেটা ঈদের ৭ দিন আগে করে নিন। কারণ নতুন কাটিং মুখের সাথে মানিয়ে নিতে কিছুটা সময় লাগে। ৭ দিন আগে কাটিং করলে ঈদের দিন সেটা অস্বাভাবিক লাগবে না। পার্লারে গিয়ে হেয়ার স্পা করতে পারেন।চুলের যত্নে কিছু টিপস।

১।১ টা ডিম,২ টেবিল চামচ অলিভ অয়েল,১ টেবিল চামচ দুধ,১ চা চামচ মধু ভাল করে মিশিয়ে চুলে লাগান। ১ ঘন্টা রেখে শ্যাম্পু করে ফেলুন। এটি আপনার চুলের গোড়ায় পুষ্টি যোগাবে এবং চুলকে করবে ঝরঝরে।

২।ঈদের আগের দিন মেথি গুড়া বা টক দই এর সাথে ডিম মিশিয়ে চুলে লাগান। ১ ঘন্টা পর শ্যাম্পু করে ফেলুন। রাতে চুলে তেল দিয়ে ঘুমাবেন। সকালে আবার শ্যাম্পু করে ফেলুন।চুল অনেক ঝরঝরে হবে।  রোদে গেলে চকচক করবে।

ঠোঁটের যত্নে:সুন্দর মুখের সাথে মিল রেখে চাই কোমল গোলাপী ঠোঁট। তার জন্য একটু যত্ন নিতে হবে। তাহলে টিপসগুলো দেখে নিন।

১।১/২ চা চামচ মধু,চিনি ও অলিভ মিশিয়ে নিন। ঠোঁটে লাগিয়ে শুকান ও হালকা হাতে ম্যাসাজ করে ধুয়ে ফেলুন।

২।রাতে ঠোঁটে মধু লাগিয়ে ঘুমান। সকালে কটন দিয়ে হালকা ঘষে নিয়ে ধুয়ে ফেলুন। এটি ঠোঁটের মরা কোষ ঝরিয়ে ঠোঁটকে গোলাপী করবে।

৩।তাজা গোলাপের পাপড়ির রস ও মধু মিশিয়ে ঠোঁটে লাগান।

চোখের যত্ন:ভ্রু প্লাক করুন ঈদের ৩ দিন আগে।তাহলে সেটা ঈদের দিন পর্যন্ত ঠিক থাকবে। সব কিছু করার পর যদি চোখের নিচে কালো দাগ থেকে যায় তবে কি সুন্দর লাগবে? তাই চোখের নিচে যদি কালো দাগকে টাটা বলুন আর ঈদের দিন চোখ দুটোকে আকর্ষনীয় করে সাজিয়ে সবার নজর কেড়ে নিন।

১।পুদিনা পাতা বেটে চোখের কালো জায়গায় লাগান।

২।আমন্ড পানিতে ভিজিয়ে রেখে পেস্ট করে চোখে লাগান।চোখের কালো দাগ সারাতে এটি সব থেকে ভাল কার্যকরি।

হাত-পায়ের যত্ন:সব কিছুর সাথে হাত-পায়ের সৌন্দর্য ধরে রাখতে ঈদের আগে দুদিন পার্লারে গিয়ে মেনিকিউর-পেডিকিউর করতে হবে। চাইলে ঘরে বসে করতে পারেন ।১ গামলা কুসুম গরম পানিতে শ্যাম্পু ও লবন দিয়ে মিশিয়ে হাত ও পা ডুবিয়ে রাখুন। ব্রাশ দিয়ে ঘষে পরিষ্কার করে নিন। অনেকের নখ ভেঙ্গে যাওয়ার সমস্যা থাকে। বড় করে রাখা স্বাধের নখগুলো যদি ঈদের আগে ভেঙ্গে যায় তবে কিভাবে নেইল আর্ট করবে। তাই এখন থেকে নখের যত্ন নিন। নখে নিয়মিত অলিভ অয়েল লাগান, নখ শক্ত হবে। তাছাড়া ফিটকিরি পানিতে ভিজিয়ে সেই পানিতে নখ ডুবিয়ে রাখুন। নখ অনেক শক্ত হবে এবং ভাঙ্গবে না।

এবার ঝটপট নিজের যত্ন নিন আর ঈদের দিন সুন্দর করে সাজিয়ে তুলুন নিজেকে। একটু যত্ন নিলে হয়তো বন্ধুদের সন্ধ্যার ঈদ পার্টিতে আপনি হয়ে যেতে পারেন “ঈদ বিউটি কুইন”। সবাই হয়তো ব্যস্ত থাকবে আপনার সৌন্দর্যের প্রশংসা করতে।