🕓 সংবাদ শিরোনাম

কক্সবাজারে বিপুল সিগারেটসহ ৩ যুবক আটককর্ণফুলী থানার পাশেই ছুরিকাঘাতে যুবক খুন সাংবাদিক রোজিনা ইসলামকে হেনস্তা করায়  ‘মিডিয়া এডুকেটরস নেটওয়ার্ক’ এর প্রতিবাদসাংবাদিক রোজিনা ইসলামকে হেনস্তা ও গ্রেফতারের প্রতিবাদে আমিরাতে সাংবাদিকদের প্রতিবাদ সভারোজিনার সঙ্গে যারা অন্যায় করেছে, তাঁদের জেলে পাঠান: ডা. জাফরুল্লাহকেরানীগঞ্জে ফ্ল্যাট থেকে যুবতীর অর্ধগলিত মরদেহ উদ্ধারপাটগ্রাম সীমান্তে অবৈধভাবে অনুপ্রবেশের দায়ে নারী ও শিশুসহ ২৪জন আটকসাংবাদিকদের ভয় দেখিয়ে সরকার গণমাধ্যমের কণ্ঠরোধ করতে চায়: ভিপি নুরসাংবাদিকদের বিরুদ্ধে মামলা নয়, দুর্নীতিবাজদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিন: হানিফআর এমন ভুল হবে না: নোবেল

  • আজ বুধবার, ৫ জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৮ ৷ ১৯ মে, ২০২১ ৷

দূর্ভোগের ঈদ যাত্রায় পঞ্চম দিনেও ঢাকা-টাঙ্গাইল ও চন্দ্রা-নবীনগর মহাসড়কে তীব্র যানজট


❏ রবিবার, সেপ্টেম্বর ১১, ২০১৬ ঢাকা

আলমগীর হোসেন, কালিয়াকৈর (গাজীপুর) প্রতিনিধি : রবিবার পঞ্চম দিনের মত ভোর থেকে দুপুর পর্যন্ত ঢাকা-টাঙ্গাইল ও চন্দ্রা-নবীনগর মহাসড়কে ছিল তীব্র যানজট। যার ফলে ঈদের আনন্দ ভাগাভাগি করতে যাওয়া হাজারো মানুষকে পোহাতে হয়েছে দূর্ভোগ আর ভোগান্তি।

হাইওয়ে পুলিশ সূত্র জানিয়েছে, সকাল থেকে উত্তরবঙ্গের ঘরমূখো হাজারো মানুষের চাঁপ বেড়ে যায়। যার ফলে মহাসড়কে অতিরিক্ত যানবাহনের চাঁপ বেড়ে যায়। সেই সাথে উত্তরবঙ্গ থেকে রাজধানীর গাবতলী পশুর হাট সহ বিভিন্ন হাটে কোরবানীর পশু বোঝাই ট্রাক পশু নামিয়ে দিয়ে তার পুনরায় ফিরতে থাকে। এসব ট্রাকের মাত্রা ছিল অতিরিক্ত। ফলে মহাসড়কে বাস ও ট্রাকের অতিরিক্ত মাত্রার জন্য মহাসড়কে যানজটের সৃষ্টি হয়।

এছাড়া ঢাকা-টাঙ্গাইল মহাসড়কের ৮/৯টি পয়েন্টে যানবাহন বিকল ও সড়ক দূর্ঘটনার কারণেও যানজটের সারি দীর্ঘ লক্ষ করা গেছে। এতে চরম ভোগান্তি আর দূর্ভোগে পড়তে হয়েছে নাড়ীর টানে ঘরে ফেরা ঈদে ঘরমূখো হাজারো যাত্রীদের।

নাড়ীর টানে ঈদে ঘরমুখো মানুষ বাসের ছাদে, ট্রাকের ভিতর সামিয়ানা টানিয়ে গরমকে উপেক্ষা করে বাড়ি ফিরতে দেখা গেছে। যানজটের কারণে সঠিক সময়ে নির্ধারিত বাস না আসায় বাড়ি যাওয়া নিয়ে শঙ্কায় বসে থাকতে দেখা গেছে মানুষদেরকে। অনেকে আবার টিকিট ক্রয় করেও তারা এখনো নিশ্চিত নয় যে আদৌ তারা বাড়ি যেতে পারবে কিনা। বেশী সমস্যায় পড়েছে নারী ও শিশুরা।

jamসকাল থেকে দুুপুর পর্যন্ত ঢাকা-টাঙ্গাইল মহাসড়কে যানবাহনগুলোকে স্থীরভাবে দাড়িয়ে থাকতে দেখা গেছে। আবার কোন কোন স্থানে কচ্ছপ গতিতে যানবাহন চলতে দেখা গেছে। তবে দুপুরের পর থেকে ধীর গতিতে যানবাহন চলাচল শুরু করে এবং বিকেল সাড়ে ৪টার পর থেতে ঢাকা-টাঙ্গাইল মহাসড়কে যানবাহন চলাচলা মোটামোটি স্বাভাবিক হতে দেখা গেছে।

মানিকগঞ্জ থেকে ছেড়ে আসা রাজশাহীগামী সুমন এন্ড সুমা এন্টারপ্রাইজের এক ট্রাক চালক মোঃ রতন মিয়া জানান, মানিকগঞ্জ থেকে চন্দ্রা আসতে তার ৪ ঘন্টার মত সময় লেগেছে। তবে চন্দ্রা-নবীনগর মহাসড়কের জিরানী বাজার থেকে কবিরপুর পর্যন্ত প্রায় ২ কিলোমিটার রাস্তা যানজট ছিলনা। আবার বাড়ইপাড়ার আগে এসেই যানজটে পড়তে হয়েছে।

নয়ারহাট থেকে ছেড়ে আসা বগুড়াগামী মায়া এন্টারপ্রাইজের অপর এক ট্রাক চালক মোঃ মাহমুদুন নবী জানান, নয়ারহাট থেকে চন্দ্রা আসতে প্রায় সাড়ে ৩ঘন্টার মত সময় লেগেছে। কখন সে গন্তব্যস্থলে পৌছাতে পারবে বলতে পারছেন না।

সালনা হাইওয়ে থানার ওসি মোঃ হোসেন সরকার জানান, ঢাকা-টাঙ্গাইল মহাসড়কের ৮/৯টি পয়েন্টে যানবাহন বিকল হয়ে পড়ে। ফলে ওই মহাসড়কে যান চলাচল বন্ধ হয়ে যায় এবং দীর্ঘ যানজটের সৃষ্টি হয়। এছাড়া গাবতলী সহ রাজধানীর বিভিন্ন এলাকা থেকে কোরবানীর পশুবাহী ট্রাক পশু নামিয়ে খালি করে ফিরতে শুরু করেছে। যার ফলে মহাসড়কে অতিরিক্ত ট্রাকের যাতায়াত ও প্রচুর যানবাহনের কারণে যানজটের সৃষ্টি হয়। তবে এ যানজট দুপুরের পরে ছিলনা। দুপুরের পরে যানবাহ চলাচল স্বাভাবিক লক্ষ করা গেছে।