বেশি বৃষ্টি না হলে ঈদগাহে ছাতা আনবেন না • পুলিশ


❏ সোমবার, সেপ্টেম্বর ১২, ২০১৬ আলোচিত

সময়ের কণ্ঠস্বর-

নিরাপত্তা ও তল্লাশির স্বার্থে র‌্যাবের মত ঢাকা মহানগর পুলিশ-ডিএমপিও ঈদগাহে জায়নামাজ ছাড়া অন্য কিছু না আনতে মুসল্লিদেরকে অনুরোধ করেছে। বাহিনীটি বলেছে, বেশি বৃষ্টি না হলে ছাতা আনা যাবে না।

2563


ঈদের আগের দিন সকালে জাতীয় ঈদগাহ ময়দানের নিরাপত্তা ব্যবস্থা পরিদর্শন শেষে সাংবাদিকদের এ কথা বলেন ঢাকা মহানগর পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কমিশনার শাহাবউদ্দিন কোরেশি। তিনি জানান, জঙ্গি হামলার কথা মাথায় রেখে এবার চার স্তরের নিরাপত্তার ব্যবস্থা থাকবে ঈদগাহ ময়দানে। মঙ্গলবার এখানে ঈদের প্রথম জামাত হবে সকাল আটটায়। রাষ্ট্রপতি আবদুল হামিদসহ সরকার ও রাষ্ট্রের গণমান্য ব্যক্তিরাও এখানে নামাজ আদায় করেন। তাই নিরাপত্তার জন্য কড়াকড়ি থাকে সব সময়। তবে সাম্প্রতিক জঙ্গি তৎপরতার কথা মাথায় রেখে এবার এই কড়াকড়ি আরও বেড়েছে। এরই মধ্যে জাতীয় ঈদগাহ ময়দানে জামাতের জন্য প্রস্তুতি শেষ হয়েছে। পুরা ময়দানে টাঙানো হয়েছে সামিয়ানা। মুসুল্লিদের নামাজ পড়ার জন্য মাটিতে বিছানো হয়েছে বিছানো ত্রিপল ও কার্পেট। স্থাপন করা হয়েছে চিকিৎসা কেন্দ্র।

ঈদুল ফিতরের সময় দেশের বৃহত্তর জামাত কিশোরগঞ্জের শোলাকিয়ায় জঙ্গি হামলার চেষ্টা হয়েছে। এবারের নিরাপত্তার আয়োজনে সে অভিজ্ঞতাও মাথায় রেখেছে আইনশৃঙ্খলা বাহিনী। এরই মধ্যে জাতীয় ঈদগাহের প্রবেশপথে এরই মধ্যে বসানো হয়েছে আর্চওয়ে, মোতায়েন করা হয়েছে ডগ স্কোয়াগ। গত দুই দিন ধরেই তারা মাঠে তল্লাশি চালিয়েছে। এবার ঈদে দায়িত্ব পালন করবে বোমা নিষ্ক্রিয়কারী দলও। ডিএমপির ভারপ্রাপ্ত কমিশনার বলেন, ‘সব ঈদগাহে মেটাল ডিটেক্টর, হ্যান্ড মেটাল ডিটেক্টর দিয়ে তিনধাপে তল্লাশি হবে। তল্লাশি চৌকিতে কোনো ব্যাগ নিতে দেয়া হবে না। বৃষ্টি না হলে ছাতা পরিহার করতে অনুরোধ করছি।’

এই পুলিশ কর্মকর্তা বলেন, কেন্দ্রীয় ঈদগাহ ময়দানের আশেপাশে চারটি পয়েন্ট- পল্টনের ইউসিবিএল ক্রসিং, দোয়েল চত্বর, মৎস ভবন ও সরকারি কর্মচারি হাসপাতাল পয়েন্টের পর কোন যানবাহন প্রবেশ করতে দেয়া হবে না।’ ঈদগাহ ময়দানের আশেপাশে এবার ভিক্ষুক ও হকার বসতে দেয়া হবে না বলেও জানান ডিএমপির ভারপ্রাপ্ত কমিশনার। তিনি বলেন, ‘ঈদ ও পরবর্তী সময়ে রাজধানীর নিরাপত্তার জন্য মোড়ে মোড়ে তল্লাশি চৌকি বসানো হয়েছে। সেখানে পুলিশের যাকে সন্দেহ হবে তাকে তল্লাশি করা হবে। এছাড়াও সাদা পোশাকে গোয়েন্দারা মোতায়েন থাকবে।’