• আজ রবিবার,২৬ বৈশাখ, ১৪২৮ ৷ ৯ মে, ২০২১, রাত ৮:৩৭

পৈশাচিক কায়দায় খুন হওয়া অন্তঃসত্ত্বা স্ত্রী ও স্বামী দুইজনের লাশ মিললো পাশাপাশি দুই পুকুরে!

❏ বুধবার, সেপ্টেম্বর ১৪, ২০১৬ Breaking News, Uncategorized, অকালমৃত্যু প্রতিদিন, ফিচার, স্পট লাইট

খুলনা প্রতিনিধি-

ঈদের রাতে তিনসন্তানকে বাসায় রেখে অন্তঃসত্ত্বা মা তার স্বামীকে নিয়ে গিয়েছিলেন পাশের গ্রামেই। দু-এক ঘন্টার মধ্যেই ফিরে আসার কথা ছিল তাদের। কিন্তু রাত গভীর হয়, বাসায় ফেরেনা বাব্বা-মা কেওই । বাড়িতে থাকা তিন সন্তানের কান্না শুরু হয়েছিলো ঈদের দিন গভীর রাত থেকেই। সে কান্না বুকফাটা আর্তনাদে রুপ নেয় বুধবার সকাল গড়িয়ে। রাত থেকেই উদ্বিগ্ন স্বজনেরা সম্ভাব্য সব জায়গায় খুজছিলেন তাদের অবশেষে মঙ্গলবার ঈদের রাতে নিখোঁজ হওয়া স্বামী-স্ত্রীর ক্ষত-বিক্ষত লাশ উদ্ধার হয় গ্রামের মসজিদের পাশাপাশি দুটি  নির্জন পুকুরে।

খুলনায় অন্তঃসত্ত্বা স্ত্রী ও স্বামীকে নির্মম কায়দায়  হত্যার পর লাশ পুকুরে ফেলে পালিয়েছে একদল দুর্বৃত্ত। প্রত্যক্ষ্যদর্শী ও পুলিশ জানিয়েছেন তাদের দুজনেরই পেট কাটা ছিল। নিহত গৃহবধূ অন্তঃসত্ত্বা ছিলেন বলে পুলিশ জানিয়েছে।
আজ বুধবার ১৪ ই সেপ্টেম্বর তেরখাদা উপজেলার ইখড়ী গ্রামের দুটি পুকুর থেকে  এ দুজনের লাশ উদ্ধার করা হয়। এসময় লাশ দেখতে আশে পাশের এলাকা থেকে হাজারো মানুষ ছুটে আসেন। এই ঘটনায় পুরো এলাকাজুড়ে ছড়িয়ে পড়েছে আতংক।

নিহতরা হলেন- স্ত্রী লিপি বেগম (৩০) ও স্বামী খসরুল আলম মোল্লা ওরফে খায়রুল (৪০) । নিহত দম্পত্তির তিন সন্তান রয়েছে । নিহত খসরুল পিলার ব্যবসার সঙ্গে জড়িত ছিলেন। ব্যাবসা সংক্রান্ত ঝামেলায় এই হত্যাকান্ডের ঘটনা ঘটতে পারে বলে ধারনা করছেন স্থানীয়রা ।

death-body-14-sep

এ ঘটনায় প্রাথমিক সন্দেহের প্রেক্ষিতে  জিজ্ঞাসাবাদের জন্য পুলিশ মো. কামাল (২৪) ও আরজ আলী ওরফে রসুল (৩০) নামে দুই যুবককে আটক করেছে।

মামলার প্রাথমিক তদন্তের বরাত দিয়ে তেরখাদা থানার ওসি মেসবাহ উদ্দিন সময়ের কণ্ঠস্বরকে জানান, ঈদের দিন রাতে ইখড়ী উত্তরপাড়ার আরজ আলী, কামাল ও তরিকুলের কাছে যাওয়ার কথা বলে বাড়ি থেকে বের হন খসরুল ও লিপি। এরপর তারা আর বাড়ি ফিরে আসেননি।

ওসি আরও জানান, আজ বুধবার সকালে স্থানীয়দের কাছে খবর পেয়ে পুলিশ বাড়ির পাশের মসজিদের দুটি পুকুর থেকে তাদের মৃতদেহ উদ্ধার করে।খসরুল আলম মোল্লার গলায় রশি ও স্ত্রীর গলায় ওড়না বাঁধা এবং দুজনেরই পেট কাটা ও নারিভুঁড়ি বের করা ছিল। এছাড়া শরীরের বিভিন্ন স্থানে আঘাত ও কাটার চিহ্ন রয়েছে।

লাশ ময়নাতদন্তের জন্য খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে বলে জানান তিনি।