ক্রমেই বাড়ছে হিলারিকে নিয়ে উদ্বেগ উৎকণ্ঠা

❏ বুধবার, সেপ্টেম্বর ১৪, ২০১৬ আন্তর্জাতিক

আন্তর্জাতিক ডেস্কঃ হিলারি শারীরিকভাবে পুরোপুরি সুস্থ নন, অতএব তিনি প্রেসিডেন্ট হওয়ার অযোগ্য, রিপাবলিকান প্রার্থী ডোনাল্ড ট্রাম্প এমন কথা কয়েক সপ্তাহ ধরেই বলে আসছেন।

হিলারি কেন তাঁর অসুস্থতার কথা কাউকে জানাননি, সিএনএনের এমন এক প্রশ্নের জবাবে হিলারি নিজে বলেছেন, বড় কোনো অসুখ নয়, এই বিপত্তি তিনি কাটিয়ে উঠতে পারবেন, এমন বিশ্বাস তাঁর ছিল। ‘শুক্রবার আমাকে পাঁচ দিন বিশ্রাম নেওয়ার পরামর্শ দেওয়া হয়, কিন্তু আমি তা কানে তুলিনি,’ হিলারি বলেন। তিনি দাবি করেন, ট্রাম্পের তুলনায় নিজের স্বাস্থ্য বিষয়ে তিনি অনেক বেশি স্বচ্ছ।

মার্কিন প্রেসিডেন্ট নির্বাচনের বাকি আর মাত্র ৫৪ দিন। ঠিক এই সময় হঠাৎ নিউমোনিয়ায় অসুস্থ হয়ে পড়ায় হিলারি ক্লিনটনের পক্ষে নির্বাচনী প্রচারে অংশ নেওয়া সম্ভব হচ্ছে না। ঠিক কত দিন তিনি অসুস্থ থাকবেন, সে কথাও স্পষ্ট নয়। যদিও তাঁর স্বামী সাবেক প্রেসিডেন্ট বিল ক্লিনটন এই বলে আশ্বস্ত করেছেন যে খুব শিগগির হিলারি নির্বাচনী প্রচারে ফিরে আসবেন। প্রেসিডেন্ট ওবামাও গতকাল মঙ্গলবার ফিলাডেলফিয়ায় হিলারির পক্ষে এক নির্বাচনী প্রচারে অংশগ্রহণের সময় একই কথা বলে ডেমোক্রেটিক সমর্থকদের উদ্বেগ প্রশমনের চেষ্টা করেন।

hilari-anoএখন হঠাৎ করে নিউমোনিয়ায় আক্রান্ত হওয়ায় ডেমোক্রেটিক পার্টির ভেতরেই হিলারির ব্যাপারে সন্দেহে জাগছে। সত্যি সত্যি যদি হিলারি বড় ধরনের কোনো অসুখে পড়ে যান, তাহলে কী হবে, এমন প্রশ্নও ডেমোক্রেটিক মহলে উঠেছে। দলের সাবেক চেয়ারম্যান ডন ফাওলার কিছুটা উদ্বিগ্ন হয়েই বলেছেন, কোনো বিপত্তি যদি নাও ঘটে, নিজেদের রাজনৈতিক স্বার্থেই একটি বিকল্প প্রার্থিতা এখনই ভেবে রাখা দরকার। এ ব্যাপারে নেতৃত্ব দানের জন্য তিনি ওবামা ও কংগ্রেসে দলের নেতাদের প্রতি আবেদন জানিয়েছেন। রাজনৈতিক ওয়েব পত্রিকা ‘পলিটিকো’কে তিনি বলেছেন, ‘অবিলম্বে, আজ (মঙ্গলবার) সন্ধ্যা ছয়টার মধ্যেই এ ব্যাপারে সিদ্ধান্ত নেওয়া উচিত।’
হিলারি সব ব্যাপারে গোপনীয়তা বজায় রাখতে চান, সে কারণে তাঁর ব্যাপারে ভোটারদের মনে এমনিতেই বিশ্বাসের অভাব রয়েছে। ডেমোক্রেটিক জনমত জরিপ বিশেষজ্ঞেরা মনে করছেন, নিউমোনিয়ার কোনো লক্ষণ তিনি আগেভাগে জানাননি, এতে হিলারির প্রতি আস্থাহীনতা আরও বাড়তে পারে। ওবামার সাবেক উপদেষ্টা ডেভিড এক্সেলরড এক টুইটার বার্তায় ক্রুদ্ধভাবে লিখেছেন, অ্যান্টিবায়োটিক খেলে হিলারি নিউমোনিয়া থেকে সুস্থ হবেন, কিন্তু সব ব্যাপারে অতি গোপনীয়তা অবলম্বনে তাঁর যে প্রবণতা রয়েছে, তা থেকে সুস্থ হবেন কী করে?

কোনো প্রার্থী যদি স্বাস্থ্যগত কারণে নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতায় অক্ষম হন, তাহলে স্বেচ্ছায় সরে দাঁড়ানোর ব্যবস্থা ডেমোক্রেটিক পার্টির নীতিমালায় রয়েছে। তেমন অবস্থায় দলের প্রধানকে একজন বিকল্প প্রার্থী মনোনয়নের জন্য ‘বিশেষ সভা’ ডাকার ক্ষমতা দেওয়া হয়েছে। ডেমোক্রেটিক পার্টির ভারপ্রাপ্ত প্রধান ডোনা ব্রাজিল অবশ্য এমন জল্পনাকল্পনা এককথায় বাতিল করে দিয়েছেন। তিনি জানিয়েছেন, হিলারি সুস্থ বোধ করছেন এবং খুব শিগগিরই প্রচারে ফিরে আসবেন।