সংবাদ শিরোনাম

পণ্যবাহী ট্রাক-মাইক্রোবাসের মুখোমুখি সংঘর্ষে নিহত-১খালেদার জিয়ার শারীরিক অবস্থার উন্নতি নেই, হয়নি বিদেশ যাওয়ার সিদ্ধান্তওপ্রধানমন্ত্রী কোরআন-সুন্নাহর বাইরে কিছু করেন না: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীমির্জাপুরে গণহত্যা দিবস উপলক্ষে মোমবাতি প্রজ্জ্বলনশনিবার থেকে ঝড়-বৃষ্টির সম্ভাবনাস্পুটনিক-৫ টিকা একে-৪৭’র মতো নির্ভরযোগ্য: পুতিনডোপটেস্টো রিপোর্ট: স্পিডবোটের চালক শাহ আলম মাদকাসক্তচাঁদপুরে ঐতিহাসিক বড় মসজিদে লক্ষাধিক মুসল্লির সালাতে ‘জুমাতুল বিদা’ রাঙামাটিতে ডিবির অভিযানে ইয়াবাসহ দুই চিহ্নিত মাদক ব্যবসায়ী আটক! আনসার ব্যাটালিয়ান সদস্যদের সঙ্গে স্থানীয়দের সংঘর্ষ : নারীসহ ৯জন আহত

  • আজ ২৫শে বৈশাখ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ

হিলারিকে সুস্থ আখ্যা দিয়ে যা বললেন তার চিকিৎসক

৯:২০ অপরাহ্ন | বৃহস্পতিবার, সেপ্টেম্বর ১৫, ২০১৬ আন্তর্জাতিক

আন্তর্জাতিক ডেস্ক-

যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট হিসেবে দায়িত্ব পালনের জন্য হিলারি ক্লিনটন ‘সুস্থ ও কর্মক্ষম’ আছেন বলে জানিয়েছেন তার চিকিৎসক।

hillary-clinton55


বিবিসি বলছে, প্রচারণা শিবিরের প্রকাশ করা হিলারির সর্বশেষ মেডিকেল তথ্যের সঙ্গে দেওয়া এক বিবৃতিতে তার চিকিৎসক এ কথা বলেছেন।

ওই বিৃবতিতে বলা হয়, যুক্তরাষ্ট্রের আসন্ন প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে ডেমোক্র্যাট দলীয় প্রার্থী নিউমোনিয়া থেকে ‘দ্রুত সেরে উঠছেন’।

একটি মেডিক্যাল চ্যাট শো’তে রিপাবলিকান পার্টির প্রার্থী ডোনাল্ড ট্রাম্প নিজের স্বাস্থ্যগত তথ্য প্রকাশ করার পর হিলারির স্বাস্থ্যগত তথ্য প্রকাশ করা হয়।

হিলারির সহযোগীরা জানিয়েছেন, বৃহস্পতিবার ফের নির্বাচনী প্রচারণায় যোগ দেবেন তিনি।

শুক্রবার হিলারির নিউমোনিয়া ধরা পড়ে। তখন এ তথ্য প্রকাশ করা হয়নি। কিন্তু রোববার নিউ ইয়র্কে বিশ্ব বাণিজ্য কেন্দ্রে হামলার ১৫তম বার্ষিকীর স্মরণ অনুষ্ঠানে ভারসাম্য হারিয়ে মূর্ছা যাওয়ার মতো পরিস্থিতি তৈরি হলে হিলারির অসুস্থতার খবর প্রকাশ পায়।

উভয় প্রার্থীই প্রেসিডেন্ট পদের জন্য প্রতিদ্বন্দ্বিতাকারী যুক্তরাষ্ট্রের সবচেয়ে বয়সী প্রার্থীদের তালিকায় আছেন। উভয়েই নিজেদের স্বাস্থ্যগত তথ্য প্রকাশ করার বিষয়ে প্রবল চাপের মধ্যে আছেন। ৯/১১ অনুষ্ঠানে হিলারি অসুস্থ হয়ে পড়ার পর থেকেই যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট নির্বাচনের পরিবেশ নিয়ন্ত্রণ করছে স্বাস্থ্যগত ইস্যু।

বুধবার হিলারির প্রচারণা শিবির জানায়, পুরো শরীর পরীক্ষায় হিলারির সবকিছু ‘স্বাভাবিক’ ও মানসিকভাবে তিনি ‘অসাধারণ অবস্থায়’ রয়েছেন বলে দেখতে পান চিকিৎসক।

ডাক্তার লিসা বারদাক বলেন, “অ্যান্টিবায়োটিক ও বিশ্রামের কল্যাণে হিলারি দ্রুত সুস্থ হয়ে উঠছেন।”

প্রচারণা শিবির জানিয়েছে, শুক্রবার করা চেস্ট স্ক্যানে হিলারির ‘মৃদু, অসংক্রামক ব্যাক্টেরিয়াল নিউমোনিয়া’ ধরা পড়ে।

বর্তমানে তিনি তার নিউ ইয়র্কের বাড়িতে বিশ্রামে আছেন। তাকে লেভাকুয়িন নামের অ্যান্টিবায়োটিক দেওয়া হচ্ছে ও ১০ দিন বিশ্রামে থাকার পরামর্শ দেওয়া হয়েছে।

নিজের বিবৃতিতে চিকিৎসক বারদাক বলেন, “তিনি সুস্থ হয়ে উঠছেন এবং যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট হিসেবে দায়িত্বপালনের জন্য সক্ষম (শারীরিকভাবে) আছেন।”

তবে কবে থেকে তিনি ওষুধ খাওয়া শুরু করেছেন তা বিবৃতিতে উল্লেখ করা হয়নি।

হিলারির ব্লাড প্রেসার ও শরীরে কলেস্টরলের পরিমাণ স্বাভাবিক মাত্রায় আছে বলে এতে জানানো হয়েছে।

ওই বিৃবতিতে বলা হয়, যুক্তরাষ্ট্রের আসন্ন প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে ডেমোক্র্যাট দলীয় প্রার্থী নিউমোনিয়া থেকে ‘দ্রুত সেরে উঠছেন’।

একটি মেডিক্যাল চ্যাট শো’তে রিপাবলিকান পার্টির প্রার্থী ডোনাল্ড ট্রাম্প নিজের স্বাস্থ্যগত তথ্য প্রকাশ করার পর হিলারির স্বাস্থ্যগত তথ্য প্রকাশ করা হয়।

হিলারির সহযোগীরা জানিয়েছেন, বৃহস্পতিবার ফের নির্বাচনী প্রচারণায় যোগ দেবেন তিনি।

শুক্রবার হিলারির নিউমোনিয়া ধরা পড়ে। তখন এ তথ্য প্রকাশ করা হয়নি। কিন্তু রোববার নিউ ইয়র্কে বিশ্ব বাণিজ্য কেন্দ্রে হামলার ১৫তম বার্ষিকীর স্মরণ অনুষ্ঠানে ভারসাম্য হারিয়ে মূর্ছা যাওয়ার মতো পরিস্থিতি তৈরি হলে হিলারির অসুস্থতার খবর প্রকাশ পায়।

উভয় প্রার্থীই প্রেসিডেন্ট পদের জন্য প্রতিদ্বন্দ্বিতাকারী যুক্তরাষ্ট্রের সবচেয়ে বয়সী প্রার্থীদের তালিকায় আছেন। উভয়েই নিজেদের স্বাস্থ্যগত তথ্য প্রকাশ করার বিষয়ে প্রবল চাপের মধ্যে আছেন। ৯/১১ অনুষ্ঠানে হিলারি অসুস্থ হয়ে পড়ার পর থেকেই যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট নির্বাচনের পরিবেশ নিয়ন্ত্রণ করছে স্বাস্থ্যগত ইস্যু।

বুধবার হিলারির প্রচারণা শিবির জানায়, পুরো শরীর পরীক্ষায় হিলারির সবকিছু ‘স্বাভাবিক’ ও মানসিকভাবে তিনি ‘অসাধারণ অবস্থায়’ রয়েছেন বলে দেখতে পান চিকিৎসক।

ডাক্তার লিসা বারদাক বলেন, “অ্যান্টিবায়োটিক ও বিশ্রামের কল্যাণে হিলারি দ্রুত সুস্থ হয়ে উঠছেন।”

প্রচারণা শিবির জানিয়েছে, শুক্রবার করা চেস্ট স্ক্যানে হিলারির ‘মৃদু, অসংক্রামক ব্যাক্টেরিয়াল নিউমোনিয়া’ ধরা পড়ে।

বর্তমানে তিনি তার নিউ ইয়র্কের বাড়িতে বিশ্রামে আছেন। তাকে লেভাকুয়িন নামের অ্যান্টিবায়োটিক দেওয়া হচ্ছে ও ১০ দিন বিশ্রামে থাকার পরামর্শ দেওয়া হয়েছে।

নিজের বিবৃতিতে চিকিৎসক বারদাক বলেন, “তিনি সুস্থ হয়ে উঠছেন এবং যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট হিসেবে দায়িত্বপালনের জন্য সক্ষম (শারীরিকভাবে) আছেন।”

তবে কবে থেকে তিনি ওষুধ খাওয়া শুরু করেছেন তা বিবৃতিতে উল্লেখ করা হয়নি।

হিলারির ব্লাড প্রেসার ও শরীরে কলেস্টরলের পরিমাণ স্বাভাবিক মাত্রায় আছে বলে এতে জানানো হয়েছে।