• আজ রবিবার, ২ জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৮ ৷ ১৬ মে, ২০২১ ৷

ঘরোয়া উপায়ে যেভাবে চুলের বৃদ্ধি হবে!


❏ শুক্রবার, সেপ্টেম্বর ১৬, ২০১৬ লাইফস্টাইল

চুলের বৃদ্ধি

আফসানা নিশি, লাইফস্টাইল কন্ট্রিবিউটার, সময়ের কণ্ঠস্বর। নারীর সৌন্দর্য বৃদ্ধি করে তার মাথার কেশ। কিন্তু বর্তমান যুগে ৯৫% নারী চুলের সমস্যায় জর্জরিত।কারো চুলের বৃদ্ধি হয় না তো কারো চুল ঝরে যায়। কারো চুল রুক্ষ তো কারো চুল তেল চিটচিটে। এ সবের মাঝে পড়ে চুলের অবস্থা হয় খারাপ। চুল বড় হয় না। অস্বাস্থ্যকর খাবার,পানি,ধুলোবালি,পুষ্টিহীন ডায়েট চার্ট এসবের জন্য দায়ি।কিন্তু ঘরোয়া উপায়ে যদি একটু যত্ন নেওয়া যায় তবে সমস্যার সমাধান করে চুলকে বড় করা সম্ভব। দেখে নিন ঘরোয়া উপায়ে কিভাবে চুলের বৃদ্ধি করবেন।

১।আলুর রস: ত্বকের যত্নে আমরা সবাই আলুর ব্যবহার জানি,চুলের যত্নে আলুর কথা মনে হয় অনেকের অজানা। অজানা থাকলে জেনে নিন আলু কিভাবে চুলের যত্ন নেয়। ১ টি বড় আলু ধুয়ে পরিষ্কার করে কেটে নিন। পানি ছাড়া এটিকে বেটে রস বের করে নিন। আলুর রস চুলের গোড়ায় লাগিয়ে ১৫-২০ মিনিট অপেক্ষা করুন। শুকিয়ে গেলে শ্যাম্পু করে ধুয়ে ফেলুন। ভাল ফল পেতে সপ্তাহে ৩ দিন ব্যবহার করুন। কয়েক সপ্তাহ ব্যবহার করে দেখুন কেমন পরিবর্তন ঘটছে আপনার চুলের।

২।নারিকেলের দুধ: নারিকেল তেল চুলের জন্য যেমন অনেক উপকারি তেমন নারিকেল দুধ চুলের বৃদ্ধি ঘটাতে অসাধারণ কাজ করে। ১/২ কাপ নারিকেলের দুধের সাথে ১/২ টেবিল চামচ লেবুর রস ও ৪ ফোঁটা অলিভ অয়েল মিশিয়ে চুলে লাগান। ৩-৪ ঘন্টা রেখে শ্যাম্পু করে ধুয়ে ফেলুন। ব্যবহার করলে পরিবর্তন বুঝতে পারবেন।

৩।পেয়াজের রস: বড় বড় ৩-৪ টা পেয়াজ কেটে নিন।পানি ছাড়া বেটে রস বের করে নিন। এই রস চুলের গোড়ায় লাগান। ১৫ মিনিট রেখে শ্যাম্পু করে ফেলুন। সপ্তাহে ১ দিন ব্যবহার করুন এতে অনেক ভাল ফল পাবেন। মাথার ত্বকে ঘাঁ জনিত সমস্যা থাকলে ব্যবহার

করবেন না এতে জ্বালা করতে পারে।

৪।ক্যাস্টার অয়েল: চুলের যত্নে ক্যাস্টার অয়েলের কথা জানা থাকলেও অনেকে জানে না এর সঠিক ব্যবহার। চুলের পরিমান বুঝে সমান মাপে ক্যাস্টার অয়েল,অলিভ অয়েল,নারিকেল তেল নিয়ে মেশান। এটি আস্তে আস্তে চুলের গোড়ায় লাগান ও ম্যাসাজ করুন।৩০-৪৫ মিনিট পর শ্যাম্পু করে ফেলুন। হাতে সময় থাকলে সারা রাত রেখে পরের দিন শ্যাম্পু করুন। এটি আপনার চুলের বৃদ্ধিতে ম্যাজিকের মতো কাজ করবে।

৫।সবুজ চা: সবুজ চা শুধু ত্বকের জন্য অসাধারণ কাজ করে না বরং এটি আপনার চুলের যত্নেও অসাধারণ কাজ করবে। শুধু জানতে হবে ব্যবহার বিধি আর নিয়ম মেনে সেটার প্রয়োগ ঘটাতে হবে। ১ ব্যাগ সবুজ ১ কাপ পানিতে ভাল করে ফুটিয়ে নিন। পানি ছেকে নিন এবং এই পানি চুলের গোড়ায় ভাল করে লাগান। ১ ঘন্টা রাখুন। ভাল করে শ্যাম্পু করে পরিষ্কার করে ফেলুন। এই সবুজ চায়ের ব্যবহার আপনার চুলকে শুধু বড় করবে না সেই সাথে চুলের উজ্জলতা বৃদ্ধি করবে। খেয়াল রাখবেন পানির সাথে যেনো চায়ের লিকার না যায় বা গেলেও ভাল মতো পরিষ্কার হয়।অন্যথায় চুলে খুশকি হতে পারে। এই সতর্কতাটা সব রকম হেয়ার প্যাক ব্যবহারের সময় মেনে চলা উচিত।

৬।পেয়ারা পাতা: পেয়ারা পাতা চুলের বৃদ্ধি ঘটাবে শুনে অবাক হচ্ছেন অনেকে।অবাক হওয়ার কিছু নেই। আমাদের আশেপাশে এমন সহজ লভ্য অনেক জিনিস আছে যা আমাদের দৈন্দনিন শরীর চর্চায় অনেক উপকারি কিন্তু আমরা জানি না। পেয়ারা পাতাও এমন একটি জিনিস। এটি আমাদের চুলের জন্য অনেক উপকারি। কিছু পেয়ারা পাতা ধুয়ে ছোট ছোট করে কেটে নিন। ৪ কাপ পানিতে এই পাতা দিয়ে ফোটাতে থাকুন যতোক্ষণ না পানির পরিমান ১ কাপ হয়। ফোটানো পানি ছেকে নিন ও ঠান্ডা হতে দিন। চুলের গোড়ায় ভাল করে ম্যাসাজ করুন। সারা রাত রেখে দিন ও সকালে শ্যাম্পু করে ফেলুন। সময় না থাকলে ১-২ ঘন্টা রেখে ধুয়ে ফেলুন।

জানা হয়ে গেলো চুলের বৃদ্ধিতে কিছু অসাধারণ টিপস। এখন ঘরে বসে নিজের চুলের যত্ন নিন ও এক ঝাক অসাধারণ চুলের অধীকারি করে তুলুন নিজেকে।