সংবাদ শিরোনাম

পণ্যবাহী ট্রাক-মাইক্রোবাসের মুখোমুখি সংঘর্ষে নিহত-১খালেদার জিয়ার শারীরিক অবস্থার উন্নতি নেই, হয়নি বিদেশ যাওয়ার সিদ্ধান্তওপ্রধানমন্ত্রী কোরআন-সুন্নাহর বাইরে কিছু করেন না: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীমির্জাপুরে গণহত্যা দিবস উপলক্ষে মোমবাতি প্রজ্জ্বলনশনিবার থেকে ঝড়-বৃষ্টির সম্ভাবনাস্পুটনিক-৫ টিকা একে-৪৭’র মতো নির্ভরযোগ্য: পুতিনডোপটেস্টো রিপোর্ট: স্পিডবোটের চালক শাহ আলম মাদকাসক্তচাঁদপুরে ঐতিহাসিক বড় মসজিদে লক্ষাধিক মুসল্লির সালাতে ‘জুমাতুল বিদা’ রাঙামাটিতে ডিবির অভিযানে ইয়াবাসহ দুই চিহ্নিত মাদক ব্যবসায়ী আটক! আনসার ব্যাটালিয়ান সদস্যদের সঙ্গে স্থানীয়দের সংঘর্ষ : নারীসহ ৯জন আহত

  • আজ ২৫শে বৈশাখ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ

শিশু জান্নাতকে নির্যাতনের ঘটনায় স্কুল শিক্ষিকা মনি বেগমকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।

১:২৮ অপরাহ্ন | শনিবার, সেপ্টেম্বর ১৭, ২০১৬ অপরাধ, আলোচিত বাংলাদেশ, স্পট লাইট

(গাজীপুর প্রতিনিধি) সময়ের কণ্ঠস্বর- : অবশেষে নয় বছরের শিশু জান্নাতকে নির্যাতনের ঘটনায় চাঁদপুরের হাইমচরের বাসিন্দা স্কুল শিক্ষিকা গৃহকর্ত্রী মনি বেগমকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।

শুক্রবার রাত সাড়ে দশটার দিকে চাঁদপুরের হাইমচর থানা ও জয়দেবপুর থানার পুলিশ বাড্ডায় এক আত্মীয়ের বাসা থেকে তাঁকে গ্রেপ্তার করে।

জয়দেবপুর থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) খন্দকার রেজাউল হাসান রেজা বিষয়টি নিশ্চিত করছেন।

হাইমচর থানার পুলিশ ও শিশুটির পরিবারের সঙ্গে কথা বলে জানা গেছে, পাঁচ সন্তানকে রেখে শিশুটির বাবা অন্যত্র চলে গেছেন। অভাবের তাড়নায় পরে মা শিশুটিকে মানুষের বাসায় কাজের জন্য দেন। এক বছর আগে হাইমচরের মোস্তফা সরদার নামের একজন শিশুটিকে জয়দেবপুরে ওমর ফারুক-মনি বেগম দম্পতির বাসায় নিয়ে যান। সম্প্রতি শিশুটি বাড়ি যাওয়ার জন্য গৃহকর্তা-গৃহকর্ত্রীর কাছে আবদার করে। এ কারণে তাঁরা শিশুটিকে প্রচণ্ড মারধর ও নির্যাতন করেন।

gajipur-shisu-2

খবর পেয়ে মোস্তফা সরদার শিশুটিকে ১৪ সেপ্টেম্বর রাতে গাজীপুরের ওই বাড়ি থেকে হাইমচরে নিয়ে যান। পরে শিশুটির অবস্থা দেখে স্থানীয় লোকজন তাকে হাইমচর স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করে। আর মোস্তফা সরদারকে পুলিশে সোপর্দ করা হয়। পরে শিশুটিকে চাঁদপুর সদর হাসপাতালে স্থানান্তর করা হয়।

হাইমচর স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের চিকিৎসক দীপন দে বলেন, টাইলসের সঙ্গে মাথা লাগিয়ে নির্যাতন করায় শিশুটির মাথায় বেশ ক্ষতের সৃষ্টি হয়েছে। এ ছাড়া শরীরের বিভিন্ন অংশে গরম খুন্তি ও বিদ্যুতের তারের আঘাতে ক্ষত হয়ে গেছে। তার পুরোপুরি সুস্থ হতে ১৫ থেকে ২০ দিন লাগবে।

এ ঘটনায় শিশুটির প্রতিবেশী চাঁদপুরের হাইমচর এলাকার শাহজাহান ভূঁইয়া বাদী হয়ে বৃহস্পতিবার সন্ধ্যার পর জয়দেবপুর থানায় মামলা করেন। মামলায় ওমর ফারুক, তাঁর স্ত্রী মনি বেগম ও তাকে কাজ দিতে নিয়ে যাওয়া মোস্তফা সরদারকে আসামি করা হয়। শিশু নির্যাতন দমন আইনে মামলাটি করা হয়। ওমর ফারুক ও মোস্তফা সরদারকে গ্রেপ্তার করা হয়।

মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা জয়দেবপুর থানা পুলিশের উপপরিদর্শক (এসআই) আবদুল আজিজ জানান, শিশু জান্নাতকে নির্যাতনের ঘটনায় বৃহস্পতিবার রাতে জয়দেবপুর থানায় মামলা হয়। মামলার বাদী হয়েছেন শিশুটির প্রতিবেশী শাহজাহান ভুঁইয়া। গ্রেপ্তারকৃত ওমর ফারুক ও মোস্তফা সরদারকে আদালতের মাধ্যমে শুক্রবার কারাগারে পাঠানো হয়েছে। গ্রেফতারকৃত গৃহকর্ত্রী স্কুল শিক্ষিকা মনি বেগমকে আজ গাজীপুর আদালতে হাজির করা হবে।

এদিকে শিশুটির চিকিৎসার জন্য ২৫ হাজার টাকা আর্থিক সহায়তা পাঠিয়েছেন যুক্তরাষ্ট্র প্রবাসী পল্লবী চৌধুরী। শুক্রবার তিনি চাঁদপুর জেলা প্রশাসক আব্দুস সবুর মণ্ডলের মাধ্যমে এ সহায়তা পাঠান।