পাবনায় পানিতে ডুবে শিশু ও ট্রেনে কেটে হরিজন নারীর মৃত্যু

১১:১৩ অপরাহ্ন | শনিবার, সেপ্টেম্বর ১৭, ২০১৬ দেশের খবর, রাজশাহী

আব্দুল লতিফ রঞ্জু, পাবনা প্রতিনিধি- পাবনার সুজানগর উপজেলার কুড়িপাড়া গ্রামের পানিতে ডুবে জমসের (৬) নামের এক শিশু ও ঈশ্বরদী রেল জংশন এলাকায় রেললাইন পার হওয়ার সময় শেলী (৪০) নামের এক হরিজন নারীর মৃত্যু হয়েছে। শিশু জমসের আজ শনিবার সন্ধায় ও হরিজন শেলী সকালে নিহত হয়।

unnamedএলাকাবাসী সূত্রে জানা গেছে, সুজানগর কুড়িপাড়া গ্রামের মিন্টু হোসেনের ৬ বছরের ছেলে জমশের সবার অগোচরে খেলা করতে করতে বাড়ির পাশে পুকুরের পানিতে পড়ে যায়। বেশ কিছুক্ষন পরে লোকজন শিশুটিকে উদ্ধার করে সুজানগর হাসপাতালে নিয়ে আসলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষনা করে।

অপর দিকে পাবনার ঈশ্বরদীতে রেল লাইন পাড় হওয়ার সময় ট্রেনের ধাক্কায় হরিজন সম্প্রদায়ের এক নারীর প্রাণহানি ঘটেছে। ঘটনাটি ঘটেছে শনিবার সকাল নয়টার দিকে ঈশ্বরদী জংশন ষ্টেশনের দক্ষিণ দিকের আউটারে।

ঈশ্বরদী রেল পুলিশের ওসি জানান, রাজশাহী হতে গোয়ালন্দঘাট অভিমূখি মধুমতি এক্সপ্র্রেস ট্রেনটি ঈশ্বরদী ষ্টেশন থেকে ছেড়ে যাওয়ার কিছুক্ষণ পর আউটারে ট্রেনের সাথে ধাক্কা খেয়ে শেলী (৪০) ঘটনাস্থলেই মারা যায়। শেলী এসময় রেল লাইন পাড় হচ্ছিল।

হরিজন কলোনীর প্রদীপ বাঁশফোড় জানান, শেলীর জয়পুরহাট বিয়ে হয়। কয়েকবছর আগে তার স্বামী মারা যায়। জয়পুরহাটের সোনালী ব্যাংকে শেলী ক্লিনারের কাজ করতো। তার ২০ বছর বয়সের একটি পুত্র সন্তান রয়েছে। শেলী বেশ কিছুদিন যাবত অসুস্থ থাকায় সে ঈশ্বরদীতে বাবার বাড়িতে থেকে চিকিৎসা হচ্ছিলেন।