জাতীয় সংসদ ভবনের মূল নকশা পেলেই অপসারণ করা হবে জিয়ার কবর

⏱ | রবিবার, সেপ্টেম্বর ১৮, ২০১৬ 📁 জাতীয়

সময়ের কণ্ঠস্বর ডেস্ক – জাতীয় সংসদ ভবনের মূল নকশা পেলেই অপসারণ করা হবে প্রয়াত রাষ্ট্রপতি জিয়াউর রহমানের কবর ।

লুই আই কানের আঁকা মূল নকশার অপেক্ষায় রয়েছে অপসারণের উদ্যোগটি। মূল নকশা হাতে পাওয়ার পরপরই জাতীয় সংসদ ভবন এলাকায় তৈরি করা এ কবর সরানোর কাজে হাত দেবে গৃহায়ণ ও গণপূর্ত মন্ত্রণালয়। কবর সরানোর জন্য চলতি বছরকে টার্গেট করে সংসদ সচিবালয় প্রয়োজনীয় প্রায় সব ধরনের কাজ সম্পন্ন করে রেখেছে। সরকারের নীতি-নির্ধারণী সূত্রে এই তথ্য জানা গেছে।

ziar-kobor

সংসদ সচিবালয়ের একজন কর্মকর্তা জানান, ‘রাজনৈতিক উদ্দেশ্যে বা আলোচনা-সমালোচনার জন্ম দিতে জিয়ার কবর অপসারণ করা হচ্ছে না। কাজটি করা হবে শুধু সংসদ সচিবালয়ের সৌন্দর্য রক্ষার স্বার্থেই।’

এ প্রসঙ্গে গৃহায়ন ও গণপূর্তমন্ত্রী ইঞ্জিনিয়ার খন্দকার মোশাররফ হোসেন  বলেন, ‘জাতীয় সংসদ ভবনের সীমার ভেতরে নকশায় যা আছে, শুধু তাই থাকবে। মোদ্দা কথা সেখানে মূল নকশাই আমরা প্রতিস্থাপন করব। এটা করতে গিয়ে সেখানে কারও কবর থাকলে তাও অপসারণ করা হবে।’ কবে নাগাদ এ কাজ শুরু হবে—জানতে চাইলে তিনি বলেন, ‘এ বছরই মূল নকশা প্রতিস্থাপন করা হবে।’ তিনি আরও বলেন, ‘নকশায় যা আছে, তাই থাকবে। নকশার বাইরে যা কিছু আছে, সেগুলো থাকবে না। কারণ এটা একটা জাতীয় সম্পদ, জাতীয় সংসদের সীমানা। আমি মরে গেলাম, শেখ হাসিনা মরে গেলেন, আর সেখানে কবর করে ফেলব, এটা হয় না।’ দীর্ঘদিনের পুরনো কবর অপসারণ করতে গেল এই ইস্যুতে রাজনৈতিক সমালোচনার মুখে পড়তে হবে কিনা—জানতে চাইলে তিনি বলেন, জিয়া তো মহাপুরুষ নন। সংসদ ভবনের নকশায় তিনটা প্লাজা আছে। প্রবেশপথের মধ্যখানে একটা কবর দিয়ে দিলেন, এটা কখনও হয়? এটা বর্বরতা, বিকৃত মানসিকতা।’