কনে দেখানোর কথা বলে এক যুবককে জবাই করে হত্যার চেষ্টা


❏ রবিবার, সেপ্টেম্বর ১৮, ২০১৬ অপরাধ, আলোচিত, মফস্বল সংবাদ, রংপুর

সময়ের কণ্ঠস্বর (দিনাজপুর প্রতিনিধি) ঃ দিনাজপুরের খানসামা থেকে কনে দেখতে গিয়ে বীরগঞ্জে ধনে রায় (২২) নামে এক যুবককে গলা কাটা অবস্থায় উদ্ধার করে মুমুর্ষ অবস্থায় বীরগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপেক্সে ভর্তি করা হয়।

পরে দিনাজপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে স্থানান্তর করা হয়েছে। ধনে রায় খানসামা উপজেলার আলোকঝাড়ী ইউনিয়নের বৈরাগীপাড়া দেউনিয়া কাশিমনগর গ্রামের বিনয় রায়ের ছেলে।

 গলাকাটা অবস্থায় ধনে রায়

             গলাকাটা অবস্থায় ধনে রায়

শনিবার রাত ৯টায় বীরগঞ্জ উপজেলার শতগ্রাম ইউনিয়নের কাশিমনগর জোড়াডোবা গ্রামের গভীর নলকুপের ক্যালেনের ধারে নির্জন এলাকায় হতে এ যুবককে উদ্ধার করে স্থানীয়রা।

শতগ্রাম ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সভাপতি মোঃ মতিয়ার রহমান জানান, কাশিমনগর জোড়াডোবা গ্রামের গভীর নলকুপের ক্যালেনের ধারে নির্জন এলাকায় যুবককের আত্মচিৎকারে স্থানীয় লোকজন ছুটে যায়। এ সময় রক্তাক্ত ও মুমুর্ষ অবস্থায় যুবককে উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপেক্সে ভর্তি করা হয়।তিনি আরও জানান, তাৎক্ষণিক ভাবে যুবকটি তার নাম ধনে  রায় এবং তাকে মেয়ে দেখানোর কথা বলে দুই বন্ধু এখানে নিয়ে এসে তাকে জবাই করার চেষ্টা চালায় বলে জানিয়েছেন।
বীরগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপেক্সের কর্তব্যরত চিকিৎসক ডাঃ মোঃ শাহীন জানান, আহত যুবককের গলার বাম পার্শে¦ বেশ জখম রয়েছে। এ ছাড়াও দুই হাতের তালুতে জখম রয়েছে। জখমের কারণে কিছু রগ কেটে যাওয়ায় বেশ রক্তরণ হয়েছে। এ কারণে যুবককের অবস্থা আশংকাজনক।

তাকে উন্নত চিকিৎসার জন্য দিনাজপুর মেডিকেল কলেজ হাসাপাতালে প্রেরণ করা হয়েছে। বীরগঞ্জ থানার ওসি আবু আককাছ আহম্মদ ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, আহত যুবকটি পরিচয় পাওয়া গেছে। সে পাশ্ববর্তী খানসামা থানার বাসিন্দা। বিষয়টি তাৎক্ষণিক ভাবে খানসামা থানাকে অবহিত করা হয়েছে।