🕓 সংবাদ শিরোনাম

খেলার আগে মাঠে ফিলিস্তিনের পতাকা ওড়ালেন কুড়িগ্রামের ক্রিকেটারেরাপাঁচ ঘণ্টা আটকে রেখে থানায় নেওয়া হলো প্রথম আলোর রোজিনা ইসলামকেকর্মস্থলে ফিরতে গাদাগাদি করে রাজধানীমুখী লাখো মানুষশেরপুরে পৃথক ঘটনায় একদিনে ৭ জনের মৃত্যুএক বিয়ে করে দ্বিতীয় বিয়ের জন্যে বড়যাত্রীসহ খুলনা গেল যুবক!আমার মৃত্যুর জন্য রনি দায়ী! চিরকুট লিখে স্কুল ছাত্রীর আত্মহত্যাইসরাইলীয় আগ্রাসনের  বিরুদ্ধে ইসলামী বিশ্বের নিন্দার নেতৃত্বে সৌদি আরবত্রিশালে সড়ক দূর্ঘটনায় ৩ জনের মৃত্যুতে নিহতের বাড়ীতে চলছে শোকের মাতমকলাপাড়ায় এক সন্তানের জননীর মরদেহ উদ্ধারটাঙ্গাইলে কৃষক শুকুর মাহমুদ হত্যা মামলায় গ্রেফতার-১

  • আজ মঙ্গলবার, ৪ জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৮ ৷ ১৮ মে, ২০২১ ৷

ট্যাম্পাকোর হতাহতদের পরিবারকে নগদ অর্থ সহায়তা প্রদান


❏ সোমবার, সেপ্টেম্বর ১৯, ২০১৬ ঢাকা, দেশের খবর

রেজাউল সরকার  (আঁধার), গাজীপুর প্রতিনিধি: টঙ্গীর ট্যাম্পাকো ফয়েলস কারখানার হতাহত শ্রমিকদের পরিবারকে জেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে নগদ আর্থিক সহায়তা প্রদান করা হয়েছে। সোমবার বিকালে এ সহায়তা প্রদান করা হয়।

unnamedজেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে জেলা প্রশাসক এসএম আলম নিহত ২১ জনের পরিবারকে ২০ হাজার টাকা করে এবং আহত ২৫ জনকে ১০ হাজার টাকা করে আর্থিক সহায়তা প্রদান করেন। এছাড়াও গাজীপুর-২ আসনের সংসদ সদস্য জাহিদ আহসান রাসেল তার ব্যক্তিগত তহবিল থেকে দুর্ঘটনায় নিখোঁজ ব্যক্তিদের স্বজনদের হাতে নগদ ৫ হাজার টাকা করে সহায়তা প্রদান করেন।

সহায়তা প্রদানকালে উপস্থিত ছিলেন গাজীপুরের অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (শিক্ষা ও আইসিটি) মো. ইফতেখার আহমেদ চৌধুরী, জেলা ত্রাণ ও পুনর্বাসন কর্মকর্তা মো. মাহবুবুর রহমান, এনডিসি মামুন শিবলী, গাজীপুর জেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগের আহবায়ক মতিউর রহমান মতি প্রমুখ।

এ সময় জেলা প্রশাসক এসএম আলম বলেন, 'আমরা এখনও উদ্ধারকাজ চালিয়ে যাচ্ছি। আরও যদি মৃতদেহ পাওয়া যায় তাদের স্বজনদেরও আর্থিক সহায়তা দেয়া হবে।' তিনি বলেন, ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতলে ছয়টি মৃতদেহ আছে। এগুলো সনাক্ত করা যায়নি। এ মৃতদেহগুলো ডিএনএ পরীক্ষার মাধ্যমে পরিবারের কাছে হস্তান্তরের সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে।

জেলা প্রশাসক বলেন, এ দুর্ঘটনা তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে। এ কমিটি ইতিমধ্যে কাজ শুরু করেছে। তদন্ত কমিটির মাধ্যমে যারা দোষী সাব্যস্ত হবেন, তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়া হবে।

উল্লেখ্য, গত ১০ সেপ্টেম্বর টঙ্গীর ট্যাম্পাকো কারখানায় বিস্ফোরণ ও অগ্নিকাণ্ডের ঘটনায় ৩৪ জন নিহত ও ৩৮ জন আহত হন। নিখোঁজ রয়েছে ১১ জন। এ ঘটনায় গাজীপুর জেলা প্রশাসন, স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়, শিল্প মন্ত্রণালয়, ফায়ার সার্ভিস ও তিতাস গ্যাসের পক্ষ থেকে পৃথক তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়।