• আজ রবিবার, ২ জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৮ ৷ ১৬ মে, ২০২১ ৷

“প্রতিপক্ষকে ফাঁসাতে” নিজ ঘরে আগুন লাগানোর অভিযোগ বিজিবি সদস্যের বিরুদ্ধে !


❏ মঙ্গলবার, সেপ্টেম্বর ২০, ২০১৬ Uncategorized, আলোচিত বাংলাদেশ, দেশের খবর, মফস্বল সংবাদ, রংপুর

মোঃ ইউনুস আলী লালমনিরহাট প্রতিনিধি সময়ের কণ্ঠস্বর ঃপ্রতিপক্ষকে ফাঁসাতে নিজ ঘরে আগুন দেয়ার অভিযোগ উঠেছে লালমনিরহাট জেলার আদিতমারী উপজেলার আব্দুল মালেক(৩৬) নামে এক বিজিবি সদস্যের বিরুদ্ধে।

গত শনিবার (১৭ সেপ্টেম্বর,২০১৬) দিবাগত মধ্যরাতে রাতে ঘটনাটি ঘতেছে বলে জানা যায় ।

আব্দুল মালেক লালমনিরহাটের আদিতমারী উপজেলার ভাদাই ইউনিয়নের কিসামত চন্দ্রপুর গ্রামের সামছুল হকের ছেলে। তিনি বডার গার্ড বাংলাদেশ (বিজিবি) এর বান্দরবান এলাকায় কর্মরত।

পুলিশ ও প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, আব্দুল মালেকের সাথে জমির সীমানা নিয়ে দীর্ঘ দিন যাবত প্রতিবেশী আব্দুল হকের বিরোধ চলে আসছে ।
এ নিয়ে একাধিকবার স্যালিশ বৈঠক হলেও স্থানীয় সিদ্ধান্ত মানতে নারাজ বিজিবি সদস্য আব্দুল মালেক।

lalmonihat-4

আব্দুল মালেক ঈদের ছুটিতে বাড়ি এসে শনিবার সকালে দলবল নিয়ে ওই জমি জবর দখলের চেষ্টা চালায় । এতে বাঁধা দিলে উভয়ের মাঝে সংঘর্ষে আব্দুল হকের ভাই দছির উদ্দিন(৫৫) ও ভাগিনা আতিকুল ইসলাম(২৮) গুরুতর জখম হন।

পুলিশ খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে গিয়ে আহতদের উদ্ধার করে প্রথমে আদিতমারী হাসপাতালে ভর্তি করে। পরে রোগীদের অবস্থা আশংকা জনক হলে রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে গিয়ে ভর্তি করে।

এ ঘটনায় গত শনিবার (১৭ সেপ্টেম্বর,২০১৬) সন্ধ্যায় আব্দুল হক বাদি হয়ে বিজিবি সদস্য আব্দুল মালেককে প্রধান করে ৭ জনের নামে একটি মামলা দায়ের করেন।

শনিবার দিনগত রাতে বিজিবি সদস্য আব্দুল মালেকের বাড়ির রান্না ঘরে আগুন লাগে। আগুন আগুন চিৎকার শুনে স্থানীয়রা ছুটে গিয়ে আগুন নিভাতে গেলে ঐ বাড়ির লোকজন প্রথম দিকে বাঁধা দেয়।
এ সময় তারা স্থানীয়দের জানায় পুলিশ না আসা পর্যন্ত আগুন নিভানো প্রয়োজন নেই।

প্রতিবেশী মোজাফ্ফর, কালু মিয়া, বাবু মিয়া জানান, আগুন নিভাতে গিয়ে দেখি ঐ ঘরের সকল জিনিস পত্র বাহিরে সড়ানো আছে এবং বাড়ির মালিক নিজেই আগুন না নিভিয়ে শুধুই চিৎকার করছেন “ পুলিশ না আসা পর্যন্ত আগুন নিভার দরকার নেই।
তারাও দাবি জানান প্রতিপক্ষকে ফাঁসাতেই এমন কৌশল বেচে নিয়েছেন বিজিবি সদস্য আব্দুল মালেকের পরিবার।

তবে আব্দুল মালেকের বাবা সামছুল হক নিজেই বাড়িতে আগুন লাগানোর বিষয়টি অস্বীকার করে বলেন, পুলিশের ভয়ে তারা রাতে বাড়িতে ছিলেন না। এর বাহিরে তিনি অন্য কোন মন্তব্য করেন নি।

মামলার বাদি আব্দুল হক জানান, আব্দুল মালেক বিজিবির ক্ষমতা দেখিয়ে তাদের জমি জবর দখল করতে গিয়ে মারামারি করেও ক্ষান্ত হয়নি বরং তাদেরকে ফাঁসাতেই নিজ ঘরেও আগুন দিয়েছে তারা। তিনি অগ্নিকান্ডের ঘটনার সুষ্ঠ তদন্তেরও দাবি জানান।

আদিতমারী থানা ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা(ওসি) হরেশ্বর রায় ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে গুরুতর আহত দুইজনকে হাসপাতালে ভর্তি করেছে। আসামীরা পলাতক থাকায় কাউকে গ্রেফতার করা সম্ভব হয়নি। তবে অগ্নিকান্ডের ব্যাপারে তিনি জানেন না। খোঁজ খবর নিয়ে ব্যবস্থা নিবেন বলেও জানান তিনি।