• আজ রবিবার,২৬ বৈশাখ, ১৪২৮ ৷ ৯ মে, ২০২১, রাত ৯:৫৭

ফুলবাড়ীতে শারদীয় দূর্গা উৎসবে ব্যস্ত সময় পাড় করছে প্রতিমা তৈরীর কারীগররা

❏ মঙ্গলবার, সেপ্টেম্বর ২০, ২০১৬ দেশের খবর, রংপুর

অনীল চন্দ্র রায়, ফুলবাড়ী প্রতিনিধি: হিন্দু সম্প্রদায়ের সবচেয়ে বড় শারদীয় দূর্গা উৎসব। মাত্র সতের দিন পরেই শারদীয় দূর্গা উৎসব শুরু হবে জাকজমকপূর্ন ভাবে। এই উৎসবের একমাত্র বাহক হলেন মা দূর্গা দেবী (প্রতিমা)। দূর্গা প্রতিমা তৈরীতে ব্যস্ত সময় পাড় করছে কারীগররা। কুড়িগ্রামের ফুলবাড়ী উপজেলার বড়ভিটা ইউনিয়নের নওদাবস গ্রামের মৃত অশ্বনী চন্দ্র রায়ের ছেলে প্রতিমা তৈরী কারীগর বাবলু চন্দ্র রায় (৩৮)। তার বাড়ীতে গিয়ে দেখা যায়, চার থেকে পাঁচ জন কারীগর সব সময় প্রতিমা তৈরীতে ব্যস্ত সময় পাড় করছে। সকাল থেকে গভীর রাত পর্যন্ত প্রতিমা তৈরীর কাজ করছে। এ উপজেলা দশ থেকে পনের জনের পরিবারে দূর্গা প্রতিমা তৈরীর কারীগর আছে। এই কারীগররা বর্তমানে মহা আনন্দের মধ্যে দিয়ে প্রতিমা তৈরীতে ব্যস্ত সময় পাড় করছে।

murti

প্রতিমা তৈরীর কারীগর বাবলু চন্দ্র রায় ও ধরনী চন্দ্র বর্মন জানান, ১৫ বছর ধরে প্রতিমা তৈরীর কাজ করছি। এ বছরে বাবল চন্দ্র রায় ১২টি ও ধরনী চন্দ্র বর্মন ৫টি দূর্গা প্রতিমা তৈরীর অর্ডার নিয়েছে। তারা একেকটির প্রতিমা তৈরীর মূল্য মাত্র ১০ থেকে ১৩ হাজার টাকা করে। জিনিস পত্রের অনেক দাম। খুব বেশি লাভ হয় না। তারপরেও করতে হবে। চার থেকে পাঁচ জন কারীগর দিয়ে কাজ করতে হয়। বাকী কারীগরদের দিনে ৩শ টাকা করে মজুরী দিতে হয়। সব কিছু খরচ মিটিয়ে ৫০ থেকে ৬০ হাজার টাকা আয় হয়। ১২টি প্রতিমা তৈরীতে সময় লাগে দেড় মাস। এখন প্রতিমা তৈরীর মুল কাজ শেষ। তবে এক সপ্তাহের মধ্যে শুরু হবে রং তুলি দিয়ে সাজসজ্জা করে প্রতিমা গুলো ডেলিভারী দেওয়া হবে।