কালিয়াকৈরে বিনা নোটিশে ৫ শতাধিক শ্রমিক ছাটাই

৬:০১ অপরাহ্ন | বুধবার, সেপ্টেম্বর ২১, ২০১৬ ঢাকা, দেশের খবর

আলমগীর হোসেন, কালিয়াকৈর প্রতিনিধি: ঈদের ছুটির অতিরিক্ত দুই দিন ছুটি কাটানোর অপরাধে কালিয়াকৈরে একটি সুয়্যোটার কারখানার ৫ শতাধিক শ্রমিককে বিনা নোটিশে ছাটাই করা হয়েছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। প্রতিবাদে শ্রমিকরা কারখানার মূল ফটকের সামনে জড়ো হয়ে বিক্ষোভ মিছিল করেছে। ঘটনাটি ঘটেছে উপজেলার বাড়ইপাড়া এলাকার হেসং বিডি লিঃ নামের একটি সোয়্যেটার কারখানায় আজ বুধবার দুপুরে।

haesong

ছাটাইকৃত বিক্ষুদ্ধ শ্রমিকরা জানায়, ঈদের আট দিন ছুটি শেষে হয় ১৮ সেপ্টেম্বর রবিবার। সোমবার যথারিতি কারখানা চালু হলেও ওই কারখানার ৭ শতাধিক শ্রমিক কাজে যোগ দিতে পারেনি। পরে মঙ্গলবার শ্রমিকরা কাজে যোগ দিতে গেলে তাদেরকে কারখানা থেকে বের করে দেয়া হয়। আবার কিছু শ্রমিক সোমবার ও মঙ্গলবার দুই দিন কাজে যোগ দিতে পারেনি। তাদেরকেও বের করে দেয়া হয় এবং আবেদন করতে বলেন কারখানা কর্তৃপক্ষ।

কারখানা কর্তৃপক্ষের নির্দেশ অনুযায়ী শ্রমিকরা কারখানায় যোগদান করার জন্য সোমবার এবং মঙ্গলবার সকাল পর্যন্ত আবেদন করেন। আবেদন করলেও কারখানা কর্তৃপক্ষ শ্রমিকদেরকে কাজে যোগ দিতে না দিয়ে তাদেরকে ছাটাই করা হয়েছে বলে জানায়। পরে শ্রমিকরা আজ বুধবার বেলা সাড়ে ১১টার দিকে কাজে যোগদানের দাবীতে কারখানার সামনে বিক্ষোভ মিছিল করতে থাকে। কারখানার শ্রমিক নেতারা এসে শ্রমিকদের বুঝিয়ে বাড়িতে চলে যেতে বলে এবং দুপুরের পর একটা সিদ্ধান্ত জানিয়ে দেয়া হবে বললে শ্রমিকরা ফিরে যায়। পরে দুপুরের খাবারের পর শ্রমিকরা পুনরায় কারখানার সামনে এসে জড়ো হলে কারখানার শ্রমিক নেতারা এসে জানায়, ‘যারা একদিন এ্যাভসেন্স করেছে মানে ১৭০ জনের চাকুরী বহাল রয়েছে। আর যারা দুই দিন এ্যাভসেন্স করেছে ৫ শতাধিক ছাটাই করা হয়েছে।’

হ্যাসং বিডি লিঃ এর নিটিং অপারেটর সাদ্দাম হোসেন, আরিফুল ইসলাম, লিটন মিয়া, আয়রন সেকশনের ফারুক হোসেন, মমিন মিয়া, লিংকিং এর নার্গিস আক্তার, মোসা. নাসরিন সহ আরো অনেকে জানায়, ‘ঈদের আট দিন ছুটি শেষে হবার পরেও পারিবারিক বিভিন্ন অসুবিধার কারণে কারখানায় যোগদান করতে পারিনি। কারখানায় কাজে যোগদান করতে আসলে আমাদেরকে বের করে দেয়া হয় এবং আমাদেরকে ছাটাই করা হয়েছে বলে জানায় কর্তৃপক্ষ। বিনা নোটিশে আমাদেরকে ছাটাই করা হয়েছে। এখন আমরা কি করবো বুঝতে পারছিনা।’

কারখানার শ্রমিক নেতা (পিসি সদস্য) কামাল হোসেন জানান, ‘বিষয়টি নিয়ে আমরা কারখানা কর্তৃপক্ষের সাথে আলোচনা করা হয়েছে। আলোচনায় একদিনের এ্যাভসেন্সকৃতদের চাকুরীতে বহাল রাখা হয়েছে এবং যারা দুই দিন এ্যাভসেন্স করেছে তাদেরকে ছাটাই করা হয়েছে। তবে তাদেরকে আগে থেকে কোন নোটিশ করা হয়নি। নিয়ম অনুযায়ী একটানা কোন শ্রমিক ১০ দিন এ্যাভসেন্স থাকলে তাদের চাকুরী থাকেনা। কিন্তু শ্রমিকরা মাত্র ২ দিন এ্যাভসেন্স করেছে। এটা নিয়ম বর্হি:ভুত। ছাটাইকৃত শ্রমিকদের অবিলম্বে বহাল করা না হলে বৃহত্তর আন্দোলন কর্মসূচী পালন করা হবে।’

হেসং বিডি লি: এর এ্যাডমিন দুলাল সময়ের কণ্ঠস্বরকে জানান, ‘ফ্যাক্টুরীর রুল অনুযায়ী তাদেকে ছাটাই করা হয়েছে। আর যারা কারখানায় ঢাকার উপযোগী তাদেরকে কারখানায় ঢুকানো হচ্ছে।’