🕓 সংবাদ শিরোনাম
  • আজ রবিবার, ২ জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৮ ৷ ১৬ মে, ২০২১ ৷

নড়াইলে প্রতিপক্ষকে মিথ্যে মামলায় ফাঁসাতে গিয়ে বাবা ও মেয়ে নিজেই কারাগারে !


❏ বুধবার, সেপ্টেম্বর ২১, ২০১৬ খুলনা, দেশের খবর, স্পট লাইট

সৈয়দ খায়রুল আলম, নড়াইল প্রতিনিধি-

নড়াইলে মিথ্যা মামলা দায়ের করায় বাবা ও মেয়েকে কারাগারে পাঠানো হয়েছে। আজ বুধবার (২১ সেপ্টেম্বর) দুপুরে মানবপাচার ট্রাইব্যুনালের বিচারক আবুল বাশার মুন্সী এ আদেশ দেন। পরে মামলার বাদী কালিয়া উপজেলার মহিষখোলা গ্রামের নাজমুল শেখ (৫০) ও তার মেয়ে সামিরাকে (২৫) কারাগারে পাঠানো হয়। সামিরার শ্বশুরবাড়ি কালিয়া পাটেশ্বরী গ্রামে। স্বামী ওমানে আছেন বলে পারিবারিক সূত্রে জানা গেছে।

63আদালত সূত্রে ও মামলার বিবরণে জানা যায়, নড়াইলের কালিয়া উপজেলার মহিষখোলা গ্রামের নাজমুল শেখ তার মেয়ে সামিরাকে পাচারের অভিযোগ এনে গত ২৪ জুলাই মানবপাচার দমন আইনে আদালতে মামলা দায়ের করেন। মামলায় শরীয়তপুর জেলার জাজিরা এলাকার শাহ আলমসহ চারজনকে আসামি করা হয়। গত ৫ জুলাই কালিয়া বাজার এলাকা থেকে সামিরাকে পাচার করা হয়েছে বলে মামলায় উল্লেখ করা হয়। আদালত কালিয়া থানা পুলিশকে এ মামলার তদন্তের নির্দেশ দেন। পরবর্তীতে গতকাল মঙ্গলবার (২০ সেপ্টেম্বর) তদন্তকারী কর্মকর্তা কালিয়া থানার এসআই আব্দুল করিম আদালতে প্রতিবেদন দাখিল করেন। তিনি জানান, ঘটনার দিন বাবার সাথে রাগ করে সামিরা তার ভাইয়ের শ্বশুরবাড়ি শরীয়তপুরে যান।

পরবর্তীতে ভাইয়ের শ্বশুরবাড়ি থেকে সামিরাকে উদ্ধার করা হয়। হয়রানির উদ্দেশ্যে তার ভাইয়ের শ্বশুরবাড়ি এলাকার শাহ আলমসহ আসামিদের বিরুদ্ধে মিথ্যা মামলা দায়ের করা হয়।

আজ বুধবার (২১ সেপ্টেম্বর) মামলার ধার্য তারিখে বাদী নাজমুল ও তার মেয়ে সামিরা আদালতে হাজির হলে আদালত তাদের কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ দেন। এদিকে, মিথ্যা মামলায় দায়ের করায় বাবা ও মেয়ের বিরুদ্ধে মামলা করার নির্দেশ দেন আদালত।