ভারত-পাকিস্তান উত্তেজনাকে আরও উসকে দিচ্ছে রাশিয়া-যুক্তরাষ্ট্র

⏱ | বৃহস্পতিবার, সেপ্টেম্বর ২২, ২০১৬ 📁 আন্তর্জাতিক

আন্তর্জাতিক ডেস্ক –  যুক্তরাষ্ট্র ও রাশিয়ার মতো বৃহৎ শক্তির রাষ্ট্রগুলো উরিতে সেনা ব্রিগেডে হামলার ঘটনায় ১৮ সেনা নিহতের জেরে ভারত-পাকিস্তান দুই দেশে যে  উত্তেজনা বিরাজ করছে সে   ইস্যুতে নিজেদের অবস্থান জানান দিচ্ছে, যা অনেকাংশে উত্তেজনার পারদকেই উসকে দিচ্ছে।

uttejona

এরই অংশ হিসেবে সেনা ব্রিগেডে জঙ্গি হামলার পর জম্মু-কাশ্মীরে পাকিস্তানের সঙ্গে যৌথ সামরিক মহড়া থেকে সরে এসেছে রাশিয়া। পাশাপাশি সন্ত্রাসবাদের বিরুদ্ধে যুদ্ধে ভারতের পাশে থাকার ঘোষণা দিয়েছে বিশ্বের অন্যতম পরাশক্তি এ দেশটি।

অন্যদিকে সীমান্ত পেরিয়ে পাকিস্তানের ভেতরে হামলা চালালেই মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রসহ আন্তর্জাতিক নিন্দার মুখে পড়বে ভারত। এমনই দাবি করেছেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট বারাক ওবামার সাবেক দক্ষিণ এশিয়া বিষয়ক উপদেষ্টা ব্রুস রিডেল।

বর্তমান বিশ্বের মোড়ল এ দুই দেশের বিপরীত অবস্থানে এক অদ্ভূত কূটনৈতিক পরিস্থিতির সৃষ্টি হয়েছে।

সোমবার রাশিয়ার তরফ থেকে যৌথ মহড়া বাতিলের ঘোষণা আসে। আর এ ঘোষণাকে আন্তর্জাতিক অঙ্গণে পাকিস্তানকে একঘরে করার একটি পদক্ষেপ হিসেবেই দেখছে ভারত।

জঙ্গি হামলার আগে রাশিয়া ও পাকিস্তান ‘দ্রুঝবা-২০১৬’ নামের একটি যৌথ মহড়ার আয়োজন করেছিল। রাট্টু ও চেরাটে ২৪ সেপ্টেম্বর থেকে ৭ অক্টোবর পর্যন্ত এই মহড়া অনুষ্ঠানের কথা ছিল।

তবে ভারতের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের পক্ষ থেকে এ যৌথ মহড়ার বিষয়ে আপত্তি তোলা হয়। দিল্লি জানায়, এমন পরিস্থিতিতে পাকিস্তানের সঙ্গে মহড়া পরিচালনার আগে রাশিয়াকে ভেবে নেয়া দরকার।

আর এ চিঠির পরই রাশিয়ার তরফ থেকে মহড়া বাতিলের ঘোষণা আসলো।

এদিকে মার্কিন প্রেসিডেন্ট বারাক ওবামার সাবেক দক্ষিণ এশিয়া বিষয়ক উপদেষ্টা ব্রুস রিডেল ‘টাইমস অব ইন্ডিয়া’-কে দেয়া এক সাক্ষাৎকারে বলেছেন, ‘পাকিস্তানের বিরুদ্ধে ভারতের সামরিক পদক্ষেপ ভারতের জন্যই কাল হয়ে দাঁড়াবে। হামলার ঘটনায় দেশটির ওপর আন্তর্জাতিক চাপ তো বাড়বেই, এমনকি ওয়াশিংটনও ভারতের পাশে দাঁড়াবে না।’

তবে ভারতে সন্ত্রাসী হামলায় পাকিস্তানের হাত থাকার বিষয়ে দ্বিমত নন রিডেল।

সূত্র: জি নিউজ, এই সময়