ফুলবাড়ীতে বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে মাদ্রাসার ছাত্রীকে ধর্ষন থানায় মামলা

⏱ | বৃহস্পতিবার, সেপ্টেম্বর ২২, ২০১৬ 📁 দেশের খবর, রংপুর

sa


অনীল চন্দ্র রায়,ফুলবাড়ী (কুড়িগ্রাম) প্রতিনিধি :

কুড়িগ্রামের ফুলবাড়ী উপজেলার ভাঙ্গামোড় ইউনিয়নের মাদ্রাসার পড়ুয়া দশম শ্রেণীর ছাত্রী আফরোজা খাতুন(১৪)কে ধর্ষন করায় থানায় মামলা। প্রেমের সম্পর্ক থাকায় ওই ছাত্রীকে বিয়ে করার প্রলোভন দেখিয়ে জোড় পূর্বক ধর্ষন করে পালিয়ে যায় ধর্ষক শাহিন আলম।

উপজেলার রাবাইটারী গ্রামের আব্দুল রহমানের ছেলে শাহিন আলম(১৯) একই উপজেলার নজরমামুদ গ্রামের আলতাফ হোসেনের মেয়েকে গত ১০ সেপ্টেম্বর রাত সাড়ে ৭ টায় বাড়ীর উঠানে আসিয়া আমার মেয়েকে মোবাইল ফোনে ডেকে নিয়ে বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে অত্যন্ত সুকৌশলে বাড়ীর পাশে বাশঝাড়ে ইচ্ছার বিরুদ্ধে জোড় পূর্বক ধর্ষন করে মেয়েকে একলা ফেলে পালিয়ে যায় ধর্ষক শাহিন আলম।

পরে আমার মেয়ে ধর্ষক শাহিন আলমের বিয়ের দাবি নিয়ে অবস্থান করে। মেয়ের বাবা আলতাফ হোসেন আত্বীয় স্বজনদের বাড়ীতে মেয়েকে অনেক খোজাখুজি করে না পেয়ে নিজ বাড়ীতে চিন্তায় ভেঙ্গে পড়েন। পরে লোকমুখে জানতে পারে ধর্ষক শাহিন আলমের বাড়ীতে বিয়ে দাবীতে অবস্থান করছে।

সংবাদ পেয়ে মামলার স্বাক্ষীদের সহযোগিতায় ১২ সেপ্টেম্বর সকাল ১১ টায় দিকে মেয়েকে উদ্ধার করে বাড়ীতে ফিরিয়ে আনি। পরে মেয়ের ভবিষতের কথা চিন্তা করে স্থানীয় ভাবে বিবাদীর অবিভাবকের সঙ্গে আপোষ মীমাংসার চেষ্টা করি এবং আমার মেয়েকে বিয়ে করবে না বলে ছাপ জানিয়ে দেওয়ায় মেয়েকে ধর্ষন করার অপরাধে বাবা আলতাফ হোসেন ১৯ সেপ্টেম্বর রাতে বাদী হয়ে একটি ধর্ষণ মামলা দায়ের করেছে।

এ ব্যাপারে ফুলবাড়ী থানার অফিসার ইনচার্জ এবিএম রেজাউল ইসলাম জানান,ধর্ষক শাহিন আলমের বিরুদ্ধে ধর্ষন মামলা দায়ের করেছে মেয়ের বাবা আলতাফ হোসেন,মামলা নং ১২।