সংবাদ শিরোনাম
  • আজ ২৫শে বৈশাখ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ

জানেন কি? কান্না স্বাস্থ্যের জন্য ভালো

১:০৭ অপরাহ্ন | শনিবার, সেপ্টেম্বর ২৪, ২০১৬ লাইফস্টাইল

লাইফস্টাইল ডেস্ক: কান্না দুর্বলতার লক্ষণ এমনটা হয়তো ছোটবেলা থেকে শুনে আসছেন। তবে বিজ্ঞানীরা কিন্তু ভিন্ন কথা বলেন। তাদের মতে কান্না স্বাস্থ্যের জন্য ভালো। কান্না শরীর থেকে বিষাক্ত পদার্থ বের করে দেয়। মানসিক চাপের হরমোন করটিসলকে বের করে দিতে সাহায্য করে।

kanna

কান্না মানসিক চাপ কমিয়ে কিছুটা ভালো বোধ করতে সাহায্য করে। কাঁদলে ভালো অনুভূতির হরমোনগুলো নিঃসৃত হয়। এতে কান্নার পর ঘুম ভালো হয়।

এবার জেনে নিন কান্নার স্বাস্থ্য উপকারিতা

১. কাঁদলে দৃষ্টিশক্তি ভালো হয়

অশ্রু শুধু আমাদের চোখের মণিকে সিক্তই করেনা। এটি অনেক কোষের পানিশূন্যতা দূর করে। চোখের উপরের পৃষ্ঠকে শুষ্ক হতে দেয়না। এটি আমাদের দৃষ্টিশক্তিকে উন্নত করে।

২. কাঁদলে মাথাব্যাথা দূর হয়

কান্নাকাটিতে বিষক্রিয়াগত মাথাব্যাথা দূর হয়। মাথাব্যাথার কারণ মূলত দুশ্চিন্তা ও হতাশা। কান্নায় হতাশা অনেকটাই কমে যায় বলে মাথাব্যাথা দূর হয়ে যায়।

৩. অশ্রু ব্যাকটেরিয়া ধ্বংস করে

অশ্রুতে লাইসোসোম রয়েছে যা মাত্র পাঁচ মিনিটেই চোখের ৯০ থেকে ৯৫ শতাংশ ব্যাকটেরিয়া ধ্বংস করতে সক্ষম।

৪. কান্না হতাশা দূর করে

মন খুলে কাঁদলে হয়তো আপনার অবস্থার কোনো পরিবর্তন হবে না। কিন্তু আপনার হতাশা দূর হয়। একটি সাময়িক প্রশান্তির জন্য কান্না হতে পারে ভালো ঔষধ। মানুষ রেগে গেলে অনেক সময় ভুল কিছু করে বসে। রাগ কমানোর উত্তম রাস্তাই হচ্ছে কান্না। এটি আপনার সকল হতাশা দূর করবে।

৫. কান্না মন ভালো রাখে

আবেগের অশ্রু আপনার মন ভালো রাখে। এটি এমন একটি প্রক্রিয়া যাতে করে আমাদের দেহে এনডোরফিন নামক কেমিক্যাল নি:সৃত হয় এবং দুশ্চিন্তা কম হয়। তাই কাঁদলে আমাদের মন ভালো থাকে।

৬. কান্না দু:খ সহ্য করতে শেখায়

অনেক সময় আমরা আপন কাউকে হারিয়ে দু:খে ভেঙে পড়ি। এ সময় নিজেকে সামাল দেয়ার জন্য কাঁদা ‍উচিত। কান্না আমাদেরকে এমন অবস্থাকে সামাল দিতে সাহায্য করে।

বিশেষজ্ঞরা বলেন, কান্না রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়ায়। কান্নার মধ্যে রয়েছে লাইসোজিমেস। রয়েছে অ্যান্টিব্যাকটেরিয়াল, অ্যান্টিমাইক্রোবিয়াল ও অ্যান্টিভাইরাল উপাদান। এগুলো চোখের বাইরে ও ভেতরে সুরক্ষা দিতে কাজ করে। কখনো কখনো কান্না যোগাযোগ বাড়ায়। যখন আমরা কোনো কিছু ভাষায় প্রকাশ করতে পারি না তখন কান্না বার্তাটি পৌঁছে দেয়। তাই কান্না আটকাবেন না। কাঁদুন।