🕓 সংবাদ শিরোনাম

খেলার আগে মাঠে ফিলিস্তিনের পতাকা ওড়ালেন কুড়িগ্রামের ক্রিকেটারেরাপাঁচ ঘণ্টা আটকে রেখে থানায় নেওয়া হলো প্রথম আলোর রোজিনা ইসলামকেকর্মস্থলে ফিরতে গাদাগাদি করে রাজধানীমুখী লাখো মানুষশেরপুরে পৃথক ঘটনায় একদিনে ৭ জনের মৃত্যুএক বিয়ে করে দ্বিতীয় বিয়ের জন্যে বড়যাত্রীসহ খুলনা গেল যুবক!আমার মৃত্যুর জন্য রনি দায়ী! চিরকুট লিখে স্কুল ছাত্রীর আত্মহত্যাইসরাইলীয় আগ্রাসনের  বিরুদ্ধে ইসলামী বিশ্বের নিন্দার নেতৃত্বে সৌদি আরবত্রিশালে সড়ক দূর্ঘটনায় ৩ জনের মৃত্যুতে নিহতের বাড়ীতে চলছে শোকের মাতমকলাপাড়ায় এক সন্তানের জননীর মরদেহ উদ্ধারটাঙ্গাইলে কৃষক শুকুর মাহমুদ হত্যা মামলায় গ্রেফতার-১

  • আজ মঙ্গলবার, ৪ জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৮ ৷ ১৮ মে, ২০২১ ৷

প্রতিবাদের মুখে বার্সার কাছে শেষ পর্যন্ত ক্ষমাই চাইতে হলো আর্জেন্টিনাকে


❏ শনিবার, সেপ্টেম্বর ২৪, ২০১৬ খেলা, স্পট লাইট

স্পোর্টস আপডেট ডেস্ক- লিওনেল মেসির আজকের মেসি হয়ে ওঠার পেছনে সবচেয়ে বড় কৃতিত্ব তো বার্সেলোনারই। সেই কবে ১৩ বছর বয়সের হরমোনের সমস্যায় ভোগা মেসিকে আর্জেন্টিনা থেকে স্পেনে নিয়ে আসে তারা। ব্যয়বহুল চিকিৎসা করে, ফুটবল শিক্ষায় শিক্ষিত করে তোলে। সেই তাদের পক্ষে কি ৫বারের ফিফা ব্যালন ডি'অর জয়ী মেসির অযত্ন-অবহেলা করা সম্ভব! বার্সার প্রতিবাদের মুখে তাই ক্ষমাই চাইতে হলো আর্জেন্টিনাকে।

messi__pictureবুধবার রাতে আবার ইনজুরিতে পড়েছেন ২৯ বছরের মেসি। এবার ডান কুচকির সমস্যা। আগামী তিন সপ্তাহ তাই মাঠের বাইরে থাকতে হবে তাকে। ক্লাবের তিনটি ও দেশের দুটি ম্যাচ মিস করবেন। আর্জেন্টিনার কোচ এদগার্দো বাউসা তাতে হতাশ হয়ে আক্রমণ করে বসেন বার্সাকে। বলেন, কাতালানদের যত্নের অভাবেই মেসি ইনজুরিতে পড়েছেন। এই কথা কেন সইবে বার্সা?

আর্জেন্টাইন ফুটবল সংস্থার মুখপাত্র হোসেপ ভিভেস বলেছেন, "লিও মেসির ইনজুরি প্রসঙ্গে ম্যানেজারের করা মন্তব্যের কারণে এএফএ বার্সার কাছে ক্ষমা চেয়েছে। তারা জানায়, ম্যানেজার এদগার্দো বাউসার কোনো বাজে মতলব ছিল না। তবে এই মন্তব্য দুর্ভাগ্যজনক।"

এই মাসেই বাঁ কুচকির ইনজুরি থেকে সেরে উঠে মেসি খেলতে শুরু করেছেন। বাউসা মনে করেন পর্যাপ্ত বিশ্রাম হয়নি ফুটবলারের। ইনজুরি থেকে ফেরা মেসিকে বার্সেলোনার টানা চারটি ম্যাচ খেলানো উচিৎ হয়নি বলেও মত তার। ১২ দিনে তারা ৪ ম্যাচ খেলিয়েছে। বাউসা এর সমালোচনা করে বার্সেলোনাকে আক্রমণ করেছিলেন, "বার্সেলোনা সবসময় আমাদের বলে মেসির যত্ন নিতে। কিন্তু তারা তো ভালো ভাবে ওর যত্ন নিচ্ছে না। তাদের সব ম্যাচেও ওকে খেলানো খুব বিস্ময়কর ব্যাপার হয়েছে।" কিন্তু কোচের এই দাবি গিলে ফেলতে হলো আর্জেন্টিনাকে। এড়ানো গেল দেশ ও ক্লাবের সম্ভাব্য লড়াই।

পরে অবশ্য ক্রীড়া দৈনিক স্পোর্তোকে আর্জেন্টিনা কোচ বলেন, বার্সেলোনার সঙ্গে লড়াই চান না এবং তিনি যা বলতে চেয়েছিলেন, তা খবরগুলোতে প্রতিফলিত হয়নি।