🕓 সংবাদ শিরোনাম

রোজিনার সঙ্গে যারা অন্যায় করেছে, তাঁদের জেলে পাঠান: ডা. জাফরুল্লাহকেরানীগঞ্জে ফ্ল্যাট থেকে যুবতীর অর্ধগলিত মরদেহ উদ্ধারপাটগ্রাম সীমান্তে অবৈধভাবে অনুপ্রবেশের দায়ে নারী ও শিশুসহ ২৪জন আটকসাংবাদিকদের ভয় দেখিয়ে সরকার গণমাধ্যমের কণ্ঠরোধ করতে চায়: ভিপি নুরসাংবাদিকদের বিরুদ্ধে মামলা নয়, দুর্নীতিবাজদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিন: হানিফআর এমন ভুল হবে না: নোবেলস্বেচ্ছায় কারাবরণের আবেদন নিয়ে থানায় অনুসন্ধানী সাংবাদিকেরাইসরায়েলি আগ্রাসনের প্রতিবাদে রাস্তায় ঢাবি শিক্ষক সমিতিযমুনা নদীতে ডুবে তিন কলেজ ছাত্রীর মর্মান্তিক মৃত্যু‘বাংলাদেশে সাংবাদিকতাকে তথ্য চুরি বলা হচ্ছে, এর চেয়ে দুঃখ আর নেই’

  • আজ বুধবার, ৫ জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৮ ৷ ১৯ মে, ২০২১ ৷

গাজীপুরের শ্রীপুরে ১০টাকা কেজি চাউল বিতরণে অনিয়ম


❏ রবিবার, সেপ্টেম্বর ২৫, ২০১৬ ঢাকা, দেশের খবর

রেজাউল সরকার (আঁধার) গাজীপুর প্রতিনিধি: সরকারি নির্দেশ অনুযায়ী সারা দেশে ১০টাকা কেজি চাউল বিরতণ কর্মসূচির ধারাবাহিকায় গাজীপুরের শ্রীপুর উজেলায় বিভিন্ন ইউনিয়নে চাউল বিতরণ শুরু হয় গত ৭ সেপ্টেসম্বর থেকে। এর মধ্যে চাউলের ডিলারদের চাউল বিতরণে অনিয়ম দেখা দিয়েছে।

unnamedসরেজমিনে ঘুরে দেখা যায়, উপজেলার বরমী ইউনিয়নের ২ ও ৩ নং ওয়ার্ডের চাউলের ডিলার মো.ছাইদুজ্জামান আশিক বেপারী চাউল বিতরণে ব্যাপক অনিয়ম ও ওজনে কম দিচ্ছেন। শনিবার সকালে আশিকের চাউলের গোডাউনের সামনে শত শত হতদরিদ্ররা বির জমায় ১০টা কেজি চাউল ক্রয় করার জন্য। কিন্তু চাউলের ডিলার গোডাউন বন্ধ করে চলে যায়।

এসময় উপস্থিত দরিদ্র ওয়ার্ড বাসীন্দারা ঢাকা-ময়মনসিংহ রেল পথে সকাল ১০টা থেকে বিকাল ৪টা পর্যন্ত চাউল না পেয়ে বিক্ষোভ করে। বিক্ষোভ কালে ওয়ার্ডের লাকচতল গ্রামের মৃত হযরত আলীর ছেলে রতন মিয়া জানান, আজ কয়েকদিন যাবত চাউল কেনার জন্য আসি কিন্তু গোডাউন বন্ধ থাকায় চাউল কিনতে পারছি না।

তিনি আরো বলেন, কিছু কিছু লোকজনকে চাউল দিয়ে এখন চাউলের ডিলার আশিক বলে চাউল নেই, অনেক আগেই চাউল শেষ হয়ে গেছে। আরো জানা যায়, ত্রিশ কেজি করে চাউলের টাকা নিয়ে দিচ্ছে ২২ থেকে ২৪ কেজি।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে চাউলের ডিলার মো.ছাইদুজ্জামান আশিক বেপারী জানান, আমাকে যে পরিমাণ চাউল দেওয়া হয়েছে তার থেকে বেশি কার্ড প্রধান করা হয়েছে। এ জন্য আমি সবাইকে চাউল দিতে পারছি না। আর ওজন কম দেওয়ার বিষয়টি এড়িয়ে যান তিনি।

স্থানীয় ইউপি সদস্য মো.ওমর ফারুক বলেন, একটি কার্ডও কোন ডিলারকে বেশি দেওয়ার সুযোগ নেই।

উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) মো. আব্দুল আওয়াল জানান, এই বিষয়ে অভিযোগ পাওয়া গেছে। তদন্ত সাপেক্ষে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে। হতদরিদ্রদের চাউল যেন কেও আত্মসাৎ না করতে পারে এ ব্যাপারে উপজেলা প্রশাসন সজাগ রয়েছে।