🕓 সংবাদ শিরোনাম

খেলার আগে মাঠে ফিলিস্তিনের পতাকা ওড়ালেন কুড়িগ্রামের ক্রিকেটারেরাপাঁচ ঘণ্টা আটকে রেখে থানায় নেওয়া হলো প্রথম আলোর রোজিনা ইসলামকেকর্মস্থলে ফিরতে গাদাগাদি করে রাজধানীমুখী লাখো মানুষশেরপুরে পৃথক ঘটনায় একদিনে ৭ জনের মৃত্যুএক বিয়ে করে দ্বিতীয় বিয়ের জন্যে বড়যাত্রীসহ খুলনা গেল যুবক!আমার মৃত্যুর জন্য রনি দায়ী! চিরকুট লিখে স্কুল ছাত্রীর আত্মহত্যাইসরাইলীয় আগ্রাসনের  বিরুদ্ধে ইসলামী বিশ্বের নিন্দার নেতৃত্বে সৌদি আরবত্রিশালে সড়ক দূর্ঘটনায় ৩ জনের মৃত্যুতে নিহতের বাড়ীতে চলছে শোকের মাতমকলাপাড়ায় এক সন্তানের জননীর মরদেহ উদ্ধারটাঙ্গাইলে কৃষক শুকুর মাহমুদ হত্যা মামলায় গ্রেফতার-১

  • আজ মঙ্গলবার, ৪ জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৮ ৷ ১৮ মে, ২০২১ ৷

অনুপ্রবেশ রুখতে পাকিস্তান সীমান্তে বেড়া দিচ্ছে ভারত


❏ মঙ্গলবার, সেপ্টেম্বর ২৭, ২০১৬ আন্তর্জাতিক, স্পট লাইট

আন্তর্জাতিক ডেস্ক- অনুপ্রবেশ রুখতে পাকিস্তান সীমান্তে নিরাপত্তা ব্যবস্থা জোরদার করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে ভারত সরকার। এজন্য ভারত-পাকিস্তান তিন হাজার ৩২৩ কিলোমিটার লম্বা সীমান্ত ঘিরে বেড়া দিতে কেন্দ্রকে নির্দেশ দিয়েছে সরকার। একইসঙ্গে বেড়া তৈরিতে অত্যাধুনিক প্রযুক্তি ব্যবহারেরও নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।

image-39106-1474960489ভারতের শীর্ষস্থানীয় এক গণমাধ্যম জানিয়েছে, এ বছরের শুরুতে পাঠানকোট হামলার পর গত এপ্রিলে প্রাক্তন কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রসচিব মধুকর গুপ্তের নেতৃত্বে একটি কমিটি গঠিত হয়। কমিটি সীমান্ত পেরিয়ে সন্ত্রাস কীভাবে রোখা যায়, তার পন্থা খোঁজার চেষ্টা করে। এরই ধারাবাহিকতায় ১৮ তারিখের উরি সন্ত্রাসের কয়েকদিনের মধ্যেই ওই কমিটি রিপোর্ট পেশ করে।

পাকিস্তানের সঙ্গে চারটি রাজ্যে সীমান্ত রয়েছে- ভারতের- জম্মু কাশ্মীর, রাজস্থান, পঞ্জাব ও গুজরাট। কমিটি প্রস্তাব দিয়েছে, সীমান্তে গ্রিড নির্ভর সিস্টেম বসানোর জন্য। পাশাপাশি সীমান্ত পাহারায় অত্যাধুনিক প্রযুক্তির সাহায্য পাবে বিএসএফ ও সেনা। চার রাজ্যেই সীমান্ত পাহারার জন্য কৃত্রিম উপগ্রহের সাহায্য নেওয়ার প্রস্তাব দেওয়া হয়েছে। যখনই অনুপ্রবেশের চেষ্টা হবে, গ্রিড থেকে সাবধানবার্তা পাবে অন্যরা।

এ ব্যাপারে জাতীয় নিরাপত্তা উপদেষ্টা অজিত ডোভাল, আইবি ও র প্রধান এবং স্বরাষ্ট্র সচিব রাজীব মেহঋষির সঙ্গে বৈঠক করেন কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী রাজনাথ সিংহ। কমিটি প্রধান মধুকর গুপ্তও ছিলেন বৈঠকে। সেখানে ঠিক হয়েছে, গ্রিড নির্ভর ওই নিরাপত্তা ব্যবস্থা যত দ্রুত সম্ভব কার্যকর করা হবে।