🕓 সংবাদ শিরোনাম

খেলার আগে মাঠে ফিলিস্তিনের পতাকা ওড়ালেন কুড়িগ্রামের ক্রিকেটারেরাপাঁচ ঘণ্টা আটকে রেখে থানায় নেওয়া হলো প্রথম আলোর রোজিনা ইসলামকেকর্মস্থলে ফিরতে গাদাগাদি করে রাজধানীমুখী লাখো মানুষশেরপুরে পৃথক ঘটনায় একদিনে ৭ জনের মৃত্যুএক বিয়ে করে দ্বিতীয় বিয়ের জন্যে বড়যাত্রীসহ খুলনা গেল যুবক!আমার মৃত্যুর জন্য রনি দায়ী! চিরকুট লিখে স্কুল ছাত্রীর আত্মহত্যাইসরাইলীয় আগ্রাসনের  বিরুদ্ধে ইসলামী বিশ্বের নিন্দার নেতৃত্বে সৌদি আরবত্রিশালে সড়ক দূর্ঘটনায় ৩ জনের মৃত্যুতে নিহতের বাড়ীতে চলছে শোকের মাতমকলাপাড়ায় এক সন্তানের জননীর মরদেহ উদ্ধারটাঙ্গাইলে কৃষক শুকুর মাহমুদ হত্যা মামলায় গ্রেফতার-১

  • আজ মঙ্গলবার, ৪ জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৮ ৷ ১৮ মে, ২০২১ ৷

ইসলামভীতি দূর করতে নিউইয়র্কে প্রচারণা


❏ বুধবার, সেপ্টেম্বর ২৮, ২০১৬ আন্তর্জাতিক

news_picture_37177_muslim1


আন্তর্জাতিক ডেস্কঃ

ইসলাম ভীতির বিরুদ্ধে যুদ্ধে নিউইয়র্কে প্রচারণা শুরু হয়েছে। সোমবার কয়েকশ’ মুসলমান ওই প্রচারণায় অংশ নেন। তারা মুসলমানদের সমঅধিকারের দাবিও জানান। খবর এক্সপ্রেস ট্রিবিউনের।

ম্যানহাটনের বোমা হামলার ঘটনার পরই এ ধরনের প্রচারণা অভিযান শুরু হয়েছে। আফগান-আমেরিকান এক ব্যক্তি ওই হামলা চালিয়েছিল। ওই ব্যক্তির পরিচয় প্রকাশ পাওয়ার পরপরই গণমাধ্যম এবং সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে হ্যাসট্যাগ ব্যবহার করে আমি মুসলিম এমন বার্তা ছড়িয়ে দেয়া হয়।

ওই হামলাকারী মুসলিম ছিল। কিন্তু তার মানে তো এই নয় যে সারা বিশ্বের মুসলমানরা হত্যাকারী। আর এভাবে একজন মুসলিম ব্যক্তির দায় অন্য সবার ওপর চালিয়ে দেয়া হচ্ছে। ফলে ইসলাম এবং মুসলমানদের প্রতি অন্যান্য ধর্মাবলম্বীদের এক ধরনের ভীতি কাজ করছে।

মেয়র দে ব্লাসিও এক বিবৃতিতে জানিয়েছেন, এখন অন্যান্য সময়ের চেয়ে আরো বেশি সচেতন হতে হবে। নিউইয়র্ক শহরে একতা প্রয়োজন। আমাদের ঘৃণা এবং সহিংসতা ত্যাগ করতে হবে। নিউইয়র্কের প্রত্যেকের জন্য এটা খুব গুরুত্বপূর্ণ।

সন্দেহভাজন আহমেদ খান রাহামির হামলায় চেলসিয়ায় ২৯ জন আহত হওয়ার ১০ দিন পর মঙ্গলবার থেকে ওই প্রচারণা শুরু হয়েছে। প্রচারণায় অংশ নেয়ারা বলছেন, আমরা কোনো ধরনের বিভেদ এবং সহিংসতা সহ্য করব না। আমাদের একজন মুসলমান ভাই বা বোনও যতক্ষণ পর্যন্ত তাদের যথাযোগ্য মর্যাদা পাবে না আমরা সে পর্যন্ত লড়াই করে যাব। আমরা এত সহজেই ক্ষান্ত হবো না।

এর আগে আগস্টে নিউইয়র্কে এক ইমাম এবং তার সহযোগীকে নামাজ শেষে বাড়ি ফেরার পথে মসজিদের সামনে গুলি করে হত্যা করা হয়। এসব হত্যাকাণ্ড এবং হামলার ঘটনায় মানুষকে সচেতন করতে এবং তাদের ভীতি দূর করতে কর্মশালার আয়োজন করবে নিউইয়র্ক। সেখানে সরকারি, বেসরকারি এবং বিভিন্ন শ্রেণির মানুষকে ইসলামের সঠিক ধারণা দিতে সামনের মাসে সচেতনতামূলক কর্মশালার আয়োজন করা হবে।