ট্যাম্পাকোর ধ্বংসস্তুপ থেকে মানুষের হাড় উদ্ধার

❏ বুধবার, সেপ্টেম্বর ২৮, ২০১৬ ঢাকা, দেশের খবর

রেজাউল সরকার (আঁধার), গাজীপুর প্রতিনিধি: টঙ্গীর বিসিক এলাকায় ট্যাম্পাকো ফয়েল কারখানার অগ্নিকাণ্ডের ঘটনায় ভবনের ধ্বংসস্তুপ থেকে মানুষের দেহাবশেষের কিছু হাড় উদ্ধার করেছে সেনাবাহিনী ও ফায়ার সার্ভিসের উদ্ধারকারী দল। আজ বুধবার দুপুরে ধ্বংসস্তুপ অপসারণের সময় হাড়গুলো উদ্ধার করা হয়। এ হাড়গুলো কাদের দেহাবশেষের তা এখনও জানা যায়নি।

tampko

উদ্ধার তৎপরতায় ভারি যন্ত্রপাতি ব্যবহার করে ধ্বসে যাওয়া ভবনের ইট, রডসহ অন্যান্য সরঞ্জাম ড্রাম ট্রাক দিয়ে অন্যত্র সরানো হচ্ছে। ভবনের ভিতরে থাকা রাসায়নিক বিস্ফোরণের আশঙ্কায় সতর্ক হয়ে কাজ করছে ফায়ার সার্ভিসের কর্মীরা।

টঙ্গী থানার উপ-পরিদর্শক (এস আই) আশরাফ হোসেন সময়ের কণ্ঠস্বরকে জানান, ধ্বংসস্তুপ অপসারণ ও উদ্ধার কাজ চলাকালে দুপুর সোয়া ২টার দিকে কিছু হাড় উদ্ধার করা হয়েছে। উদ্ধারকৃত দেহাবশেষটি ময়নাতদন্তের জন্য ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে।

১৯ দিন ধরে চলা উদ্ধার কাজে সরকারি হিসাব মতে, এ পর্যন্ত ৩৯ জনের মরদেহ উদ্ধার করার কথা বলা হয়েছে। সরকারি হিসাবে নিখোঁজ রয়েছে একজন শ্রমিক। আর ডিএনএ পরীক্ষার পর যদি আজ বুধবার উদ্ধার করা দেহাবশেষটির সঙ্গে নিখোঁজ কোনো শ্রমিকের স্বজনদের ডিএনএ মিলে যায় তাহলে আর কোনো শ্রমিক নিখোঁজ নেই বলে ধরে নেয়া যাবে বলে জানিয়েছেন জেলা প্রশাসকের কন্ট্রোল রুম সূত্র।

প্রসঙ্গত, ১০ সেপ্টেম্বর ভোরে বিএনপির সাবেক সাংসদ মকবুল হোসেনের মালিকানাধীন টঙ্গীর বিসিক শিল্প নগরীর ট্যাম্পাকো ফয়েলস কারখানায় গ্যাস সঞ্চালন লাইন বিস্ফোরণের আগুনে চারটি ভবনের তিনটি ধ্বসে পড়ে। অগ্নিকাণ্ডের ওই ঘটনায় এখন পর্যন্ত মোট ৩৯ জনের মৃত্যু হয়েছে। লাশ শনাক্ত হয়েছে ৩২ জনের। নিখোঁজ রয়েছে আরো ৮ জন। ঢামেক মর্গে লাশ রয়েছে ৭ জনের।