🕓 সংবাদ শিরোনাম

গাজা উপত্যকায় ইসরাইলি হামলায় কমপক্ষে ৩৩ জনের মৃত্যুচট্টগ্রামে ২৪ ঘণ্টায় করোনা আক্রান্ত ২৫, মৃত্যু ৪সুনামগঞ্জে বিদ্যুতায়িত হয়ে মা ও ছেলেসহ ৩ জনের মর্মান্তিক মৃত্যুসৌদি আসতে দিতে হবে করোনা ভ্যাকসিন, নয়তো থাকতে হবে কোয়ারেন্টিনেএখনো ঈদ করতে বাড়ী আসছে দক্ষিনঅঞ্চলের ২১জেলার হাজার হাজার মানুষকরোনার হটস্পট কেরানীগঞ্জ, ঈদে ছাপ নেই স্বাস্থ্য বিধিরবস্তার দোকানে মাদকের ব্যবসা, দুই জন আটকডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে সাতক্ষীরা জেলা আইনজীবী সমিতির সাবেক সভাপতি গ্রেপ্তারভারত থেকে চট্টগ্রামে আসা ৪ জনের করোনা শনাক্ত ত্রিশালে পণ্য বিপনন মনিটরিং কমিটির মতবিনিময় সভা

  • আজ রবিবার, ২ জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৮ ৷ ১৬ মে, ২০২১ ৷

কাশফুলের শুভ্রতায় বিমোহিত হয়ে আনন্দ উচ্ছ্বাসে মেতে উঠেছে এক দঙ্গল ছেলে মেয়ে


❏ শুক্রবার, সেপ্টেম্বর ৩০, ২০১৬ আলোচিত, স্পট লাইট

অনীল চন্দ্র রায়,ফুলবাড়ী (কুড়িগ্রাম) প্রতিনিধি :

ধরলার নদীর র্তীরবর্তী মাঠ জুড়েই কাশফুলের সমাহার । কাশফুলের শুভ্রকায় বিমোহিত এ দঙ্গল ছেলে মেয়ে আনন্দ উচ্ছ্বাস মেতে উঠেছে।

আজ শুক্রবার সকালে ছুটির দিনে উপজেলার নাওডাঙ্গা ইউনিয়নের কিষামত শিমুলবাড়ী গ্রামের নবিউলের ঘাট থেকে ১শ গঞ্জ দক্ষিণ-পশ্চিম পার্শ্বে কাশফুলের বাগানে স্থানীয় শিশু শিক্ষার্থী কাশবনে আনন্দ উচ্ছ্বাস করছে।

দ্বিতীয় শ্রেণীর আশামনি, শাকিল, প্রথম শ্রেণীর লীজা, হাসি, আশা, পঞ্চম শ্রেণীর আখি, নয়ন জানান, প্রতি শুক্রবার স্কুল ছুটির দিনে সবাই মিলে কাশবনে গিয়ে অনেক মজা করি। কাশবনে মজা করতে খুবেই ভাল লাগে আমাদের। এ যেন বাঙালীদের মনে দোলা দিতে বর্ষাকাল অতিক্রম করে শুভ্রতার প্রতিক হয়ে প্রতিবছর ফিরে আসে শরৎকালের এই দিনে। ধরলা নদীর জেগে উঠা র্তীরবর্তী এক বৈচিত্রময় মাঠ জুড়ে ফোটে সাদা সাদা কাশফুল। তাই তো বাঙালীর হৃদয়ে আনন্দের আশা জাগায় শরতের এই কাশফুল। এ কাশফুল শিশিরভেজা মাঠ জুড়ে সবুজ ঘাস,নীল আকাশ ও সাদা কাশফুল মনের হৃদয়ে শিহরণ জাগে।

কুড়িগ্রামের ফুলবাড়ী সীমান্ত বর্তী উপজেলার ছয়টি ইউনিয়নের মধ্যে চারটি ইউনিয়নেই হল ধরলা নদীর সাথে সংযোগ। ধরলার র্তীরবর্তী ইউনিয়ন গুলো হল নাওডাঙ্গা, শিমুলবাড়ী, ফুলবাড়ী,বড়ভিটা। চারটি ইউনিয়নে ধরলা নদীর তীরে ধু-ধু বালুচরের মধ্যে বিভিন্ন বির্স্তীণ উচু জায়গা জুড়ে আপন মনে ফুটেছে শরতের দাদা কাশফুল। কাশফুলের মৌ মৌ গন্ধে মুখরিত পুড়ো বাগান জুড়ে। এই সুগন্ধ পাওয়ার আশায় অনেক স্কুল, কলেজ গামী তরুন-তরুনীরাসহ অনেক দুর দুরান্ত থেকে মনের একটু প্রশান্তির জন্য প্রতিদিন ছুটে যায় স্বপ্নের কাশফুলের বাগানে।

kashbon

আমাদের সোনার বাংলাদেশের সবচেয়ে জনুপ্রিয় ফুলের মধ্যে কাশফুল অন্যতম। কাশফুল আমাদের অনেক কিছুই শিখিয়েছে কোমলতা ও সরলতা। র্তীরবর্তি নদীতে ধু-ধু বালুচরের কাশফুল বাগানে নির্মল প্রকুতিতে মানুষজন বার বার ফিরে যায়। তবে পুথিবীর কোন দেশে ঘাসজাতীয় উদ্ভিদের ফুলের মত কাশফুলে কদর আছে কিনা জানা নেই। তবে বাংলাদেশের মানুষের মনে জয় করে নিয়েছে ঘাসজাতীয় কাশফুল। প্রকৃতির শত শত প্রেমীদের কাছে শরতের কাশফুল ব্যাপক হারে জনপ্রিয়। তাই তারা কাশবনে মনের শুভ্রতার খোঁজে বার বার ফিরে আসে। সাদা কাশফুল আর নীল সবুজ আকাশ দেখে মুগ্ধ বিহলতায়। সেখানে খুঁজে পায় লাল সবুজের বিজয়ের পতাকা ও আমার হৃদয়ের বাংলাদেশ।

আমাদের এই বাংলাদেশে সাধারণত তিন প্রজাতির কাশফুল আছে। সমতলে এক প্রজাতি কাশফুল এবং পাহাড়ে দুই প্রজাতির কাশফুল। তবে সবার কাছে সমতলের প্রজাতির কাশফুল বেশি জনপ্রিয় এবং খুব সহজেই কাছাকাছি দর্শনযোগ্য বলে অনেকে জানান। বাংলাদেশের সব নদীর র্তীরে প্রাকৃতিক জলাশয়ের ধারে বেশি কাশফুল জন্মে। বাংলা মাসের ভাদ্র-আশ্বিনের এই দিনে প্রকৃতিতে শরৎকালে নীল আকাশজুড়ে এক নরম সাদা মেঘের ভেলা হয়ে আপন মনে ঘুরে বেড়ায় জেলেদের পালতোলা নৌকায় চড়ে।

এই বিভাগ থেকে আরও পড়ুন :