• আজ ৪ঠা বৈশাখ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ

‘ডিজিটাল নিরাপত্তা নিশ্চিত করাই হবে সরকারের মূল লক্ষ্য’

৫:৩৯ অপরাহ্ন | শুক্রবার, অক্টোবর ২১, ২০১৬ Breaking News, জাতীয়

সময়ের কণ্ঠস্বর – তথ্য প্রযুক্তির ব্যবহার বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে এই খাতে নানা ধরনের অপরাধও বাড়ছে। সেসব অপরাধ দমনে ডিজিটাল ফরেনসিক ল্যাব স্থাপনের মাধ্যমে অপরাধীদের সনাক্ত করে তাদের নিরস্ত করতে নিরন্তর কাজ করছে ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের কাউন্টার টেরোরিজম অ্যান্ড ট্রান্সন্যাশনাল ক্রাইম ইউনিটের সাইবার সিকিউরিটি অ্যান্ড ক্রাইম ডিভিশন।

রাজধানীর ইন্টারন্যাশনাল কনভেনশন সিটি বসুন্ধরায় (আইসিসিবি) অনুষ্ঠিত ডিজিটাল ওয়ার্ল্ডে আয়োজিত ‘ইউ আর নট সেইফ! ডিজিটাল ফর এভরি সিটিজেন শীর্ষক সেমিনারে এসব কথা বলেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খাঁন কামাল।

তিনি জানান, সাইবার অপরাধ মোকাবেলায় সক্ষমতা বৃদ্ধিসহ ডিজিটাল নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে খুব শিগগিরই ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন প্রণীত হতে যাচ্ছে। এ আইনের মাধ্যমে ডিজিটাল নিরাপত্তা নিশ্চিত করাই হবে সরকারের মূল লক্ষ্য।

kamal-mp

মন্ত্রী বলেন, ‘পর্নোগ্রাফি নিয়ন্ত্রণের জন্য ২০১২ সালে প্রণীত পর্নোগ্রাফি নিয়ন্ত্রণ আইন এবং পুলিশের ক্রিমিনাল ইনভেস্টিগেশন ডিপার্টমেন্টে একটি ডিজিটাল ফরেনসিক ল্যাবরেটরি প্রতিষ্ঠা করা হয়েছে। এছাড়া পর্নোগ্রাফি নিয়ন্ত্রণের জন্য ২০১২ সালে প্রণীত পর্নোগ্রাফি নিয়ন্ত্রণ আইন এবং পুলিশের ক্রিমিনাল ইনভেস্টিগেশন ডিপার্টমেন্টে একটি ডিজিটাল ফরেনসিক ল্যাবরেটরি প্রতিষ্ঠা করা হয়েছে। এর মাধ্যমে প্রতিনিয়তই অপরাধীদের সনাক্ত করা হচ্ছে। এসব আইনের মাধ্যমে এ পর্যন্ত বিভিন্ন থানায় এক হাজার ৬১২টি মামলা হয়েছে। যার অসামি করা হয়েছে পাঁচ হাজার ৪৪৯ জনকে।

বাংলাদেশ কম্পিউটার কাউন্সিলের নির্বাহী পরিচালক এস এম আশরাফুল ইসলামের সঞ্চালনায় সেমিনারে মূল প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন মেট্রোনেট বাংলাদেশের নিরাপত্তা গবেষক আলমাস জামান। ।বক্তব্য রাখেন বেসিস পরিচালক সৈয়দ আলমাস কবির।